আনন্দ-বিষাদের মধ্যদিয়ে কেটে গেল একটি বছর – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

আনন্দ-বিষাদের মধ্যদিয়ে কেটে গেল একটি বছর

প্রকাশিত: ৬:১৮ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৭

আনন্দ-বিষাদের মধ্যদিয়ে কেটে গেল একটি বছর

খলিলুর রহমান: আনন্দ-বিষাদের মধ্যদিয়ে কেটে গেল সিলেটবাসীর একটি বছর। আজ ৩১ডিসেম্বর আর মাত্র কয়েক ঘন্টার মধ্যেই ২০১৭ সালের শেষ সুর্যাস্ত এবং কাল ১লা জানুযারী হবে ২০১৮ সালের প্রথম সুর্যোদয়। তবে আনন্দের চেয়ে বিষাদের মাত্র ছিল অনেক অনেক বেশী।
খ্রিস্টীয় সন ২০১৭’র সালতামামী করতে যখনই হিসাবের খাতা খুলছি, তখনই দেখছি রক্ত খরচ লেখা। যদিও বছরের শুরুটা ৪ জানুয়ারী সিলেটের জননির্বাচিত মেয়র আরিফুল হকের মুক্তি নামের আনন্দের বার্তা দিয়ে হয়েছিল। তবে প্রায় পুরো বছরটাই ছিল সিলেটবাসীর জন্য অনেকটা বিষাদময়। গেল ২০১৭ সালের ২৩ জানুয়ারী সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ থেকে শুরু হয় নিরীহ আদম সন্তানদের ‘শবমিছিল’ বা মৃত্যুযাত্রা। আর সে মৃত্যুমিছিল বছরের শেষ লগ্ন পর্যন্ত অব্যাহত ছিল ওই এলাকায় । বছরের শুরুতেই এ শবমিছিল ছিল সর্বাধিক আলোচিত ও সমালোচিত। গেল বছরের ২৩ জানুয়ারি কোম্পানীগঞ্জের শাহ আরেফিন টিলায় পাথর খোকোদের মৃত্যুকূপে চাপা পড়ে একই সঙ্গে মৃত্যু ঘটে ৭ নিরীহ পাথর শ্রমিকের। পলিশ ও প্রশাসন ৩জনের লাশ উদ্ধার করতে পারলেও বাকিগুলো করে দেয়া হয় গুম। এর মাত্র সপ্তাহদিনের আরো ২পাথর শ্রমিক মারা যায় একই শাহ আরেফিন টিলায়। সব মিলিয়ে একটিমাত্র শাহ আরেফিন টিলায়ই মৃত্যু ঘটে ৯ আদম সন্তানের। এছাড়াও ভোলাগঞ্জের কালাইরাগ সহ বিভিন্নœ কোয়ারিতে বিভিন্ন্ সময় পাথর বা মাটি চাপায় পর পর মুত্যু ঘটে অন্ততঃ আরও ৬ পাথর শ্রমিকের। সর্বশেষ গত ১৬ডিসেম্বর উপজেলার কালাইরাগের আমির উদ্দিনের মৃত্যুকূপে পাথর চাপায় মৃত্যু ঘটে আরো ২পাথর শ্রমিকের। সব মিলিয়ে এ বছর কোম্পানীগঞ্জের পাথররাজ্যে বিষাদময় মুত্যুমিছিলে অংশ নিয়েছিল ১৫ পাথর শ্রমিক। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে, এ মৃত্যু মিছিলের জন্য দায়ী কাউকে এ পর্যন্ত জেল খাটতে হয়নি।
গেল বছরের বেদনাদায়ক ও বহুল আলোচিত ঘটনাবলীর মধ্যে আরেকটি হচ্ছে সিলেটের জেন্তাপুর থানাহাজতে সম্পূর্ন পুলিশ হেফাজতেই বীর মুক্তিযোদ্ধা সন্তান নজরুল ইসলাম অভির অপমৃত্য। নজরুল ইসলাম ছিলেন জৈন্তাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কার্যালয়ের সরকারি কর্মকর্তা। পরিবারের দাবি এক পরকীয়া নারী দিয়ে সাজানো মামলায় স্থানীয় ভ’মিদস্যুরা ১৯ মে গভীররাতে তাকে পুলিশ দিয়ে ধরিয়ে নেয় । জৈন্তাপুর থানা হাজতে বন্ধী রেখে পিটিয়ে র্মিমভাবে খুন করা হয় তাকে । ঘটনার পর বরখাস্ত করা হয় থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শফিউল কবির সহ ৫পুলিশকে । এ ঘটনায় পুলিশসহ ৯জনকে আসামী করে মামলা হয় আদালতে। মামলাটি এখনো সিলেট জেলা জজ আদালতে শুনানীর অপেক্ষায় রয়েছে। নিহত নজরুল ইসলাম জৈন্তাপুর উপজেলার কহাইগড় ১ম খন্ডের বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম আব্দুল জলিল বীর-এর একমাত্র পুত্র। কর্মক্ষম একমাত্র পুত্র সন্তানটি মারা যাওয়ায় মরহুম বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল জলিলের স্ত্রী ও ৩ কন্যাসন্তান মানবেতর দিন যাপন করছে। এছাড়াও গেল বছর শাহনেওয়াজ নামে আরেক মুক্তিযোদ্ধা সন্তান খুন হন। সব মিলিয়ে গেল বছর সিলেটে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান খুনের ঘটনা ঘটেছে ২টি এবং এ দুই ঘটনায় কাউকে আজোবধি গ্রেফতার করা হয়নি।
গেল ২০১৭ সালে সিলেটে সরকার ও সরকার বিরোধীদের মধ্যে রাজনৈতিক সহিংসতার কোন ঘটনা না ঘটলেও শাসকদল আওয়ামী লীগে হয়েছে ঘনঘন ‘শোকমিছিল’। অভ্যন্তরীন প্রাণ হারিয়েছে সরকারী দলের অঙ্গ ছাত্রলীগের ৫নেতা-কমী। আহত ও পঙ্গুত্ব বরন করেছেন ছাত্রলীগের ডজন অধিক নেতা-কর্মী। সিলেট নগরী ও বিয়ানীবাজারে ছাত্রলীগ কর্মী হতাহতের এসব ঘটনা ঘটে। গেল বছরের ১৭জুলাই প্রতিদ্বন্দ্বি গ্রুপের হাতে বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজের শ্রেণীকক্ষেই নিজ দলের কর্মীদের গুলিতে প্রাণ হারান সিলেট জেলা ছাত্রলীগের আপ্যায়ন বিষয়ক সম্পাদক পাভেল গ্রুপের কর্মী খালেদ আহমদ লিটু। এ ঘটনায় ছাত্রলীগ কর্মী ফাহাদ সহ ৭জনকে আসামি করে বিয়ানীবাজার থানায় মামলা হয়। গেল বছরের ২২ জুলাই সিলেট নগরীর মিরাবাজারে দুর্বৃত্তদের হামলায় ছাত্রলীগ কর্মী মাহবুবুর রহমান রিজভী খুন হন। রিজভীর খুনিদের গ্রেপ্তার দাবিতে দফায় দফায় মিছিল করে ছাত্রলীগ ও যুবলীগ। ছাত্রলীগ অবশ্য এ খুনের জন্য বর্তমান সরকারের সহযোগী জাতীয় পার্টির ছাত্রসমাজকে দায়ী করে। হত্যাকান্ডের এ ঘটনায় মামলা হলেও গ্রেফতারে কোন হাদীস মিলেনি আজো। গেল ১৩ সেপ্টেম্বর দুপুরে নগরীর শিবগঞ্জে প্রতিপক্ষ গ্রুপের ছুরিকাঘাতে নিহত হন যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী সমর্থিত ছাত্রলীগ সুরমা গ্রুপের কর্মী জাকারিয়া মোহাম্মদ মাসুম। এ ঘটনায় তার মা আতিয়া বেগম শাহপরান থানায় এমসি কলেজ ছাত্রলীগ নেতা টিটু চৌধুরীসহ ২২ জনকে আসামি করে মামলা করেন।
