খালেদা জিয়ার সম্মান অনন্য উচ্চতায়: মান্না – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

খালেদা জিয়ার সম্মান অনন্য উচ্চতায়: মান্না

প্রকাশিত: ১২:০৮ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ৩, ২০১৮

খালেদা জিয়ার সম্মান অনন্য উচ্চতায়: মান্না

বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে সাজা দেয়ায় তার সম্মান এখন অনন্য উচ্চতায় বলে মন্তব্য করেছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না। তিনি বলেন, ষড়যন্ত্রমূলক জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে সাজা দিয়ে তাকে অনন্য উচ্চতায় নেয়া হয়েছে। এখন দেশের সবার মুখে মুখে তার নাম।

শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে স্বাধীনতার পতাকা উত্তোলন দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় মান্না এসব কথা বলেন।

নাগরিক ঐক্যের নেতা আরো বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে পাঠিয়ে তার কোনো ক্ষতি করতে পারেনি শেখ হাসিনা। বরং তাকে সবার কাছে আরো বেশি জনপ্রিয় করে তুলেছে। সরকার ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির পর বলেছে, বিএনপি ভোটের ট্রেন মিস করেছে, তাতে আমাদের কোনো দোষ নেই। কিন্তু এবার যখন বুঝতে পারল বিএনপি ভোটে যাবে, তখন বেগম খালেদা জিয়াকে হয়রানিমূলক সাজা দিয়ে জেলে ঢুকিয়ে দিল।

শেখ হাসিনার সমালোচনা করে মান্না বলেন, যখন সবার মনে প্রশ্ন বেগম খালেদা জিয়াকে ছাড়া বিএনপি নির্বাচনে না এলে তা কি গ্রহণযোগ্য হবে—তখন প্রধানমন্ত্রী বললেন, কে নির্বাচনে এলো আর কে এলো না, তাতে আমাদের কিছু যায়-আসে না। কেউ নির্বাচন আটকাতে পারবে না।

নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, যে আশায় ১৯৭১ সালে একটি পতাকা তুলে ধরেছিলাম, আজ সেটি চেপে ধরেছে শকুনেরা। স্বপ্নকে ধ্বংস করেছে আজ যারা, ক্ষমতা গ্রহণ করে আছে তারা। কিন্তু আমরা মুক্তিযুদ্ধ করেছিলাম গণতন্ত্র ও মানুষের কথা বলার অধিকারের জন্য।

তিনি বলেন, যে গণতন্ত্রের জন্য যুদ্ধ করেছি, সে গণতন্ত্রকে আজ একটি কৌটার মাঝে বন্দি আছে, যারা আজ ক্ষমতায় আছে তারা। বর্তমানে এক নেত্রী আরেক নেত্রীকে যেভাবে অনিরাপদ করে তুলেছেন, তাতে এখন গণতন্ত্র কোনোভাবেই নিরাপদ নয়।

মান্না আরো বলেন, দেশে এখন সবচেয়ে বেশি দরকার একটি গ্রহণযোগ্য ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন। এটি প্রতিষ্ঠা করতে না পারলে দেশের মানুষের নাগরিক, মৌলিক, গণতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠিত হবে না। সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করতে হবে আজ মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য।

আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য দেন আ স ম আবদুর রব, সংবিধানপ্রণেতা ড. কামাল হোসেন, গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।