আপন কর্মে চিরস্মরণীয় ডঃআবু ইউসুফ স্যার – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

আপন কর্মে চিরস্মরণীয় ডঃআবু ইউসুফ স্যার

প্রকাশিত: ৬:৩৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৮, ২০২০

আপন কর্মে চিরস্মরণীয় ডঃআবু ইউসুফ স্যার

মাইনুদ্দিন হাসান চৌধুরী

আজ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য শ্রদ্ধেয় অধ্যাপক ড.আবু ইউসুফ স্যারের ১০ম মৃত্যু বার্ষিকী। ১৯৮৪ সালে আমি যখন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্র তখন থেকেই আমি ড.আবু ইউসুফ স্যারের সান্নিধ্যে আসি সাংগঠনিক কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে। সেই কঠিন সময়ে ছাত্রলীগ-আওয়ামীলীগের কর্মসূচীগুলোতে বুদ্ধিজীবী হিসেবে আলোচনায় তিনি নিয়মিত অংশ গ্রহণ করতেন। সেটা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, মহানগর কিংবা উত্তর-দক্ষিণ যেখানেই হোক না কেন। শুধু বুদ্ধিজীবী হিসেবেই নয় বরং ইউসুফ স্যার ছিলেন আমাদের mentor, অভিভাবক ও পথপ্রদর্শক। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সহ সমগ্র চট্টগ্রামে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, বাঙালি জাতীয়তাবাদী চেতনায় ছাত্রলীগের কার্যক্রম সুসংগঠিত করার পেছনে ছিল ড.আবু ইউসুফ স্যারের অগ্রণী ভূমিকা। ১৯৯০ সালে অনুষ্ঠিত চাকসু নির্বাচনে ভিপি পদে আমার মনোনয়ন প্রায় পুরোপুরি নিশ্চিত হওয়ার পরও যখন বঞ্চিত হলাম ইউসুফ স্যার খুবই ব্যথিত হলেন এবং নির্বাচনের পরে অধ্যাপক ড.সৌরেন বিশ্বাস স্যারের সাথে আমাকে ঢাকায় পাঠালেন ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার সাথে দেখা করার জন্য। মূলত ইউসুফ স্যারের মাধ্যমে চাকসু নির্বাচনের প্রেক্ষাপটে আমি বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার সান্নিধ্যে আসি। এর ধারাবাহিকতায় ১৯৯২ সালে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা আমাকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি নির্বাচিত করেন। এখানে উল্লেখ্য যে,১৯৯১ সালের প্রলয়ঙ্করী ঘূর্ণিঝড়ে যখন তৎকালীন বিএনপি সরকার কার্যকর ত্রাণ তৎপরতা চালাতে ব্যর্থ হয়, সেসময় চট্টল বীর মহিউদ্দিন চৌধুরীই এগিয়ে আসেন গলিত লাশের দাফন ও সৎকারে, ব্যাপক ত্রাণ তৎপরতা চালান। মহিউদ্দিন ভাইয়ের জনপ্রিয়তা দ্রুত বেড়ে যায়।তাঁর এই আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তার সামনে বিএনপি র মেয়র প্রার্থী মীর নাসির দাঁড়াতেই পারেন নি। চট্টল বীর এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর সাথে ছিল ড.আবু ইউসুফ স্যারের ঘনিষ্ঠতা। ১৯৯৪ সালে অনুষ্ঠিত চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ১ম মেয়র নির্বাচনে নাগরিক কমিটির ব্যানারে আওয়ামীলীগ প্রার্থী মহিউদ্দিন চৌধুরীর নির্বাচন পরিচালনার মূল দায়িত্বে ছিলেন ড.আবু ইউসুফ স্যার। তখন আমি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি। এই নির্বাচনে কাজ করার জন্য জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে তৎকালীন বিরোধী দলীয় উপনেতা জনাব আবদুস সামাদ আজাদ, জনাব আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ ও আমি ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম আসি। আমি মূলত ইউসুফ স্যারের পরামর্শ অনুযায়ী নির্বাচনী কার্যক্রম চালাই সমগ্র চট্টগ্রাম মহানগরে মেয়র প্রার্থী মহিউদ্দিন চৌধুরীর পক্ষে। চট্টগ্রামে ছাত্রলীগের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করে কাজ চালাই। নির্বাচনের দিন সন্ধ্যার সময় যখন আমরা খবর পেলাম তৎকালীন বিএনপি সরকার নির্বাচনের ফলাফলকে মিডিয়া ক্যু এর মাধ্যমে ছিনিয়ে নিতে পারে। তখন ড.ইউসুফ স্যারকে বিষয়টি জানালাম এবং বললাম নির্বাচনের ফলাফল রক্ষা করতে হলে নির্বাচন কমিশন ঘেরাও করতে হবে। যার জন্য একটি বড় ধরণের সিদ্ধান্তের প্রয়োজন। প্রার্থী মহিউদ্দিন ভাইয়ের সিদ্ধান্ত প্রয়োজন। ঠিক সেই মুহূর্তে মহিউদ্দিন ভাই দারুল ফযল মার্কেটস্থ নির্বাচনী কার্যালয়ে ছিলেন না। মহিউদ্দিন ভাইয়ের জন্য অপেক্ষা না করে ড.আবু ইউসুফ স্যার আমাকে তৎকালীন জামালখানস্থ নির্বাচন কমিশন অফিস ঘেরাও করার নির্দেশ দিলেন। ঠিক সে সময় হাজার হাজার মানুষ নির্বাচনের ফলাফলের জন্য দারুল ফযল মার্কেটের সামনে সমবেত ছিল। মূলত ড.আবু ইউসুফ স্যারের নির্দেশে আমি সমবেত মানুষের উদ্দেশে জামালখানস্থ নির্বাচন কমিশন অফিস ঘেরাও করার আহ্বান জানালাম। আমার এই আহ্বানের সাথে সাথেই হাজার হাজার মানুষ মিছিল সহকারে জামালখানে গিয়ে সারারাত নির্বাচন কমিশন অফিস ঘেরাও করে রাখে। এর ফলে তৎকালীন সরকারি দল মেয়র নির্বাচনের ফলাফল কারচুপি করার সাহস পায় নি। পরদিন সকালে চট্টগ্রামে ডেপুটি নির্বাচন কমিশনার এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীকে বিজয়ী ঘোষণা করে ফলাফল দিল। জনাব আবদুস সামাদ আজাদ, জনাব আতাউর রহমান খান কায়সার, জনাব আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ ও আমি চট্টগ্রামের প্রথম মেয়র নির্বাচনে বিজয়ের এই ফলাফল নিয়ে আমাদের দারুল ফযল মার্কেটস্থ নির্বাচনী কার্যালয়ে ফিরে আসি। তখন সেখানে ড.আবু ইউসুফ স্যার নির্বাচনের ফলাফলের জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিলেন। সেদিন ড.আবু ইউসুফ স্যার নির্বাচন কমিশন অফিস ঘেরাও এর নির্দেশ না দিলে ইতিহাস অন্যরকম হওয়ার আশংকা ছিল। আমাদের সংগঠনে ইউসুফ স্যারের এই অবদান চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। সবাইকে বিনীত ভাবে অনুরোধ করবো ড.আবু ইউসুফ স্যারকে আপনাদের প্রার্থনায় রাখুন, মহান আল্লাহ্ যেন তাঁকে জান্নাতুল ফেরদাউস এ স্থান দান করেন। লেখকঃ সাবেক সভাপতি বাংলাদেশ ছাত্রলীগ

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল