কানাইঘাটে দেওছই জলমহালে অবৈধ বাধঁ নির্মাণে ক্ষতিগ্রস্থ ইজারাদার – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

কানাইঘাটে দেওছই জলমহালে অবৈধ বাধঁ নির্মাণে ক্ষতিগ্রস্থ ইজারাদার

প্রকাশিত: ৬:৩৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৭, ২০২১

কানাইঘাটে দেওছই জলমহালে অবৈধ বাধঁ নির্মাণে ক্ষতিগ্রস্থ ইজারাদার

কানাইঘাট প্রতিনিধি
সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার সীমান্তবর্তী লক্ষীপ্রসাদ পুর্ব ইউপি’র দেওছই জলমহালে অবৈধ বাঁধ নিমাণের ফলে বড় ধরনের ক্ষতির সম্মুখীন হতে যাচ্ছেন ইজারাদার। জানা যায় প্রায় দুই বছর পূর্বে সরকারী বিধি মোতাবেক ওপেন নিলামে সর্বোচ্চ দরদাতা হিসাবে ৬বছরের জন্য জলমহালটি লিজ নেন একই ইউপি’র নারানপুর গ্রামের মৃত খুরশেদ আলীর পুত্র ফয়ছল আহমদ। জলমহালটি লিজ নেওয়ার পর তিনি বহু বাধাঁ ডিঙ্গিয়ে অবৈধ দখলদারদের কাছ থেকে অনেক জায়গা উদ্ধার করেন। বর্তমানে একই ইউপির ছোটফৌদ গ্রামের মৃত কন্টাই মিয়ার পুত্র আব্দুর রহিম ও মৃত ফয়জুর রহমানের পুত্র আবুল হারিছ আবারো জলমাহালের বিভিন্ন খালে অবৈধ ভাবে বাধঁ নির্মাণ করছেন বলে তিনি জানিয়েছেন। গতকাল বুধবার সরেজমিনে দেখা যায় গোফদী জলমাহাল বায়া পাশের দেওছই জলমহালের খালের মধ্যখানে অবৈধ ভাবে একটি বাঁধ নিমার্ণ করে দেওয়া হয়েছে। এমনকি দেওছই জলমাহালের তীরে সম্পুর্ণ অবৈধ ভাবে আবুল হারিছ ও আব্দুর রহিম পৃথক পৃথক স্থানে স্কেভেটর দিয়ে মাটির বাঁধ নির্মাণ করেছেন। এমনকি তারা নিজের মালিকানা জমি দাবী করে জলমহালের মধ্যে মাছ চাষের জন্য স্কেভেটর দিয়ে বাধঁ নিমার্ণ করে যাচ্ছন। এমতাবস্থায় জলমহালের ইজারাদার ফয়ছল আহমদ জানিয়েছেন এভাবে চলতে থাকলে তিনি আর্থিক ভাবে মারাত্মক ক্ষতির সম্মুখীন হয়ে যাবেন। এতে সরকারের রাজস্বও তিনি পরিশোধ করতে পারবেন না। অবিলম্বে অবৈধ বাঁধ গুলো অপসারণ সহ দখলদারদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তিনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আকুল আবেদন জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে ইউনিয়ন ভুমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা শাহাব উদ্দিন জানিয়েছেন তিনি মৌখিক ভাবে অভিযোগটি শুনেছেন। সরেজমিন পরিদর্শন করে বিষয়টি তিনি গুরুত্ব সহকারে দেখবেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল