জামালগঞ্জে কন্দাল ফসল উন্নয়নে কৃষক প্রশিক্ষণ – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

জামালগঞ্জে কন্দাল ফসল উন্নয়নে কৃষক প্রশিক্ষণ

প্রকাশিত: ৫:৪৫ অপরাহ্ণ, জুন ১০, ২০২০

জামালগঞ্জে কন্দাল ফসল উন্নয়নে কৃষক প্রশিক্ষণ

জামালগঞ্জ প্রতিনিধি
সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ উপজেলায় কন্দাল ফসল উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় কৃষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত মঙ্গল ও বুধবার দু’দিনব্যাপী উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ হলরুমে কন্দাল ফসল উৎপাদন ও ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে প্রশিক্ষণে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. আজিজল হক। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ জেলার কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক (শস্য) মো. মোশাররফ হোসেন। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মো. হাবিবুর রহমান, উপজেলা উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা দীপক রঞ্জন সরকার, উপজেলা কৃষি অফিসের প্রধান সহকারী মো. শফিকুল ইসলামসহ উপজেলার ৬০ জন আলু, কচু, লতা, মুকিকচু চাষীগণ।
প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, কন্দাল ফসল উন্নয়ন প্রকল্প বাংলাদেশের ১৫০টি উপজেলায় চালু হয়েছে। এই এলাকায় বোরো ধানই একমাত্র ফসল। তাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কৃষি মন্ত্রণালয়ের অধীনে উঁচু এবং পতিত জমিতে বাড়ির আশেপাশে অন্যান্য সবজি ফসল করে অধিক লাভবান হওয়ার লক্ষে এই প্রকল্প চালু করেছেন। প্রতি বিঘা জমিতে খাদ্য হিসেবে ধান চাষ হয় ২০ মণ ও চাল হয় ১৩ মণ। কিন্তু এক বিঘা জমিতে আলু চাষ করলে সেখানে ৭০ থেকে ৮০ মণ আলু পাওয়া যায়। যা ধানের চেয়ে অনেক বেশি লাভবান হবেন কৃষক। এই উপজেলায় প্রদর্শনী প্লট স্থাপন করা হবে। বর্তমানে ৭টি জায়গায় কচু লতার চাষ করা হয়েছে। কচুর লতা দেশের চাহিদা মিটিয়ে এখন বিদেশেও রপ্তানি হচ্ছে। এই কচুর লতাতে প্রচুর পরিমাণে আয়রণ ও ভিটামিন খনিজ পদার্থ আছে। তাই ধানের বিকল্প হিসেবে সরকার আলু, কচু, লতা, মুকিকচুর উপর গুরুত্ব দিয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল