চার খুনির রাষ্ট্রীয় খেতাব স্থগিত – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

চার খুনির রাষ্ট্রীয় খেতাব স্থগিত

প্রকাশিত: ৯:১৯ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৫, ২০২০

চার খুনির রাষ্ট্রীয় খেতাব স্থগিত

অনলাইন ডেস্ক

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যা মামলায় দণ্ডিত পলাতক চার খুনির রাষ্ট্রীয় খেতাব স্থগিতের নির্দেশ দিয়েছেন হাই কোর্ট। চার দণ্ডিত ব্যক্তি হলেন নূর চৌধুরী, শরীফুল হক ডালিম, রাশেদ চৌধুরী ও মোসলেহ উদ্দীন।

আদেশে বলা হয়েছে, এই চার খুনির নামের আগে মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বের জন্য পাওয়া রাষ্ট্রীয় খেতাব পাওয়া ‘বীর বিক্রম’, ‘বীর উত্তম’, ‘বীর প্রতীক’ খেতাব খেতাব স্থগিত করা হলো।

সেই সঙ্গে এই চার খুনির খেতাব বাতিলে সরকারের নিষ্ক্রিয়তা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন। মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব ও মন্ত্রিপরিষদ সচিবের প্রতি চার খুনির খেতাব স্থগিতের এ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার এক রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত হাই কোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন।

বঙ্গবন্ধুর চার খুনির রাষ্ট্রীয় খেতাব বাতিল চেয়ে ২ ডিসেম্বর হাই কোর্টে রিট করেন আইনজীবী সুবীর নন্দী দাশ। আদালতের রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী আব্দুল কাইয়ুম খান।

প্রাপ্ত তথ্য থেকে জানা যায়, মুক্তিযুদ্ধে অবদানের ১৯৭৩ সালে সাতজনকে বীরশ্রেষ্ঠ, ৬৮ জনকে বীর উত্তম, ১৭৫ জনকে বীর বিক্রম, ৪২৬ জনকে বীর প্রতীক উপাধি দেওয়া হয়। একই বছরের ১৫ ডিসেম্বর গেজেট প্রকাশ করা হয়। নূর চৌধুরীকে বীর বিক্রম, শরীফুল হক ডালিমকে বীর উত্তম, রাসেদ চৌধুরী ও মোসলেহ উদ্দীনকে বীর প্রতীক খেতাব দেওয়া হয়। এর বৈধতা নিয়েই রিটটি করা হয়।

পরে আইনজীবী আব্দুল কাইয়ুম খান বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর খুনি এই চার দণ্ডিতের রাষ্ট্রীয় খেতাব বাতিলে বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা কেন অবৈধ হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়েছে রুলে।