করোনা সংকটে মানুষের সংস্পর্ষে মানবিক এমপি সামাদ

প্রকাশিত: ১২:১০ পূর্বাহ্ণ, জুন ৬, ২০২০

করোনা সংকটে মানুষের সংস্পর্ষে মানবিক এমপি সামাদ
ফেঞ্চুগঞ্জ প্রতিনিধি 
বিশ্বব্যপী মহামারী আকার ধারণ করা করোনা ভাইরাসের সংকটময় মুহূর্তে বাংলাদেশের উপর এর প্রভাব সৃষ্টির পর থেকেই নিজের নির্বাচনী এলাকা ছাড়েননি সিলেট ৩ আসনের সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী এমপি।
তিনি এ পর্যন্ত ব্যক্তিগত উদ্যোগে নির্বাচনী এলাকায় (দক্ষিণ সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জ) ২১ টি ইউনিয়ন ও ১৮৯ টি ওয়ার্ডে ৫০০০ পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেছেন এবং তা অব্যাহত রেখেছেন।
করোনা ভাইরাসের সংকট মোকাবেলায় তিনি এই তিনটি উপজেলার প্রশাসন, পুলিশ ও উপজেলা ডাক্তারদের সাথে মতবিনিময় এবং দিকনির্দেশনা প্রদান করেন।
ব্যক্তিগত ফেইসবুক একাউন্টের মাধ্যমে তার নির্বাচনী এলাকার প্রবাসী ভাইদের পরিবার যারা দেশে সমস্যার মধ্যে রয়েছে তাদের জন্য নিজের ফোন নাম্বার প্রকাশিত করেন এবং ফোন পাওয়ার সাথে সাথেই ইতিমধ্যে প্রায় ৫০০ পরিবারের জন্য খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছেন, পাশাপাশি এই কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন।
বিভিন্ন পেশার মানুষ যেমন – ড্রাইভার, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী, চা শ্রমিক, বেদে ও দলিল সম্প্রদায়ের কর্মহীন মানুষের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন।
তিনি বোরো ধান কাটতে কৃষকদের উৎসাহ দিতে দক্ষিণ সুরমা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মিন্টু চৌধুরী, ও মোগলাবাজার থানার ওসি আক্তার হোসেন-কে সাথে নিয়ে পারাইরচকে ধানকাটা উদ্বোধন করেন। এই ধান কাটার মৌসুমে শ্রমিক সংকট থাকায় দলিয় নেতাকর্মীদের কৃষকদের ধান কাটতে সহযোগিতার আহবান জানান এবং এর ফলস্বরূপ নির্বাচনী এলাকায় ছাত্রলীগ এবং যুবলীগ কৃষকদের ধান কাটতে সাহায্যে এগিয়ে আসে।
এমপি সামাদ চৌধুরী’র ভিন্ন আয়োজন ফেঞ্চুগঞ্জ সামাদ প্লাজায় কর্মহীন অসহায় মানুষদের মাঝে মাছ, তেল, ও তরিতরকারি উন্মুক্তভাবে প্রয়োজন মোতাবেক বিতরণ করেন।
তিনি তার নির্বাচনী এলাকায় সরকারি সুষ্ঠুভাবে ত্রান বিতরণের লক্ষে সুষ্ঠু বন্টনের সার্থে প্রতিটি ইউনিয়নে নিজে তদারকি করছেন এবং প্রশাসনের সাথে এ দূর্যোগ মোকাবেলার জন্য সার্বক্ষণিক যোগাযোগ অব্যাহত রেখেছেন।
নির্বাচনী এলাকায় যে সকল বৃত্তবানরা এ করোনা ভাইরাসের দুর্যোগের সময় এগিয়ে এসেছেন তাদের ধন্যবাদ জানান এবং তার অনুপ্রেরণায় যারা কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন তাদের কার্যক্রম অব্যাহত রাখার আহবান জানান।
তিনি এ বছরের ২২ শে মার্চ থেকে এ পর্যন্ত অব্যাহত কার্যক্রম করে যাচ্ছেন।
ইতিমধ্যে তার নিজেস্ব তহবিল থেকে ৩৫ লক্ষ টাকা এবং ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠান কুশিয়ারা পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড এর পক্ষ থেকে ১৫ লক্ষ টাকার খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন এবং এ কার্যক্রম অব্যাহত রাখার আশ্বাস দেন। ঈদের পর থেকেও সবসময় মানুষের পাশে আছেন তিনি।
উল্লেখিত তথ্যগুলি মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী এমপি, সিলেট -৩ এর করোনা ভাইরাস দুর্যোগময় সময়ে বিভিন্ন কর্মসূচির অংশবিশেষ।
তিনি এ পর্যন্ত যে সকল কার্যক্রমে অংশ নিয়েছেন তা সত্যিই বিরল এক দৃষ্টান্ত হিসেবে থাকবে। মানুষের হৃদয়ে তার স্থান হোক আরও সুন্দর।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল