আবারো অবৈধ ক্ষমতা দখলের নির্বাচনে এগুচ্ছে আ’লীগ: আমির খসরু – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

আবারো অবৈধ ক্ষমতা দখলের নির্বাচনে এগুচ্ছে আ’লীগ: আমির খসরু

প্রকাশিত: ৮:৪১ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৮, ২০১৭

আবারো অবৈধ ক্ষমতা দখলের নির্বাচনে এগুচ্ছে আ’লীগ: আমির খসরু

নিজস্ব প্রতিবেদক: আবারো জনগণকে বাইরে রেখে ক্ষমতা দখল করতে আওয়ামী লীগ নির্বাচনী প্রজেক্ট নিয়ে এগুচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

শনিবার বিকালে রাজধানীর ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির মিলনায়তনে এক কনভেনশন ও সেমিনার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আইন ছাত্র সংঘ (বিএনবিএলএসএ) এর আয়োজন করে।

আমির খসরু বলেন, বাছাই কমিটির জন্য বিএনপি নাম দিয়ে এসেছিল, গঠিত কমিটিতে তার প্রতিফলন ঘটেনি। তবে অসুবিধা নাই, বিএনপি’র নামের প্রতিফলন না হউক, অন্তত নিরপেক্ষতার প্রতিফলন তো ঘটতে হবে। এখন আবার নাম চাইছেন, আমি জানি না, জাতীয়তাবাদী দল আবারো নাম দেবে কি না। কিন্তু তাদের বাছাই কমিটি গঠন করার পরে জাতি যেভাবে হতাশ হয়েছে, তারা যেভাবে বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়েছে, আমার মনে হচ্ছে আবারো জনগণকে বাইরে রেখে ক্ষমতা দখল করতে নির্বাচনী প্রজেক্ট নিয়ে এগুচ্ছে। এই প্রেক্ষাপটে রাজনৈতিক দলগুলোর কাছে আবারো নাম চাওয়া এবং সিভিল সমাজের সঙ্গে মতবিনিময় লোক দেখানো ছাড়া আর কিছু নয়। কারণ সিভিল সোসাইটির সঙ্গে আলোচনার কিছু নাই। আলোচনা করতে হবে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে। বিশেষ করে আওয়ামী লীগ এবং বিএনপি এই দুটো বড় রাজনৈতিক দলের মধ্যে ঐক্যবদ্ধের প্রয়োজন আছে। অন্যান্য দলের ঐক্যবদ্ধ থাকুক, অসুবিধা তো নাই।

তিনি বলেন, আজকে নিরপেক্ষ লোক খুঁজে পেতে কষ্ট হচ্ছে কেন? নিরপেক্ষ লোকের অভাব নাই, অভাব হচ্ছে সদ্বিছার। উদ্দেশ্য হচ্ছে আবারো বাংলাদেশের জনগণকে বাইরে রেখে ক্ষমতা দখলের যে পায়তারা চলছে, আমার মনে হয় তারা(আওয়ামী লীগ) সেদিকে এগুচ্ছে। তার ধারাবাহিকতায় যে এক্সাইস গুলো করছে যেমন বাছাই কমিটি, সুশীল সমাজের সঙ্গে আলোচনা করার কথা বলা হচ্ছে সেগুলো লোক দেখানো ছাড়া কিছুই নয়। আমরা অপেক্ষা করছি, বাংলাদেশের মানুষ অপেক্ষা করছে তারা তাদের আইনের শাসন, বাক স্বাধীনতা ও অধিকার ফিরে পাবে। এর বাইরে বাংলাদেশের মানুষের কাছে কোনো কিছুই গ্রহণযোগ্য হবে না।

সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, আজকে নির্বাচনকে ঘিরে সার্চ কমিটি নিয়ে যে খেলা চলছে তা দেখতে পারছেন। গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি বলেই আমরা ১৩ দফা প্রস্তাব দিয়েছি। অথচ আওয়ামী লীগ একটি নির্বাচনী প্রজেক্ট খুলেছে যেখানে তারা দেশের জনগণকে বাইরে রেখে ক্ষমতা দখল করে ফেলা।

আমির খসরু বলেন, আজকে বিএনপির নয়, বাংলাদেশের জনগণের প্রতিপক্ষ হচ্ছে রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস। এবং এই সন্ত্রাসকে তো মানুষ নাগরিকরা মোকাবেলা করতে পারে না। এমনকি রাজনৈতিক শক্তির পক্ষেও রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসকে মোকাবেলা করা যায় না।

তিনি বলেন, গণতন্ত্র ছাড়া উন্নয়ন সম্ভব নয়। আজ যারা উন্নয়নের কথা বলছে তারা দেশের জনগণের কাছে উন্নয়নের কথা বলে প্রতারনা করছে। গণতন্ত্রের মূল মন্ত্র সমালোচনা-আলোচনা-সংলাপ। আমরা বার বার তার উদ্যোগ নিয়েছে। কিন্তু আওয়ামী লীগ নির্বাচনী প্রজেক্টের দ্বারাই আবার ক্ষমতায় আসতে চায়। কিন্তু বাংলাদেশের মানুষ তা মেনে নিবে না। এবার বাংলাদেশের মানুষ তাদের মালিকানা ফিরিয়ে আনবে।

জিয়াউর রহমানের কথা স্মরণ করে তিনি বলেন, আজকে দেশের যা উন্নয়ন হয়েছে তার সবই জিয়াউর রহমানের অর্থনৈতিক বিপ্লবের জন্য। দেশের ব্যাক্তিগত অর্থনীতির মাধ্যমে। কিন্তু এখন দেশে কোনো ব্যক্তিগত অর্থনীতি নেই। যা আছে সবই আওয়ামী অর্থনীতি। যারা আওয়ামী লীগ করে তারাই ব্যবসা করবে। ব্যবসায় নামার আগে তার রক্ত পরিক্ষা করে নামানো হয়, যে সে আওয়ামী লীগ কি না

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি শেখ সোহলে মিয়ার সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক এম এ মান্নান, আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল প্রমুখ।

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল