এরশাদের আগমনে ঐক্যবদ্ধ সিলেট জাপার তিন বলয়! – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

এরশাদের আগমনে ঐক্যবদ্ধ সিলেট জাপার তিন বলয়!

প্রকাশিত: ৩:০৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৬

এরশাদের আগমনে ঐক্যবদ্ধ সিলেট জাপার তিন বলয়!

dsc_7641৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৬, শুক্রবার: নেতাদের বিভাজনে এতোদিন কর্মীদের মধ্যে ছিল যোজন-যোজন দূরত্ব। তিন বলয়ে বিভক্ত হওয়ায় অনেকটা নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়ে সিলেট জাতীয় পার্টি। দলীয় কর্মকাণ্ড না থাকায় জনসম্পৃক্ততাও কমে আসে। সমর্থক হারাতে থাকায় সিলেটে জাপার অস্তিত্বে দেখা দেয় টানাপোড়েন। বিষয়টি নিয়ে রাজনৈতিক মহলেও ছিল আলোচনার ঝড়।

বিরোধী দলীয় হুইপ ও জাপা চেয়ারম্যানের আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা সেলিম উদ্দিন এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও বিভাগীয় সমন্বয়ক এটিইউ তাজ রহমান ও দলের যুগ্ম মহাসচিব ও সংসদ সদস্য ইয়াহিয়া চৌধুরী এহিয়া বলয়ে বিভক্ত ছিলো সিলেট জাপার নেতাকর্মীরা। তবে দলের চেয়ারম্যানের আগমনে এখন তারা একই বৃত্তে আবদ্ধ হয়েছেন।

অথচ এ তিন বলয়ের নেতাকর্মীর মধ্যে হয়েছে মারামারি, হানাহানি। এক পক্ষ অপর পক্ষকে ঘায়েল করতে চালিয়েছে হামলা। নগরীর সার্কিট হাউসে দু’পক্ষের হামলা, মেন্দিবাগ গার্ডেন ইন হোটেলের সামনে সংঘর্ষসহ এমন ঘটনা ঘটেছে একাধিকবার। অবশ্য এখন আর সেসব বিরোধ অতীত।

পার্টির চেয়ারম্যানের সমাবেশকে ঘিরে দূরত্ব ঘুচিয়ে নেতাকর্মীর মধ্যে উৎসাহ উদ্দীপনা বিরাজ করছে। চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ, কো-চেয়ারম্যান বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদসহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের সিলেট আগমন ও কর্মী সমাবেশ ঘিরে তিন বলয়ে বিভক্ত নেতাকর্মীরা এখন ঐক্যবদ্ধ। এতে করে সিলেটে নতুন উদ্যমে জেগে ওঠছে সংসদের বিরোধী দল জাতীয় পার্টি।

জাপা চেয়ারম্যানসহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের সিলেট সফরকে স্মরণীয় করে রাখতে তিন বলয়ের নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে কর্মী সম্মেলন জনসমাবেশে পরিণত করতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

শনিবার (০১ অক্টোবর) বিকেল ৩টায় সিলেট রেজিস্ট্রি মাঠে কর্মীসভা অন‍ুষ্ঠিত হবে। কর্মী সমাবেশস্থলের আশপাশসহ নগরী সয়লাব শুভেচ্ছা ব্যানার-ফেস্টুনে।

জাপা চেয়ারম্যান ও কো-চেয়ারম্যানের সিলেট আগমনকে স্বাগতম জানিয়ে নগরীতে প্রচার মিছিলও করেছেন নেতাকর্মীরা। নগরময় ৮/১০টি গাড়িযোগে মাইকে চালানো হচ্ছে প্রচারণা।
নগরী থেকে মহাসড়ক পর্যন্ত প্রায় দেড় শতাধিক তোরণ ও দেড় সহস্রাধিক ব্যানার ফেস্টুন লাগানো হয়েছে বলে জানান, জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য ও বিভাগীয় সমন্বয়ক এটিইউ তাজ রহমান।

তিনি বলেন, আগে বিভাজন থাকলেও সিলেট জাতীয় এখন ঐক্যবদ্ধ। পার্টির চেয়ারম্যানের আগমন ও কর্মী সমাবেশ সফল করতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন নেতাকর্মীরা।

জাপার যুগ্ম মহাসচিব ও সংসদ সদস্য ইয়াহিয়া চৌধুরী এহিয়া বাংলানিউজকে বলেন, ১ অক্টোবর জাপা চেয়ারম্যান এরশাদ, দলের কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদ ও মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদারসহ ২৫জন কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ কর্মী সমাবেশে অংশ নেবেন। যাদের মধ্যে ১৫ জনই প্রেসিডিয়াম সদস্য।

ওইদিনের কর্মী সমাবেশ জনসমাবেশে প্রতিণত হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, সিলেটের বিভিন্ন জেলা উপজেলা থেকে শত শত গাড়িতে করে নেতাকর্মীরা সমাবেশে যোগদান করবেন।

যুক্তরাজ্য জাতীয় পার্টির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় সদস্য আতাউর রহমান বাংলানিউজকে বলেন, জাপা চেয়ারম্যান সিলেট থেকেই সব সময় দলীয় কার্যক্রম শুরু করেন। আগামী সংসদ নির্বাচনে ৩শ’ আসনে প্রার্থী নির্ধারণে এবারও তিনি সিলেটে মাজার জিয়ারতের মাধ্যমে কার্যক্রমের সূচনা করবেন।

বিরোধী দলীয় হুইপ সেলিম উদ্দিন এমপি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ও বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ এমপি’র আগমন জাতীয় রাজনীতিতে একটি গুরুত্বপূর্ণ সফর। আগামী সংসদ নির্বাচনের জন্য আমাদেরকে এখন থেকে প্রস্তুতি নিয়ে জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় নিয়ে যেতে হবে। ফলে সিলেট রেজিস্ট্রি মাঠে কর্মী সমাবেশকে সফল করতে তিনি সকল নেতাকর্মীকে আহ্বান জানান।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল