আবারো নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রী – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

আবারো নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৪:৪৬ অপরাহ্ণ, মার্চ ২১, ২০১৭

আবারো নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রী

মাগুরা প্রতিনিধি: প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা দেশের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখে সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ ও দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ বিনির্মাণে আবারও নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। মাগুরায় জনসভায় প্রধানমন্ত্রী প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলেছেন, আগামী ২০১৯ সালের নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে জয়যুক্ত করবেন, আপনাদের কাছে এটাই আমার চাওয়া।

মঙ্গলবার (২১ মার্চ) বিকেলে জেলার মুক্তিযোদ্ধা আসাদুজ্জামান স্টেডিয়ামে আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন। মাগুরায় উপ-নির্বাচনে বিএনপি ভোট চুরি করে এবং চুরির দায়ে বিএনপি নেত্রী, তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া ক্ষমতাচ্যুত হন বলে মন্তব্য করেন শেখ হাসিনা।

বিএনপির সমালোচনা করে শেখ হাসিনা আরও বলেন, তারা ২০০১ সালে ক্ষমতায় আসে ভারতের কাছে গ্যাস বিক্রির মুচলেকা দিয়ে। আর সারাদেশে শুরু করে অত্যাচার নির্যাতন। কিছু দিন আগেও তারা জ্বালাও-পোড়াও করেছে, পুড়িয়ে মানুষ মেরেছে। তাদের কাজই হচ্ছে শুধু নির্যাতন আর আওয়ামী লীগের লক্ষ্য মানুষের সেবা করা, দেশের মানুষের উন্নয়ন করা।

মাগুরাবাসীর উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি মাগুরাতে খালি হাতে আসিনি। মাগুরাবাসীর ভাগ্যবদলে অনেকগুলো উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করেছি। মাগুরাতে যাতে রেললাইনের ব্যবস্থা হয় সে পদক্ষেপ আমরা নেব। কারণ আমরা মানুষের উন্নয়নের জন্য ক্ষমতায় এসেছি। তিনি বলেন, যখনি আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসে এদেশের মানুষের ভাগ্যের বদল হয়। সাধারণ মানুষের উন্নয়ন হয়। অর্থনৈতিকভাবে দেশের অগ্রগতি হয়।

বক্তব্যের শুরুতে বিদেশের মাটিতে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল ঐতিহাসিক টেস্ট ম্যাচ জেতায় মাগুরার ছেলে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানসহ মাগুরাবাসী অভিনন্দন জানান প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ’৭৫-এ পরিবারের সব হারিয়েছি। তাও এতো কষ্ট মাথায় নিয়ে একটাই কারণে কাজ করে যাচ্ছি, কারণ আমার বাবা বঙ্গবন্ধু এই দেশকে উন্নত করতে চেয়েছিলেন। তাই তো জনগণের জন্য কাজ করে যাচ্ছি। ইতোমধ্যে ৮০ শতাংশ মানুষ বিদ্যুৎ পাচ্ছেন জানিয়ে তিনি বলেন, ইনশাল্লাহ ২০২১ সালের মধ্যে একটা ঘরও ‍অন্ধকারে থাকবে না। সবাই বিদ্যুৎ পাবে।

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল