ছাতক-দোয়ারা জাতীয়তাবাদী ফোরামের শুভেচ্ছা – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

ছাতক-দোয়ারা জাতীয়তাবাদী ফোরামের শুভেচ্ছা

প্রকাশিত: ৭:৫২ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ২৮, ২০১৬

ছাতক-দোয়ারা জাতীয়তাবাদী ফোরামের শুভেচ্ছা

MPসুনামগঞ্জ-৫ ছাতক- দোয়ারা বাজারের সাবেক সংসদ সদস্য, সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক স¤পাদক নির্বাচিত হওয়ায় সিলেটস্থ ছাতক-দায়ারা জাতীয়তাবাদী ফোরামে প থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানানো হয়েছে।
কলিম উদ্দিন আহমদ মিলনের বাসভবনে সিলেটস্থ ছাতক-দোয়ারা জাতীয়তাবাদী ফোরামের প থেকে ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান, সিলেটস্থ ছাতক-দোয়ারা জাতীয়তাবাদী ফোরামের সভাপতি অধ্যাপক দেওয়ান মাহমুদ রাজা চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক ও ছাতক উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী এমরান আহমদ, সহ-সভাপতি মোঃ ফজর আলী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আহমদ কাসেম, আলী হায়দার, মনির উদ্দিন, প্রচার সম্পাদক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম রাসেল, ত্রাণ ও দূর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক মোঃ খোরশেদ আলম, আইন বিষয়ক সম্পাদক মোঃ আবুল কাহার, ক্রীড়া সম্পাদক হাসমত আলী মিলন, সদস্য ঃ মোঃ শাহ আলম, সালেহ আহমদ, হাসান সিকদার, জাবেদ হোসাইন, জমশেদ শিকদার, আব্দুল বারীক বাবলু, শামসুল হুদা হিমেল, মোঃ মিনহাজ আবদীন, মোঃ নুরুল হক, মাসুম আহমদ ও ৭নং মোগলগাঁও ইউনিয়ন ছাত্রদলের আহবায়ক কমিটির সদস্য জুনেদ আহমদ প্রমুখ।
সিলেটস্থ ছাতক-দোয়ারা জাতীয়তাবাদী ফোরামের নেতৃবৃন্দের ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হয়ে বিএনপির নবনির্বাচিত বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক স¤পাদক কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন এ সময় বলেন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক পদ আমার না, এই পদ সিলেট বিভাগ ও ছাতক-দোয়ারাবাসীর। আমামাকে এই সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক পদটি সবার সার্বিক সহযোগিতা ও অকান্ত প্রচেষ্টায় অর্জিত হয়েছে। আমি মনে করি এই সহ-সম্পাদক পদটি আমাদের সকলের। এই মনোবল নিয়ে আমরা স্বস্ব স্থান থেকে এই অবৈধ আওয়ামী বাকশালী সরকারের বিরোদ্ধে আন্দোন গড়ে তুলতে চাই।
তিনি আরও বলেন, টিপাইমুখ বাধ নির্মাণের বিরোধীতা করায় সিলেট বিভাগের মাটি মানুষের প্রিয় নেতা, কেন্দ্রীয় বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক স¯পাদক, সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য এম ইলিয়াস আলীকে গুম করাসহ বহুনেতা কর্মীকে হামলা-মামলার সম্মূখীন হতে হয়েছে। তিনি অবিলম্বে বিএনপির নেতাকর্মীদের উপর থেকে সকল ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও গ্রেফতারকৃত সকল নেতাকর্মীর নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান।
এপর এক বিবৃতিতে সুনামগঞ্জ জেলাকে দুর্গত এলাকা ঘোষনা করার দাবী জানালেন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সহ-সাংগঠনিক স¤পাদক ও সুনামগঞ্জ-৫ আসনের সাবেক এমপি কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন। তিনি এক বক্তব্যে বলেন, বেড়ী বাঁধ নির্মানে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির কারনে ভাঁটি বাংলার শস্য ভান্ডার নামে খ্যাত সুনামগঞ্জ জেলার কৃষকদের মধ্যে বইছে এখন শুধুই আহাজারী। ঘরে তোলার পূর্ব মুহুর্তে বাঁধ ভেঙ্গে হাওড়ের পর হাওড় পানিতে তলিয়ে গেছে। কয়েক হাজার হেক্টর বোরো ফসল পানিতে তলিয়ে গেছে কৃষকদের চোখের সামনে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের কতিপয় দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা ফসল রা বাঁধের নামে সরকারী ল-ল টাকা আÍসাত করে কৃষকদের পথে বসিয়েছে। এসব দুর্নীতিবাজদের আইনের আওতায় এনে শাসি- প্রদানের দাবী জানান তাঁরা। পাশাপাশি সুনামগঞ্জ জেলাকে দুর্গত এলাকা ঘোষনা করে তিগ্রস’ কৃষকদের তিপুরনসহ পুনর্বাসনেরও দাবী জানান তাঁরা। এদিকে গত বৃহ¯পতিবার ভয়াভহ ঘুর্নিঝড়ে ছাতকের দনি খুরমা ইউনিয়নের হাতধনালী ও পুরাকাটি এবং চরমহল্লা ইউনিয়নের টেটিয়ারচর, খরিদিচর, চরমাধব, চুনারুচর, কালিয়ারচর, চরচৌলাসহ কয়েকটি গ্রামের তিগস’ মানুষের মাঝে গৃহনির্মান সামগ্রী, চাল, ডাল, নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদিসহ পরিধানের কাপড় জরুরী ভিত্তিতে সরবরাহ করার দাবী জানান বিএনপির কেন্দ্রিয় এই নেতা।