গেল বছরের ১৫অক্টোবর অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে সিলেট নগরীর টিলাগড়ে আবারও ছাত্রলীগের এক কর্মী খুন হয়। জেলা তিনি ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য মোঃ ওমর আহমদ মিয়াদ। মিয়াদ লিডিং ইউনিভার্সিটির আইন বিভাগের ছাত্র ছিলেন। জেলা ছাত্রলীগের প্রতিদ্বন্দ্বি টিটু চৌধুরী গ্রুপের হাতে প্রাণ হরান তিনি।
অভ্যন্তরীন কোন্দলের জের ধরে গেল বছরের ১৯ আগস্ট ছাত্রলীগের তুষারপ্রুপের হামলায় সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক নির্বাহী সদস্য আমিনুর রিয়াজ মওদুদ ও ছাত্রলীগ কর্মী সৈয়দ ওবায়দুল কাহের নাবিদ গুরুতর আহত হন। তাদেরকে সিলেট ও ঢাকায় চিকিৎসা করানো হলেও তারা অনেকটা পঙ্গুত্ব বরন করে আছেন।
২৮ জুলাই নেগরীর দক্ষিণ সুরমার কুশিঘাটে যুবলীগ নেতা জাকিরুল আলমের গুলিতে ৪ছাত্রলীগ কর্মী আহত হয়। তাদেরকে ঢাকায় নিয়ে চিকিৎসা করানো হয় । এ ঘটনায়ও জহাকিরসহ ৯জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়।
পর পর ছাত্রলীগের এ ৫নেতাকর্মী খুন সহ সংঘর্ষ ও হতাহতের ঘটনায় নেতিবাচক প্রভাব পড়ে শাসকদলের ছাত্র রাজনীতিতে। জেলা ছাত্রলীগের কমিটি পর পর দুই দফা ভেঙ্গে দেয়া হয়। মহানগর ছাত্রলীগও প্রায় কর্মীশূন্য হয়ে পড়ে। গেল ২০১৭ সালের বহুল আলোচিত ঘটনাবলীর মধ্যে ৮ মার্চ কলেজছাত্রী খাদিজা হত্যাপ্রচেষ্টার বহুল আলোচিত মামলায় শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক বদরুল আলমের যাবজ্জীবন কারাদন্ড।
দক্ষিণ সুরমার আতিয়ামহলে জঙ্গী আস্তানায় ২৫ মার্র্চ থেকে সেনা ও র‌্যাবের চারদিন ব্যাপি রূদ্ধশ্বাস ১১১ ঘন্টার অভিযানকালে র‌্যাব’র উর্ধতন এক কর্মকর্তা ও আইনশৃংখলা রক্ষাবাহিনীসহ ৭জন নিহত এবং মহিলাসহ চার জঙ্গীর লাশ উদ্ধারে র ঘটনা ছিল দেশ-বিদেশে বহুল আলোচিত।
আনন্দদায়ক ঘটনাবলীর মধ্যে অধিক আলোচিত দুবছরের অধিক সময় কারাবন্ধী থাকার পর ৪ জানুয়ারী সিলেটের জননির্বাচিত ও জননন্দিত মেয়র আরিফুল হকের মুক্তি। সিলেট নগরীর কাংখিত অবকাঠামোগত অসমাপ্ত উন্নয়নে মেয়র আরিফের বছরজুড়ে নিরলস কাজ, রাস্তাঘাটের সম্প্রসারণ, খালনালা ও সিটির দখলীয় ভ’মি উদ্ধার অভিযান, নগরীর যানজট নিরসনে অবৈধ হকার উচ্ছেদ, নাগরিরক সুবিধা বৃদ্ধিসহ নগরীর মিরের ময়দান, পাঠানটুলা, মীরবক্সটুলা, মানিকপীর রোড, পূর্ব জিন্দাবাজারসহ রাস্তাঘাটে দৃশ্যমান উন্নয়ন প্রভৃতি। সর্বশেষ আলোচিত ঘটনা ড়শ ১৯ ডিসেম্বর নারী কাউন্সিল শামীমা স্বাধীনের হাতে সিলেটে সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী প্রকৌশলী নূর আজিজুর রহমান লাঞ্চিত ও শামীমা স্বাধীনকে বরখাস্তের জন্য মন্ত্রনালয়ে মেয়র-কাউন্সিলরদের টিটি প্রেরণ। বিরীতে প্রধান প্রকৌশলী নূর আজিজের বিচার ও বরখাস্ত দাবিতে সিলেট ও ঢাকায় নারী কাউন্সিলর শামীমা স্বাধীনের পক্ষে মানববন্ধন সংবাদ সম্মেলন সহ বিভিন্ন কর্মসূচী পালন।