চকরিয়ায় কাভার্ড ভ্যান-লেগুনা মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৬ – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

চকরিয়ায় কাভার্ড ভ্যান-লেগুনা মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৬

প্রকাশিত: ৯:০১ অপরাহ্ণ, জুলাই ২২, ২০২০

চকরিয়ায় কাভার্ড ভ্যান-লেগুনা মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৬

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি

কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চকরিয়ায় উপজেলার উত্তর হারবাং এলাকার বুড়ির দোকান এলাকায় ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় লেগুনা চালকসহ ৬ জন নিহত হয়েছে। এতে আরও ২ যাত্রী গুরুতর আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। আহত দুইজনকে প্রথমে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বুধবার (২২ জুলাই) সন্ধ্যা ৬টার দিকে মহাসড়কের চকরিয়ার দুই গাড়ির মুখোমুখি এই সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে।
চিরিঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, লেগুনা পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি গাড়ির সঙ্গে বিপরীত দিক থেকে আসা অপর একটি কাভার্ড ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে একসঙ্গে লেগুনা গাড়ির ছয়জন যাত্রী নিহত হয়েছে। এ সময় গাড়ি দুটি মহাসড়ক থেকে ছিটকে পাশের খাদে পড়ে যায়। এ সময় মুষলধারে বৃষ্টিপাত হচ্ছিল।  স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। পরে তাদের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক আহতদের চমেক হাসপাতালে রেফার করেন।

নিহতরা হলেন, চকরিয়ার হারবাং ইউনিয়নের নতুন বাজার এলাকার আবদুল কাদেরের ছেলে বদিউল আলম (৫০), কোনাখালী ইউনিয়নের ৩নম্বর ওয়ার্ডের আলী মিয়ার ছেলে সিরাজ আহমদ (৭৫), কোনাখালীর ৪ নম্বর ওয়ার্ডের হাসান আলী পাড়ার আমির হামজার ছেলে মো. বাবলু ( ৪০), পার্বত্য উপজেলা লামার আজিজনগরের সন্দ্বীপ পাড়ার আবদুল ওয়াজেদের ছেলে আল আমিন (৪৮) ও লোহাগাড়া উপজেলার বড়হাতিয়া ইউনিয়নের ফরিদুল আলমের ছেলে ম্যাজিক গাড়ির চালক  মো. মিনহাজ উদ্দিন (২৩)। তাৎক্ষনিক নিহত অপর ব্যক্তির পরিচয় পাওয়া যায়নি। আহত দুইজন হলেন, চকরিয়ার হারবাং ইউনিয়নের করমমুহুরী পাড়ার গুরামিয়ার ছেলে মো. রায়হান (১৮) ও বগুড়ার শিবগঞ্জের মো. ময়েজ উদ্দিনের ছেলে মো. আয়নুল (৩০)।

মহাসড়কের বানিয়ারছড়াস্থ চিরিঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (পুলিশ পরিদর্শক) মো. আনিসুর রহমান বলেন, ‘দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌছে আহতদের উদ্ধার করে চকরিয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। নিহত একজনের পরিচয় জানা যায়নি। দুর্ঘটনাকবলিত গাড়ি দুটি জব্দ করা হয়েছে।’ চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদুল হক বলেন, ‘হাসপাতালে এ পর্যন্ত ৬ জনকে মৃত ঘোষণা করা হয়েছে। গুরুতর আহত দুইজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।