কানাইঘাটে লকডাউন মানতে অনীহা, সক্রিয় প্রশাসন, জরিমানা আদায় – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

কানাইঘাটে লকডাউন মানতে অনীহা, সক্রিয় প্রশাসন, জরিমানা আদায়

প্রকাশিত: ৯:২৭ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৬, ২০২১

কানাইঘাটে লকডাউন মানতে অনীহা, সক্রিয় প্রশাসন, জরিমানা আদায়

 

কানাইঘাট প্রতিনিধি :: করোনায় মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় সরকার সারা দেশে সোমাবার থেকে এক সপ্তাহের জন্য লকডাউন ঘোষণা করলেও কানাইঘাটে তা পুরোপুরি ভাবে কার্যকর হচ্ছে না। গণপরিবহন বন্ধ থাকলেও সব ধরনের যানবাহন যাত্রীদের নিয়ে স্বাভাবিক ভাবে চলছে।

উপজেলা সকল হাট-বাজার গুলোতে আগের মতো ভিড় দেখা গেছে। সরকারি নির্দেশ অমান্য করে সন্ধ্যা ৭ টার পর ও হাট-বাজারে সব ধরনের দোকান পাঠ খোলা দেখা গেছে এবং জনসাধারনের মধ্যে মাস্ক পরার প্রবণতা একবারে কম পরিলক্ষিত হচ্ছে।

তবে লকডাউন কার্যকর করতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমন্ত ব্যানার্জি ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবিদা সুলতানা মাঠ পর্যায়ে জন সাধারনকে করোনা থেকে সচেতন করতে এবং লকডাউনের বিধি নিষেধ মানার জন্য মাঠ পর্যায়ে তৎপর রয়েছেন। লকডাউন শুরুর দিন সোমবার উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় তৎপর ছিলেন নির্বাহী কর্মকর্তা সুমন্ত ব্যানার্জি।

সন্ধ্যা ৭টার পর থেকে তিনি কানাইঘাট বাজার ও উপজেলা রোড এলাকায় অভিযান চালিয়ে দোকান-পাঠ খোলা রাখার দায়ে ৮টি ব্যবসা প্রতিষ্টানের মালিককে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে তাৎক্ষনিক ১২ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন এবং কানাইঘাট বাজারের সকল দোকান-পাঠ বন্ধ করে দেন।

প্রশাসন সক্রিয় থাকলেও লকডাউন মানছেন না বেশির ভাগ মানুষ। সব কিছুই যেন কানাইঘাটে আগের মতো স্বাভাবিক ভাবে চলছে। বাস গাড়ী ছাড়া সব ধরনের যানবাহন স্বাভাবিক ভাবে চলতে দেখা গেছে।

অটোরিক্সা-সিএনজি, লেগুনা, পিকআপ গাড়ী ও ব্যাটারী চালিত টমটমে অর্ধেক যাত্রী বহন না করে পুরোপুরি ভাবে যাত্রী পরিবহন করতে দেখা গেছে। মাস্ক না পরার প্রবনতা খুব বেশি হাট-বাজারগুলোতে এবং যানবাহনে অধিকাংশ লোকজন মাস্ক ব্যবহার ছাড়া চলাফেরা করতে দেখা গেছে। সচেতন মহল জানিয়েছেন, লকডাউন কার্যকর করতে প্রশাসনকে আরো কঠোর হতে হবে এবং প্রতিটি এলাকায় জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক মহল ও সুধিজনদের নিয়ে সচেতনতা মূলক তৎপরতা চালাতে হবে।

নির্বাহী কর্মকর্তা সুমন্ত ব্যানার্জি জানান, লকডাউন মানতে জন সাধারনকে সচেতন করার জন্য প্রতিদিন উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিং সহ প্রচারনা চলছে। আমরা মাঠ পর্যায়ে কাজ করে যাচ্ছি ও জন সাধারনকে করোনার ভয়বহতা তুলে ধরে তাদের জীবন সুরক্ষিত করার জন্য বুজানোর চেষ্টা করছি। এখন থেকে লকডাউন কার্যকর করতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

এ দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিএইচও ডা. অভিজিত শর্মা জানিয়েছেন গত দু’সপ্তাহে কানাইঘাটে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৮ জন এর মধ্যে গত রবিবার ৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি হাসপাতাল থেকে করোনার ভেকসিন গ্রহন করার জন্য ৪০ বছরের উর্ধ্বে সবাইকে আহ্বান জানিয়েছেন এবং কারো জ্বর, সর্দি, কাশি, গলা ব্যাথা দেখা দিলে হাসপাতাল এসে করোনার নমুনা পরীক্ষা করার জন্য অনুরোধ জানান।