এবারের ঈদ এবং আমাদের করণীয়

প্রকাশিত: ১২:১৪ পূর্বাহ্ণ, মে ২৪, ২০২০

এবারের ঈদ এবং আমাদের করণীয়
মুহাম্মদ হাবিলুর রহমান জুয়েল
হাজার বছর ধরে আমরা ইসলামী রীতিমতো পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন করছি। এর মধ্যে আমাদের বাঙ্গালীদের ঈদের একটা সংস্কৃতি হিসেবে দাড়িয়েছে ঈদের দিন আত্মীয় বা প্রতিবেশীদের বাড়িতে দাওয়াত খাওয়া। তার মধ্যে রয়েছে ঈদের পরের দিন ঝড়-তুফান যাই আসুক না কেন মেয়ে এবং মেয়ের জামাই বেড়াতে আসতে হবে মেয়ের বাড়ি। এর সাথে কিছু কুসংস্কারতো রয়েছেই বটে৷ কিন্তু এগুলো সবাই জানেন। তা আর বলার প্রয়োজন মনে করিনা।
মূলত যে বিষয় নিয়ে কলম ধরেছি তার বিষয়বস্তু এবারের ঈদ এবং আমাদের করণীয়। এখানে এবারের ঈদ শব্দটা এ কারণেই ব্যবহার করলাম যে এবারের ঈদের বিবরণ যদি আমি আমার সাহিত্যের ভাষায় দেই তবে লিখব- ” বিশ্ব আজ নিরব, একাকী এক নিঃশব্দে রয়েছে। যেখানে আপনজন আমাদের নিকট হইতে অতি দূরে ঐ দূর দুরান্তে রহিয়াছে, এর কারণ হিসেবে বলিতে চাই যে বর্তমান সময়ে যে আতংক-ভয় আমাদের মধ্যে রহিয়াছে তাহারি নাম মহাকাল” আমি করোনার সংকটের মুহূর্তের সময়টাকে মহাকাল বলিলাম।
যাই হোক চলিত নিয়মে বলছি- এবারের ঈদে আমাদের করণীয় হল আমরা সতর্ক থেকে মসজিদে সামাজিক দুরত্ব মেনে নামাজ আদায় করা পাশাপাশি আমাদের চিরাচরিত প্রথা বা ইসলামের নিয়ম এইদিন আমরা কোলাকুলি করে থাকি। আমরা এবার অন্তত অন্তর থেকে কোলাকুলি করব।
দ্বিতীয় যে বিষয় বলতে চাই তা হল আমরা যেন এবার দুরের আত্মীয়ের বাড়িতে না যাই এমনকি নিজের বাসায় বা ঘরে একাধিক মানুষ নিয়ে যেন গল্পের সারি না বানাই৷ এতে আমাদেরই ক্ষতি। একবার অন্তত আনন্দ নাইবা করলাম। তবুও মনে মনে থাকুক এই আনন্দ।
তৃতীয় বিষয় হল- এবার সকলের প্রতি আমার একটাই নিবেদন জামাই আদর থেকে বিরত থাকলে ভাল হয়৷ কারণ আপনার মেয়ে এবং মেয়ের জামাই যে স্পেশাল গাড়িতে করে আসবেন সেই গাড়ির চালক হয়তো করোনা আক্রান্ত আপনি সেটা জানেন না। এর কারণে একটু ভেবে দেখুন কতজন মানুষ আক্রান্ত হতে পারে।
পরবর্তী বিষয় – এ বিষয় লেখার পূর্বে একটা কথা বলে রাখি। আজকাল আমাদের যুব সমাজ পত্রিকা পড়তে চায় না। কিন্তু আমি আমার জীবনের একটা কথা বলি : আমি এবং আমার ভাই। আমরা দুজনই জমজ৷ সেই ২০০৪ সাল থেকে যখন ক্লাস ফোরে পড়তাম তখন থেকেই পত্রিকা সামনে না থাকলে ভাল হজম হয়না। এখনো তাই চলছে। যাই হোক এই বিষয় আমার তরুণ প্রজন্মের জন্য। আপনারা এবার অন্তত ঈদের ঘুরাঘুরি, ভ্রমণ ইত্যাদি বাদ দিয়ে ঘরে থাকুন সুস্থ থাকুন নিরাপদে থাকুন।
আমরা করোনা ভাইরাসমুক্ত বাংলাদেশ চাইলে আমাদের অন্তত এই সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।
সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা ‘ঈদ মুবারক ‘
লেখক- কবি ও সাংবাদিক।