‘উন্নয়নের মিছিল জীবনে শুনেছেন কখনো?’-আমির খসরু – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

‘উন্নয়নের মিছিল জীবনে শুনেছেন কখনো?’-আমির খসরু

প্রকাশিত: ৩:৫৮ অপরাহ্ণ, মার্চ ২২, ২০১৮

‘উন্নয়নের মিছিল জীবনে শুনেছেন কখনো?’-আমির খসরু

বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত থেকে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে উত্তরণের যোগ্যতা অর্জন করায় আজ বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে সরকার যে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে, এর কঠোর সমালোচনা করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

আজ দুপুরে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী এই সমালোচনা করেন। জিয়া পরিষদের ৩১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এই আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। এতে ৫৭টি মন্ত্রণালয়, বিভাগ এবং অধীন দপ্তরগুলো অংশ নেবে। তারা ব্যানার, ফেস্টুনসহ শোভাযাত্রা করে স্টেডিয়ামে আসবে। নয়টি স্থান থেকে শোভাযাত্রা করে স্টেডিয়ামে আসার কারণে আজ বেলা ২টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম এবং চারপাশের বিভিন্ন সড়কে যান চলাচলে সমস্যা হবে।

আজকের আয়োজন প্রসঙ্গে আমীর খসরু বলেন, ‘আজকে নাকি একটা উন্নয়নের মিছিল আছে। উন্নয়নের মিছিল—এটা জীবনে শুনেছেন কখনো? বাংলাদেশে এখন উন্নয়নের মিছিল হয়। তাদের (সরকার) দুর্বলতা কোন পর্যায়ে গিয়ে পৌঁছেছে যে ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য উন্নয়নের মিছিল করতে হচ্ছে।’

সাবেক এই বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘উন্নয়ন কার হয়েছে? বাংলাদেশের মানুষ কি এত বোকা হয়ে গেছে? আপনি একটা মিছিল করে উন্নয়নের কথা বলবেন, আর মানুষ এটা গিলবে। সেটা বিশ্বাস করার কোনো কারণ আছে!’

সরকার ও সরকারি দলকে উদ্দেশ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, উন্নয়ন তো তাদের হয়েছে। তাদের দলের হয়েছে। বাংলাদেশের কোনো উন্নয়ন হয়নি। সারা দেশে রাস্তায় চলার কোনো সুযোগ আছে? বিদ্যুতের দাম সাত গুণ বেড়েছে। গ্যাসের মূল্য তিন-চার গুণ বেড়েছে। চালের দাম এখন ৭০ টাকা। সাধারণ মানুষের জীবনযাত্রার মান কমে গেছে। অথচ তারা উন্নয়নের কথা বলছে।

আমীর খসরু বলেন, মানুষের ক্রয়ক্ষমতা আগের চেয়ে কমে গেছে। দেশে কর্মসংস্থান নেই। বাংলাদেশ ব্যাংকের টাকা লুট করে নিয়ে গেছে। কোনো বিচার নেই। সেই টাকা পূরণ করা হচ্ছে মানুষের করের টাকা দিয়ে। শেয়ারবাজার লুট হচ্ছে। কোনো বিচার নেই। বিদেশে লক্ষ-কোটি টাকা পাচার করছে। কোনো বিচার নেই। প্রশ্নপত্র প্রতিনিয়ত ফাঁস হচ্ছে। শিক্ষার মেরুদণ্ড ভেঙে দিয়েছে। অর্থনৈতিক ব্যবস্থার মেরুদণ্ড ভেঙে দিয়েছে। কোনো বিচার নেই।

জাতীয় প্রেসক্লাবের এই আলোচনা সভায় মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. এস এম হাসান তালুকদার।

সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান কবীর মুরাদ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব আব্দুল্লাহিল মাসুদ।

বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান, জিয়া পরিষদের কেন্দ্রীয় নেতা অধ্যাপক ডা. আবদুল কুদ্দুস, অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম, অধ্যাপক ড. মো: এমতাজ হোসেন প্রমুখ।

সভায় উপস্থিত নেতা-কর্মীরা খালেদা জিয়াকে কারাদণ্ডের প্রতিবাদে বুকে কালোব্যাজ ধারণ করেন