ছাতক পৌর মেয়র আবুল কালাম চৌধুরী জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ত্রান বিতরণ করতেগিয়ে ডাকাত আতঙ্কে প্রাণেবেচে যান

প্রকাশিত: ৮:৪৯ অপরাহ্ণ, জুন ২৪, ২০২২

ছাতক পৌর মেয়র আবুল কালাম চৌধুরী জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ত্রান বিতরণ করতেগিয়ে ডাকাত আতঙ্কে প্রাণেবেচে যান

ছাতক প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের ছাতক পৌর সভার মেয়র আবুল কালাম চৌধুরী জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ত্রান সামগ্রী বিতরণ করতে গিয়ে ডাকাত আতঙ্কে প্রাণেবেচেযান। টানা ভারী বর্ষন আর ভারতের পাহাড়ি ঢলের পানিতে শতাব্দীর ভয়াবহ বন্যার পানি যখন হুহু করে বাড়তে থাকে তখন ১৮ জুন শনিবার রাতে পৌর মেয়র আবুল কালাম চৌধুরী তার পৌর সভার সকল কর্মকর্তা কর্মচারীদের নিয়ে বন্যার্তদের মধ্যে ত্রানসামগ্রী বিতরণ কালে নৌকা যুগে শহরের হাসপাতাল রোডে আসলে বিদ্যুৎ নাথাকায় পানি বন্দী লোকজন ডাকাত আতঙ্কে ডাকাত ডাকাত বলে হৈচৈ শুরু করে। অনেকে মেয়র আবুল কালাম চৌধুরীর দিকে দেশীয় অস্ত্র শস্ত্র নিয়ে তেড়ে আসে। তাৎক্ষণিক প্রান রক্ষা র্থে তিনি চিৎকার দিয়ে বলে উঠেন আমি মেয়র তোমাদের জন্য ত্রান নিয়ে এসেছি। তখন পরিস্থিতি শান্ত হলে লোকজন বুঝতে পারে মেয়র তাদের জন্য ত্রান নিয়ে এসেছেন। তাই অল্পতেই প্রাণেবেচে যান মেয়র আবুল কালাম চৌধুরী।এসময় ত্রানসামগ্রী বিতরণ কালে মেয়রের সাথে নৌকায় ছিলেন পৌর সচিব খান মোহাম্মদ ফারাবী তিনি এ সময়ের বিভীষিকাময় পরিস্থিতির ঘটনার বর্ননা করতে গিয়ে বলেন এ দিন আমি মনে করেছি আমার পূর্ণ জন্ম হয়েছে। এ সময় মেয়র মহোদয় নৌকায় না থাকলে আমি অপরিচিত মানুষ আমাকে কেউ রেহাই দিতনা ডাকাত বলে মৃত্যু নিশ্চিত করতো। আল্লাহ আমাকে প্রাণে বাচিয়েছেন।পৌর সভার কর্মকর্তা যুবরাজ চৌধুরী শরিফ জানান পৌর সভার পক্ষ থেকে বন্যার প্রথম দিন হতে প্রতিদিন প্রায় ৫ হাজার পানি বন্দী লোকজনের জন্য ৯ টি ওয়ার্ডের ৪টি স্থান হতে খাবার তৈরি করে কাউন্সিলর দের মাধ্যমে খাদ্য বিতরণ করা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল