আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসী রাজনীতির করণে দেশের গণতন্ত্র আজ বিপন্ন-খন্দকার মুক্তাদির – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসী রাজনীতির করণে দেশের গণতন্ত্র আজ বিপন্ন-খন্দকার মুক্তাদির

প্রকাশিত: ৮:৪৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৭

আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসী রাজনীতির করণে দেশের গণতন্ত্র আজ বিপন্ন-খন্দকার মুক্তাদির

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি)’র চেয়ারপার্সন ও সাবেক তিন বারের সফল প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্ঠা সিলেট-১ আসনের আগামী দিনের কর্ণধার খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির বলেছেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে গণতন্ত্র বিপন্ন হয়। দেশে এখন কথা বলার স্বাধীনতা নেই। মৌলিক অধিকার কেড়ে নেয়া হয়েছে। সংবাদপত্রের স্বাধীনতাও নেই। লাইসেন্স বাতিলের ভয়ে গণমাধ্যম সত্য ঘটনা প্রকাশ করতে পারছে না।
তিনি আরো বলেন মুক্তিযুদ্ধের চেতনার কথা বলে এই সরকার মুক্তিকামী মানুষকে খুন, গুম ও বিনা বিচারে বন্দি করে রাখছে। আওয়ামী লীগ সরকারে আসলেই দেশের মানুষ নিরাপত্তাহীনতায় ভোগে। আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীর রাজনীতির কারণে দেশের গণতন্ত্র আজ বিপন্ন।
তিনি শুক্রবার (২৯ ডিসেম্বর) বিকালে নগরীর ষ্টেশন রোডে স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের রুহের মাগফেরাত কামনা ও বিএনপি সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান জননেতা তারেক রহমানের ৫৩ তম জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষ্যে এবং নিখোঁজ বিএনপি এম ইলিয়াস আলী সহ নেতাকর্মীদে অক্ষত অবস্থায় ফিরে পেতে দক্ষিণ সুরমা উপজেলা ও ২৫, ২৬ এবং ২৭ নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক দল আয়োজিত গরীব অসহায় দরিদ্র শীতার্থ মানুষের মধ্যে কম্বল বিতরণ কালে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের প্রতিষ্ঠাতা আহবায়ক ও উপজেলা ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক কামাল হাসান জুয়েল’র সভাপতিত্বে ও স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা দিলোয়ার হোসেন রানা, মল্লিক আহমদ এবং দিলোয়ার হোসেন চৌধুরীর যৌথ পরিচালনায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক ও মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি কাউন্সিলর ফরহাদ চৌধুরী শামীম।
বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইন, সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সেলিম, জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান সহ-সভাপতি সাবেক পিপি এডভোকেট আব্দুল গফ্ফার, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি আলহাজ্ব শেখ মখন মিয়া চেয়ারম্যান, মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি আব্দুল আলীম দিপক, আব্দুল সত্তার, জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আহাদ খান জামাল, মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মুর্শেদ আহমদ মুকুল, কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সাবেক সহ-সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান পাপলু, মহানগর বিএনপি নেতা মাহমদ আলী সাধু, মহানগর বিএনপির আপ্যায়ন সম্পাদক আফজল উদ্দিন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুস শহীদ।
আরো বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন মহানগর বিএনপির পরিবহন সম্পাদক আব্দুস সাত্তার মামুন, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক ইউনুস আলী, সহ-স্বাস্থ্য সম্পাদক ডা: এম এ হক বাবুল, সহ-সাংস্কৃতি সম্পাদক সেলিম রানা, জেলা বিএনপির সহ-প্রশিক্ষণ সম্পাদক এডভোকেট খালেদ জুবায়ের, জেলা বিএনপির সদস্য সাহেদুল ইসলাম বাচ্চু, মহানগর বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক লোকমান আহমদ, জেলা যুবদলের প্রচার সম্পাদক আলী আহমদ হিরা, জেলা যুবদলের কৃষি সম্পাদক কামরুল ইসলাম নেছার, জেলা যুবদলের সদস্য বখতিয়ার আহমদ ইমরান, দক্ষিণ সুরমা উজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক শামীম সিদ্দিকী, যুগ্ম আহবায়ক শাহেদ খান স্বপন, সুডেইন বিএনপি নেতা কবির আহমদ, মহানগর বিএনপির সহযোগাযোগ সম্পাদক উজ্জ্বল রঞ্জন চন্দ, মহানগর বিএনপির সদস্য মাহবুব আহমদ চৌধুরী, জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি নজরুল ইসলাম, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা বিএনপির ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক বাবর আহমদ রণি, জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক ফখরুল ইসলাম, মহানগর ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক এম এ মতিন, মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক এম এ মান্নান, প্রচার সম্পাদক আব্দুল হাসিব, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা রাসেল আহমদ, ফারুক আহমদ, নুরুল ইসলাম খান পিন্টু, শাহিন আহমদ, জেলা ছাত্রদলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ফাহিম হাসান মৌসুম, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা কামরান নোমান, জেলা ছাত্রদলের সমাজ সেবা সম্পাদক জাহেদ আহমদ, স্বেচ্ছাসেবক দল ও ছাত্রদল নেতা আরিফুল ইসলাম উজ্জ্বল, হোসেন আহমদ, শামসুদ্দিন সামছু, শফিকুল হক শামীম, জুনেদ আহমদ, রাজ্জাক খান রাজ, মাইদ্দিন, হেলাল আহমদ মাছুম, আশিকুর রহমান আশিক, মিজান চৌধুরী, জুনেদ আহমদ, এনাম আহমদ রাজ, মোশারফ পান, আব্দুল হাদী, লায়েক হাসান, মঞ্জু আহমদ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন ছাত্রদল নেতা এস কে শাহিন।