অার বেঁচে নেই হাজী দারা মিয়া – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

অার বেঁচে নেই হাজী দারা মিয়া

প্রকাশিত: ৭:৫০ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ৯, ২০১৬

অার বেঁচে নেই হাজী দারা মিয়া

13592305_10206775250281936_5400968981015715928_nপ্রত্যেক আত্নাকে মৃ্ত্যুর স্বাধ অনুভব করতে হবে (আল-কোরআন)। মহান আল্লাহ তায়ালার অবধারিত এ ঘোষনা মানবজীবনেও চিরন্তন। এরই ধারাবাহিকতায় আমাদের মাঝ থেকে চলে গেলেন বৃহত্তর সিলেটের প্রবীন মুরব্বী, একজন নির্ভরযোগ্য অভিভাবক হাজী আইয়ুব আলী দারা মিয়া (৭৮)। ০৮.০৭.২০১৬ ইং বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৩টার সময় সকলকে কাঁদিয়ে মহান মাবুদের সান্নিধ্যে পাড়ি জমান তিনি (ইন্না লিল্লাহী ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। সামাজিক পরিচিতিতে বর্ণাঢ্য জীবনের অধিকারী দক্ষিন সুরমা উপজেলার, কুচাই ইউনয়নের সুলতানপুর গ্রামের বাসিন্দা দারা মিয়া, অনন্য হৃদয়ের এক অসাধারন ব্যাক্তি ছিলেন। বার্ধ্যক্যজনিত নানা রোগে তিনি ছিলেন আক্রান্ত। তারপরও মানসিক শক্তিতে তিনি ছিলেন প্রাণবন্ত। আত্নীয়-স্বজনসহ সামাজিক মানুষের নিকট তিনি ছিলেন বটবৃক্ষের মতো। তার ছায়ায় সকলেই প্রশান্তি খুজতেন:। শারিরিক সুস্থতার অবনতি হলে, তাকে ঢাকার স্কয়ার হাতপাতালে এয়ার এ্যাম্বুলেন্স করে নিয়ে যান স্বজনরা। তারপর ডাক্তারদের নিবিড় পর্যবেক্ষনে স্বাস্থ্যসেবা দেয়া হয়। কিন্ত মহান আল্লাহর ফায়সালা ছিল ভিন্ন, তাকে তিনি নিয়ে গেলেন না ফেরার দেশে। হে প্রশান্ত আত্না চল তুমি তোমার প্রতি-পালকের দিকে, এই অবস্থায় যেন তুমি তোমার প্রতিপালকের উপর সন্তুষ্ট, তোমার প্রতিপালকও তোমার উপর সন্তুষ্ট। তার কর্মযজ্ঞ ছিল মানুষ বান্ধব। হাজী দারা মিয়া সামাজিক বিচার সালিশের নির্ভরযোগ্য এক সালিশান ছিলেন। তাই সর্বমহলে তার ব্যাপক পরিচিতি। পথিক মানুষের সাথে হাসি মুখে কথা বলতেন, সালাম দিয়ে কথা বলায় অভ্যস্ত ছিলেন তিনি। ছোট-বড়, সব বয়সী লোকজনকে পরামর্শ-উপদেশ দিতেন, স্বভাব সুলভ শান্তশিষ্ট ভঙ্গীতে। ঠান্ডা মেজাজের এ মানুষটির প্রতি জনসমর্থন ছিল ঈর্ষনীয়। মানুষের ডাকে সাড়া দেওয়া ছিল তার চরিত্রের বৈশিষ্ট্য। মসজিদ-মাদ্রাসাসহ-দ্বীনের খেদমতে তার অবদান অশেষ। মানবিক গুণে অতুলনীয় এই মহান মানুষ হাজী দারা মিয়ার মৃত্যুতে, অামরা শোকাহত। চলার পথে ভূল ক্রটির উর্ধ্বে নয় মানুষ। হাজী দারা মিয়াও এর ব্যতিক্রম নন। মহান অাল্লাহ সুবহানাও তায়ালার রহমতের চেয়ে অবশ্যই ছোট, তার এ বান্দার যেকোন ভূল ক্রটি । তাই তার বিদেহী আত্না যেন নাজাত প্রাপ্ত হয়, এই দোয়া মহান আল্লাহ তায়ালার দরবারে। আমীন

সংবাদটি সিলেটের বিশিষ্ট সাংবাদিক ফয়সল আমীনের ফেইসবুক থেকে সংগৃহিত

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল