জগন্নাথপুরে সিলেট বিভাগের দীর্ঘতম সেতুর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করলেন সেতুমন্ত্রী – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

জগন্নাথপুরে সিলেট বিভাগের দীর্ঘতম সেতুর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করলেন সেতুমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৪:২৬ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৪, ২০১৭

জগন্নাথপুরে সিলেট বিভাগের দীর্ঘতম সেতুর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করলেন সেতুমন্ত্রী

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি:: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে সিলেট বিভাগের দীর্ঘতম সেতুর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

শনিবার (১৪ জানুয়ারি) উপজেলার রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের রাণীগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে কুশিয়ারা নদীর উপর নির্মিতব্য সেতুটির ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন তিনি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওবায়দুল কাদের বলেন, সরকার জনগনের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। বিএনপি এসব উন্নয়নকে বাধাগ্রস্থ করার জন্য অপপ্রচার চালাচ্ছে। তারা সরকারের উন্নয়নকে মানতে নারাজ। তারা সরকারের নামে অপপ্রচার করে বিভিন্নভাবে সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্ত করে নালিশের দলে পরিনত হয়েছে। তাদের বিশ্লেষক অনেকেই বিএনপিকে ‘হাটু ভাঁঙ্গা’ দল বলেও মন্তব্য করে যাচ্ছেন।

মন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনার সরকারকে ভাঙ্গা রেকর্ড দিয়ে ক্ষমতা থেকে নামানো যাবে না। শেখ হাসিনার সরকারকে নামাতে হলে সংবিধানিক ভাবে নামাতে হবে।

তিনি দলীয় নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ক্ষমতার দাপটে মানুষের হৃদয়ে নাম লেখানো যাবে না। ভালবাসার মাধ্যমে মানুষের হৃদয়ে নাম লেখাতে হবে। এখন বাংলাদেশ নেতা উৎপাদনে এগিয়ে যাচ্ছে। এসব নেতার দরকার নাই, কর্মীর প্রয়োজন আওয়ামী লীগের। কর্মী হল আওয়ামী লীগের প্রাণ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ও স্থানীয় সাংসদ এমএ মান্নান বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার দেশের উন্নয়নের স্বার্থে কাজ করে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে সরকার দেশের বিভিন্ন খাতে উন্নয়নের জোয়ার এনেছে। উন্নয়নের সুফল ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। বিদুৎ, ব্রীজ, সেতু, যোগাযোগ খাতের উন্নয়ন করে যাচ্ছে। বিগত ৫০ বছরেও এসব উন্নয়ন দেশে হয়নি।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে দেশের উন্নয়ন হয়। ভাটি অঞ্চল তথা সুনামগঞ্জবাসীর যোগাযোগ ব্যবস্থার সার্বিক উদ্যোগ পর্যায়ক্রমে বাস্তবায়ন করা হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও ভাটি অঞ্চলের উন্নয়নে দৃঢ় ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডভোকেট মিসবা উদ্দিন সিরাজের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সুনামগঞ্জ ও হবিগঞ্জ আসনের সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি এ্যাডভোকেট শামসুন নাহার রব্বানী শাহানা, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মতিউর রহমান, সাবেক সহ-সভাপতি সিদ্দিক আহমদ, সাধারণ সম্পাদক ব্যারিষ্টার এম. এনামুল কবির ইমন, নব-নির্বাচিত সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আ’লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নুরুল হুদা মুকুট, জেলা প্রশাসক শেখ রফিকুল ইসলাম, পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ, সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আয়ুব বকত জগলু, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হরমুজ আলী, দক্ষিন সুনামগঞ্জের উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম, জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ’লীগের সভাপতি আকমল হোসেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ, জগন্নাথপুরের পৌর মেয়র আব্দুল মনাফ, সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু, যুক্তরাজ্য মিডল্যান্ড আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আকমল খাঁন, জগন্নাথপুর উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ভাইস চেয়াম্যান মুক্তাদির আহমদ মুক্তা, জেলা পরিষদের নব নির্বাচিত সদস্য মাহতাব উল আলম সমুজ, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি কামাল উদ্দিন,সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন লালন, জগন্নাথপুর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হাসিম, আরশ মিয়া,সিরাজুল হক, শহিদুল ইসলাম রানা, আবু ঈমানী, হাজী মখলুছ মিয়া প্রমুখ।

এর আগে শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় ওবায়দুল কাদের ও এমএ মান্নান হেলিকপ্টার যোগে রাণীগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে আসেন। অনুষ্ঠানের মঞ্চে আসার পর দলীয় নেতাকর্মীসহ সরকারের বিভিন্ন দপ্তরের প্রধানরা ফুলের তোড়া দিয়ে তাদের বরণ করে নেন। পরে সুনামগঞ্জ পুলিশের পক্ষ থেকে প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিকে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়। অনুষ্টান শেষে দুপুরে ওবায়দুল কাদের রাণীগঞ্জ থেকে হেলিকাপ্টার যোগে ঢাকার উদেশে যাত্রা করেন।

উল্লেখ্য, জগন্নাথপুরের রাণীগঞ্জে কুশিয়ারা নদীর উপর নির্মিতব্য সেতুটি হতে যাচ্ছে সিলেট বিভাগের সবচেয়ে দীর্ঘ সেতু। সেতুটি নির্মাণে ব্যয় হবে ১২৬ কোটি টাকা। এর দৈর্ঘ্য ৭০২.৩২ মিটার এবং প্রস্থ ১০.২৫ মিটার। এ সেতু নির্মাণ হলে রাজধানী ঢাকার সাথে ভাটি অঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্থায় সময় ও দূরত্ব কমে আসবে। এর ফলে সুনামগঞ্জ থেকে ঢাকার দূরত্ব প্রায় ৫০ কিলোমিটার কমবে।