আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে বাসা দখলের অভিযোগ – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে বাসা দখলের অভিযোগ

প্রকাশিত: ৮:২৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১০, ২০১৬

আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে বাসা দখলের অভিযোগ

সংবাদ সম্মেলন ::  সিলেট নগরীর জল্লারপাড়ে এক আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে বাসা দখল করে স্থাপনা নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে। আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ওই বাসায় নির্মাণ কাজও করছেন তিনি। বৃহস্পতিবার (১০ নভেম্বর) প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন নগরীর মির্জা জাঙ্গালের বাসিন্দা শশী ভূষণ দে। তিনি জানান, মামলা প্রত্যাহারে তাকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। ফলে নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছেন তিনি।

শশী ভূষণ দে লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করেন, উত্তরাধিকার সূত্রে পাওয়া তার মির্জা জাঙ্গাল স্বপ্নীল-১৩ নম্বর বাসাটি ১১ মে আওয়ামী লীগ নেতা লায়েক আহমদ চৌধুরী তার দলবল নিয়ে দখল করে নেন। নিরুপায় হয়ে তিনি ২০ জুলাই যুগ্ম জজ আদালতে নিষেধাজ্ঞাসহ স্বত্ব মামলা করেন। আদালত নিষেধাজ্ঞা জারি করে কমিশন করান। ৯ নভেম্বর কমিশনের প্রেক্ষিতে জবাব দাখিলের তারিখ ধার্য করেন। কিন্তু আদালতের নির্দেশ অমান্য করে লায়েক বাসায় নির্মাণ কাজ করে যাচ্ছেন। এমনকি নানাভাবে ভয়ভীতি দেখাচ্ছেন।

লিখিত বক্তব্যে শশী ভূষণ দে আর জানান, ওই জায়গার মূল মালিক ছিলেন বিহারী চরণ দাস। পরবর্তীতে তা ভাগবাটোয়ারা করা হয়। নালিশা ভূমির এক মালিক ছিলেন গোলক চন্দ্র দে। তার মৃত্যুর পর কোনো উত্তরাধিকার না থাকায় ভাই হিসেবে তিনি মালিক হন। পরবর্তীতে তিনি জায়গার দাবিদার জাকির হোসেন চৌধুরী ও বিশ্বজিত রায়ের দলিল ও রেকর্ড বাতিলে স্বত্ব মামলা করেন। এ অবস্থায় তারা আওয়ামী লীগ নেতা লায়েকের কাছে চলতি বছরে জায়গা বিক্রি করে দেন। তারা উভয় পক্ষই প্রভাব খাটিয়ে এসব করেন।

শশী ভূষণ দে জানান, জায়গা নিয়ে ১৯৫৩ সাল থেকে মামলা, ভাটোয়ারা ও রেকর্ড সংশোধন নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। সবকিছু এক সময় ঠিকঠাক করা হয়। কিন্তু বিভিন্ন ব্যক্তি বিভিন্ন সময় নানাভাবে জায়গা দখল করতে জাল-জালিয়াতির আশ্রয় নেয়। সর্বশেষ আদালতে মামলা থাকাবস্থায় তারা ক্রয় বিক্রয় শুরু করে।

শশী ভূষণ দে নিজে নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছেন দাবি করে জানান, লায়েক ও তার লোকজন বর্তমানে মামলা তুলে নিতে হুমকি দিচ্ছে। তিনি এ জন্য প্রশাসনসহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল