কানাইঘাটে চা-শ্রমিক ও বন্যা দুর্গতদের মাঝে ইউএন’র ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত

প্রকাশিত: ১১:০৬ অপরাহ্ণ, জুন ২৬, ২০২২

কানাইঘাটে চা-শ্রমিক ও বন্যা দুর্গতদের মাঝে ইউএন’র ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত

কানাইঘাট প্রতিনিধি :: সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার বন্যা দুর্গত লক্ষীপ্রসাদ পশ্চিম ও লক্ষীপ্রসাদ পূর্ব ইউনিয়নে সরকারি ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমন্ত ব্যানার্জি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা বন্যা দুর্গত এলাকার কেউ না খেয়ে থাকবে না, ঘরে ঘরে ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দেয়া হবে। সেই আলোকে সিলেটের জেলা প্রশাসক মোঃ মজিবর রহমানের নির্দেশে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমন্ত ব্যানার্জি ধারাবাহিক ভাবে আজ রবিবার লক্ষীপ্রসাদ পশ্চিম ইউনিয়নের বন্যা দুর্গত এলাকার কুওরঘড়ি, রাজারমাটি এলাকায় প্রধানমন্ত্রী আশ্রয়ন প্রকল্পের ২৯টি পরিবার সহ গৌরিপুর, দক্ষিণ লক্ষীপ্রসাদ ও লক্ষীপ্রসাদ পূর্ব ইউনিয়নের লোভাছড়া চা-বাগানের চা-শ্রমিকদের মধ্যে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন। নৌকা নিয়ে এবং পায়ে হেটে কয়েকটি পয়েন্টে প্রায় ৫ শতাধিক পরিবারের মধ্যে সরকারি ত্রাণের চাল, বিভিন্ন প্রকার খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন তিনি।

এ সময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মস্তাক আহমদ পলাশ, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা জহিরুল ইসলাম, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী মোঃ পনিরুজ্জামান, লক্ষীপ্রসাদ পূর্ব ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তমিজ উদ্দিন, সাংবাদিক আলা উদ্দিন, সুজন চন্দ অনুপ, তরুণ সমাজকর্মী মোঃ ইউসুফ, মাষ্টার প্রতাপ দাস সহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের ইউপি সদস্যবৃন্দ।
ত্রাণ বিতরণ কালে নির্বাহী কর্মকর্তা সুমন্ত ব্যানার্জি বলেন, উপজেলার বন্যা দুর্গত প্রতিটি ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারে সরকারের ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দিতে জনপ্রতিনিধিদের পাশাপাশি সরকারি কর্মকর্তারা মাঠে সার্বক্ষণিক কাজ করে যাচ্ছেন। আমি নিজে প্রতিদিন বন্যা দুর্গত এলাকা পরিদর্শনের পাশাপাশি বানভাসি মানুষের খোঁজ খবর নেয়া সহ ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করে যাচ্ছি। সরকারের পাশাপাশি বন্যা দুর্গত এলাকায় বেসরকারি উদ্যোগে ব্যাপক হারে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত থাকায় তিনি সংশ্লিষ্টদের প্রতি উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা জানান।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল