এত বড় ভূমিকম্প হওয়ার পরেও কি দুঃসাহস দেখাবেন? – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

এত বড় ভূমিকম্প হওয়ার পরেও কি দুঃসাহস দেখাবেন?

প্রকাশিত: ৮:২২ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৫, ২০১৬

এত বড় ভূমিকম্প হওয়ার পরেও কি দুঃসাহস দেখাবেন?

139996_1বাংলাদেশের জাতীয় দলের ক্রিকেটার রুবেলের বিরুদ্ধে মামলা করার মধ্য দিয়ে আলোচনায় উঠে আসেন মডেল ও অভিনেত্রী নাজনিন আক্তার হ্যাপী। এই মামলাকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশের সর্বাধিক আলোচিত মডেলে রূপান্তরিত হন তিনি। সেই থেকে  এ নিয়ে চলে নানা বিতর্ক। বুদ্ধিমতি হ্যাপী রাতারাতি চলে আসেন লাইম লাইটে।

এরপর থেকে ফেসবুকে একের পর এক স্ট্যাটাস দিয়ে সরব থাকেন তিনি। এভাবে প্রতিদিনিই তিনি ছিলেন কোন না কোনভাবে সংবাদের শিরোনাম হতেন।

তবে সম্প্রতি নিজেকে পুরোপুরি বদলে নিয়েছেন হ্যাপী। চলচ্চিত্র কিংবা মিডিয়ায় থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন। নিজের এ সিদ্ধান্তে পুরোপুরি অটল তিনি। শুধু তাই নয়, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে নিজের ছবি পর্যন্ত পোস্ট করছেন না। ফেসবুকের প্রোফাইল ও কাভারে পবিত্র কোরআন শরিফের ছবি দিয়ে রেখেছেন। এমনকি ধর্মীয় দৃষ্টিতে সেলফি দেয়া কতটুকু গোনাহর কাজ সে বিষয়েও স্ট্যাটাস দিয়েছেন। পাশাপাশি নিয়মিত ইসলামিক স্ট্যাটাস দিচ্ছেন।

১৩ এপ্রিল বুধবার রাতে ৭.১ মাত্রার ভূমিকম্পের বিষয় নিয়ে তার ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। হ্যাপীর সেই স্ট্যাটসটি নিম্নে হুবহু তুলে ধার হলো।

‘এত বড় ভূমিকম্প হওয়ার পরেও কি কলিজায় নাড়া লাগে না? আল্লাহ চাইলে শুধু এক ইশারায় সব মাটিতে মিশিয়ে দিতে পারতেন। শুকরিয়া আদায় করেন, আল্লাহ আপনাকে, আমাকে আরেকবার সুযোগ দিলেন আল্লাহর পথে তওবা করে ফিরে আসার জন্য। এরপরও কি আল্লাহর কথার বাইরে চলার দুঃসাহস দেখাবেন? মনে রাখবেন আল্লাহ আযাব দিলে তা ঠেকানোর মত কিচ্ছু নেই।’

‘যে নামায পড়ে না সেও আজ সেজদায় লুটিয়ে পড়বে, আর বলতে থাকবে, ভাল হয়ে যেতে হবে কিন্তু কিছু সময় পার হওয়ার পর আবার যা তাই। দুনিয়ার মোহে পাগল ! এই দুনিয়ার মোহ-ই আমাদের আযাবের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। অথচ আমাদের হুঁশ নেই। আযাব মাথার উপর আসলেও হুঁশ নেই। আহারে!’