জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার শুনানি ২৭ এপ্রিল ও জিয়া চ্যারিটেবল কার্যক্রম ১৮ মে পর্যন্ত মুলতবি – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার শুনানি ২৭ এপ্রিল ও জিয়া চ্যারিটেবল কার্যক্রম ১৮ মে পর্যন্ত মুলতবি

প্রকাশিত: ৩:৩০ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৩, ২০১৭

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার শুনানি ২৭ এপ্রিল ও জিয়া চ্যারিটেবল কার্যক্রম ১৮ মে পর্যন্ত মুলতবি

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার আত্মপক্ষ শুনানির জন্য আগামী ১৮ মে ধার্য করেছেন আদালত। আজ বৃহস্পতিবার ঢাকার তিন নম্বর বিশেষ জজ আবু আহমেদ জমাদারের আদালত খালেদা জিয়ার সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে আত্মপক্ষ শুনানির জন্য এ দিন ধার্য করেন।

অপর দিকে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়ার পক্ষে আত্মপক্ষ শুনানি ২৭ এপ্রিল পরবর্তী দিন ধার্য করা হয়েছে। পুরান ঢাকার বকশীবাজারে সিনিয়র স্পেশাল জজ কামরুল হোসেন মোল্লার আদালতে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট এ দিন ধার্য করেন। জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়ার আত্মপক্ষ শুনানিতে অসমাপ্ত বক্তব্যের জন্য দিন ধার্য ছিল।

এর আগে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় হাজিরা দিতে আদালতে পৌঁছান বিএনপি চেয়ারপারসন।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার পর এবার চ্যারিট্যাবল ট্রাস্ট মামলায়ও বিচারক আবু আহমেদ জমাদারেরর প্রতি অনাস্থা জানিয়েছেন খালেদা জিয়া। তবে তা নাকজ করে দিয়েছেন বিচারক। এ মামলার পরবর্তী শুনানির জন্য ১৮ মে দিন দিয়েছেন আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার পর এ বিষয়ে আবু আহমেদ জমাদারের আদালতে শুনানি শুরু হয়। আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, খন্দকার মাহবুব হোসেন, আবদুর রেজাক খান, আমিনুল হক, সানাউল্লাহ মিয়া, মাসুদ আহমেদ তালুকদার প্রমুখ।

শুনানির শুরুতে ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার আদালতকে বলেন, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলা এরই মধ্যে বিচারক পরিবর্তন করতে হাইকোর্ট আদেশ দিয়েছেন। দুটি মামলা একই ধরনের। তাই এ মামলাও পরিবর্তন প্রয়োজন। খালেদা জিয়া আপনার প্রতি অনাস্থা জানিয়েছেন। তাই চ্যারিট্যাবল ট্রাস্ট মামলা পরিবর্তনের আদেশ দেন।

শুনানি শেষে বিচারক বলেন, আমি মামলা পরিবর্তনের আদেশ দিতে পারব না। আপনারা উচ্চ আদালত থেকে আদেশ নিয়ে আসেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল