কমলগঞ্জে পারিবারিক বিরোধ নিয়ে ব্যবসায়ী নেতাকে হত্যা – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

কমলগঞ্জে পারিবারিক বিরোধ নিয়ে ব্যবসায়ী নেতাকে হত্যা

প্রকাশিত: ৭:০৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৪, ২০২১

কমলগঞ্জে পারিবারিক বিরোধ নিয়ে ব্যবসায়ী নেতাকে হত্যা

 

নিজস্ব প্রতিবেদক ::
মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জে চৈত্রঘাট বাজারের ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি নাজমুল হাসানকে কুপিয়ে হত্যা মামলার অন্যতম আসামি বাবর মিয়াসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

বৃহস্পতিবার ভোরে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী ও সিলেট থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলেন- বাবর মিয়া (২৮), রাসেল মিয়া (৩২), মাসুদ মিয়া (৪২) ও মরদিছ মিয়া (৬৮)। পারিবারিক বিরোধ নিয়ে দ্বন্দ্বে তারা নাজমুলকে হত্যা করে।

দুপুরে কাওরানবাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন ঘটনার বিস্তারিত তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, পারিবারিক বিষয় নিয়ে নাজমুল হাসানের সঙ্গে একই এলাকার বাসিন্দা আব্দুল আহাদ নাইছ মিয়ার সন্তানদের দ্বন্দ্ব চলছিল। এক পর্যায়ে নাজমুল হাসানের সমর্থকদের হামলায় নাইছ মিয়ার ছেলে জুয়েলের পা ভেঙে যায়। এ হামলার প্রতিশোধ নিতে নাজমুলকে হত্যার পরিকল্পনা করা হয়।
গত ৩১ অক্টোবর আসামিরা মৌলভীবাজার সদর থেকে মাইক্রোবাসে চৈত্রঘাট বাজারে যান। নাজমুল চৈত্রঘাট বাজার থেকে বাসায় ফেরার পথে আসামিরা কুপিয়ে আহত করে রাস্তায় ফেলে যায়। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এ ঘটনায় নাজমুলের বড় ভাই শামসুল হক কমলগঞ্জ থানায় ১৪ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত পাঁচজনকে আসামি করে মামলা করেন।

নাজমুলকে হত্যার ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ব্যাপক সমালোচিত হয়। পরে র্যাব এ ঘটনার ছায়া তদন্ত শুরু করে। এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার ঘটনার সঙ্গে জড়িত চারজনকে গ্রেফতার করে র‌্যাব-৯ এর একটি দল।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল