আইনশৃঙ্খলাবহিনী রক্ষকের চেয়ে ভক্ষক হয়ে গেছে: আমির খসরু – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

আইনশৃঙ্খলাবহিনী রক্ষকের চেয়ে ভক্ষক হয়ে গেছে: আমির খসরু

প্রকাশিত: ৪:৫৪ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৬, ২০১৭

আইনশৃঙ্খলাবহিনী রক্ষকের চেয়ে ভক্ষক হয়ে গেছে: আমির খসরু

নিজস্ব প্রতিবেদক: গুম খুনের সমালোচনা করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, বর্তমান সরকার গায়ের জোরে দেশ পরিচালনা করছে। এখন আইনশৃঙ্খলাবহিনী রক্ষকের চেয়ে ভক্ষক হয়ে গেছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির মিলনায়তনে গুম, খুন,বিচার বহির্ভুত হত্যার প্রতিবাদে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব বলেন।শিক্ষক কর্মচারী ঐক্যজোট এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

শিক্ষক নেতা অধ্যক্ষ সেলিম ভুঁইয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্য বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা প্রফেসর ডাঃ ফরহাদ হালিম ডোনার, সাংবাদিক নেতা কাদের গনি চৌধুরী, পেশাজীবী নেতা শামীমুর রহমান শামীম,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রফেসর আল মুজাদ্দেদী আলফেছানী বক্তব্য দেন।

আমির খসরু বলেন- বাংলাদেশের গুম, খুন, হত্যার ঘটনা এখন আর অভ্যন্তরীন বিষয় নয়, এটা আন্তর্জাতিক বিষয়ে পরিণত হয়েছে। গুম, খুন এমন পর্যায়ে গিয়ে পৌছেছে যে, এটা শুধু বাংলাদেশের মানুষকে ক্ষতবিক্ষত করছে না বরং বিশ্বের শান্তিকামী ও গণতন্ত্রকামি মানুষদের ক্ষত বিক্ষত করছে।

তিনি বলেন, আজকে মানবাধিকার সংগঠনগুলো প্রতিনিয়িত বাংলাদেশসরকারকে বলছে আপনারা এই গুম, খুন,বিচার বহির্ভুত হত্যা, নিপীড়ন বন্ধ করুন। এবং এর পরিপ্রেক্ষিতে আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর যে ভুমিকা তারা সে বিষয়েপরিস্কার করে বলছে এরা (আইনশৃঙ্খলাবাহিনী) শুধু গুম খুন হত্যা চালিয়ে যাচ্ছেনা, এরা বিচারের আওতার বাইরের দিকে যাচ্ছে। এমনকি আইন শৃঙ্খলা বাহিনী যে গুম, খুন করছে এটা বিশ্বব্যাপী স্বীকৃত।

তিনি বলেন, দেশে আইনের শাসনের অভাবে মানুষ নির্যাতিত নিপীড়িত হচ্ছে। যারা জনগণকে রক্ষা করার কথা তারা আজকে ভক্ষক হয়ে গেছে। এবং শুধু আইন শৃঙ্খলা বাহিনী নয়, আজকে দেশে আইনের শাসন বাস্তবায়নের অভাবে বিচার বিভাগও নিরব থেকে যাচ্ছে। অথচ কোনো দেশে কী আছে যারা মানুষকে রক্ষা করবে সেই আইন শৃঙ্খলা বাহিনী ভক্ষকে পরিণত হয়েছে।

র‌্যাবের কর্মকান্ড নিয়ে সম্প্রতি সুইডেনের একটি রেডিওতে যে তথ্য-উপাত্ত প্রকাশিত হয়েছে তার সমালোচনায় তিনি বলেন, এরমাধ্যমে সত্য আরো বেশি প্রকাশিত হচ্ছে। আজকে বাংলাদেশের সবাই জানে দেশের প্রতিটি গুম খুন করছে আইনশৃঙ্খলাবাহিনী। তার চেয়ে বড়কথা হচ্ছে যা এইসমস্ত অপরাধের সঙ্গে জড়িত সবাই চিহ্নিত। সবাই জানে, চিনে এবং কাদের নির্দেশে এই গুম খুন হচ্ছে। এবং এরা যেআইনের আওতার বাইরে সেটাও বাংলাদেশের মানুষ জানে এবং বিশ্ব সমাজের কাছে পরিস্কার হয়ে গেছে।

আমির খসরু বলেন, আজকের প্রেক্ষাপটে ক্রসফায়ার, মিথ্যা মামলা, জেল,নির্বাচিতদের বরখাস্ত করার যে ইতিহাস এই দেশ গড়ে তুলেছে সেই দেশের আন্তর্জাতিক পর্যায়েও গ্রহণযোগ্যতা নাই। তারা (সরকার) গায়ের জোরে সবকিছু উপক্ষো করে দেশ পরিচালনা করছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

কাদের গনি চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশ মনুষ্য বসবাসে অযোগ্য হয়ে পড়েছে। সরকারের মদদে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ভিন্নমতের লোকদের ধরে নিয়ে হত্যা, গুম করছে। আমরা হিসাব করেছি, বিএনপির এক হাজারের বেশি নেতা-কর্মী নিহত হয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর গুলিতে, পাঁচশর অধিক রাজনৈতিক নেতা-কর্মী গুম হয়ে গেছে, হাজারের উপরে পঙ্গু হয়েছে, অসংখ্য আহত হয়েছে। লক্ষ লক্ষ মানুষ আসামি হয়েছে, হাজার হাজার মানুষ জেলে গেছে।

২০১০ সালের পর থেকে সরকারি নিপীড়ন বেড়েছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশ এখন সত্যিকার অর্থেই একটি ফ্যাসিবাদী রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে। সত্যিকার অর্থে এখানে এখন রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস চলছে।

এখানে মানবাধিকার বলতে কিছুই নেই, এখানে আইনের শাসন বলতে কিছু নেই। গণতন্ত্রের লেশমাত্র নেই, এখানে গণতন্ত্রকে কবর দেওয়া হয়েছে। তিনি চট্টগ্রামে ছাত্রদল নেতা নুরুল আলম নুরুর খুনিদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও বিচার দাবি করেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল