উচ্চ মাধ্যমিকে বসেছে সিলেটের ৬৫ হাজার শিক্ষার্থী – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

উচ্চ মাধ্যমিকে বসেছে সিলেটের ৬৫ হাজার শিক্ষার্থী

প্রকাশিত: ১:১৬ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২, ২০১৭

উচ্চ মাধ্যমিকে বসেছে সিলেটের ৬৫ হাজার শিক্ষার্থী

একযোগে দেশের দুই হাজার ৪৯৭টি কেন্দ্রে আজ শুরু হয়েছে উচ্চ মাধ্যমিক ও সমমানের পরীক্ষা, যাতে অংশ নিচ্ছে ১১ লাখ ৮৩ হাজার ৬৮৬ জন শিক্ষার্থী।

রোববার (২ এপ্রিল) সকাল ১০টায় এইচএসসিতে বাংলা (আবশ্যিক) প্রথম পত্র, সহজ বাংলা প্রথম পত্র, বাংলা ভাষা ও বাংলাদেশের সংস্কৃতি প্রথম পত্র এবং বাংলা (আবশ্যিক) প্রথম পত্রের (ডিআইবিএস) পরীক্ষা শুরু হয়েছে।

আজ শুরু হওয়া এইচএসসি’র তত্ত্বীয় পরীক্ষা শেষ হবে ১৫ মে। এরপর ১৬ মে থেকে শুরু হবে ব্যবহারিক পরীক্ষা, যা ২৫ মে পর্যন্ত চলবে।

এবার আট হাজার ৮৬৪টি প্রতিষ্ঠানের পরীক্ষা দুই হাজার ৪৯৭টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে। বিদেশের সাতটি কেন্দ্রে ২৭১ পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছেন।

এ বছর মোট ২৬টি বিষয়ের ৫০টি পত্রে সৃজনশীল পদ্ধতিতে পরীক্ষা হচ্ছে। এর আগে ২০১২ সালে শুধু বাংলা প্রথমপত্রের পরীক্ষা নেওয়া হয় সৃজনশীল প্রশ্নে। ২০১৫ সালে ১৩টি বিষয়ের ২৫টি পত্রে সৃজনশীল পদ্ধতিতে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। গত বছর ১৯টি বিষয়ের ৩৬টি পত্রের পরীক্ষা হয় সৃজনশীল পদ্ধতিতে।

এবারও দৃষ্টি প্রতিবন্ধী, সেরিব্রাল পালসি-জনিত প্রতিবন্ধী এবং যাদের হাত নেই এমন পরীক্ষার্থী শ্রুতিলেখক নিয়ে পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। এ ধরনের পরীক্ষার্থী ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য অতিরিক্ত ২০ মিনিট সময় বরাদ্দ থাকবে।

এছাড়া বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন (অটিস্টিক ও ডাউন সিনড্রোম বা সেরিব্রাল পালসি আক্রান্ত) পরীক্ষার্থীদের ৩০ মিনিট অতিরিক্ত সময় এবং কক্ষে অভিভাবক বা শিক্ষক বা সাহায্যকারী নিয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণের অনুমতি দেয়া হয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল