জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সাহসীকতার সাথে দায়িত্ব পালন করা পুলিশের জন্য পিপিই উপহার – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সাহসীকতার সাথে দায়িত্ব পালন করা পুলিশের জন্য পিপিই উপহার

প্রকাশিত: ৩:০৩ পূর্বাহ্ণ, মে ১১, ২০২০

জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সাহসীকতার সাথে দায়িত্ব পালন করা পুলিশের জন্য পিপিই উপহার

করোনা সংক্রমনের মধ্যে সরকারের নির্দেশ অনুযায়ী জীবন বাজি রেখে মানুষকে নিরাপদে রাখতে নিষ্ঠার সাথে ঝুঁকি নিয়ে দায়িত্ব পালন করছেন বাংলাদেশ পুলিশ ও প্রশাসনিক ব্যক্তিবর্গ। সিলেট কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জনাব সেলিম মিয়া এর নিকট কিছু পিপিই উপহার দিয়েছে আন্তর্জাতিক চ্যারিটি সংস্থা জাস্ট হেল্প ফাউন্ডেশন এর পক্ষ থেকে সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।এ সময় উপস্থিত ছিলেন উক্ত থানার ওসি তদন্ত জনাব সৌমেন সহ আরো অনেকে।

এ ব্যাপারে জনাব সেলিম মিয়া জানান, আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগে পুলিশ বাহিনীর উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের নির্দেশ অনুযায়ী সাধারণ মানুষের জীবনের নিরাপত্তা রক্ষায় কাজ করে যাচ্ছি। এই অবস্থায় আন্তর্জাতিক চ্যারিটি সংস্থা জাস্ট হেল্প ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আমাদের পিপিই উপহার দেয়ায় সংগঠনকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি তিনি আরও বলেন আমাদের এই প্রচেষ্টা তখনই স্বার্থক হবে যখন সাধারণ মানুষ করোনাভাইরাস সংক্রান্ত সরকার ঘোষিত সকল বিধি নিষেধ মেনে নিজ দায়িত্বে সচেতনতা অবলম্বন করবেন।
তাই করোনাভাইরাস রোধে দেশের সকল শ্রেণী পেশার মানুষের প্রতি সরকার নির্দেশিত সকল বিধিনিষেধ মানার অনুরোধ জানাচ্ছি।

আন্তর্জাতিক চ্যারিটি সংস্থা জাস্ট হেল্প ফাউন্ডেশন (UK) এর বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ সাইদুল ইসলাম দুলাল জানান,
নিঃস্বার্থ ভাবে মানব কল্যাণে কাজ করাই আমাদের একমাত্র লক্ষ্য। করোনার ভয়াল আক্রমণে জীবন বাচাতে হিমশিম খাচ্ছে বিশ্ববাসী। এই সময় বাংলাদেশে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ভূমিকা নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবীদার। এমন কঠিন পরিস্থিতি মোকাবেলায় জীবন রক্ষার যুদ্ধে অদৃশ্য ভাইরাসের বিরুদ্ধে অগ্রসৈনিক হয়ে প্রতিনিয়ত ডাক্তার, নার্স সহ বাংলাদেশের পুলিশ প্রশাসন অপরিসীম ভূমিকা পালন করছে। তাই তাদের সুরক্ষা নিশ্চিত করা একান্ত প্রয়োজন। এবং এই ভয়ানক করোনার আক্রমণে নিরাপত্তা রক্ষায় যতটুকু পারছেন সাবধানতা অবলম্বন করে তারা কর্মক্ষেত্রে নিয়োজিত রয়েছেন। সেই দিক বিবেচনা করেই মানবতার তাগিদে দেশ ও মানুষের জন্য পুলিশের এই নিরলস পরিশ্রমে আমরা পাশে থাকার চেষ্টা করছি। এই ক্রান্তিলগ্নে এমন উদার ভূমিকা পালনের জন্য পুলিশ প্রশাসনের প্রতি আমাদের সংস্থার পক্ষ থেকে বিশেষ ভাবে ধন্যবাদ জানাই।

তিনি আরো জানান, যেকোনো দুর্যোগ মোকাবেলায় আন্তর্জাতিক চ্যারিটি সংস্থা জাস্ট হেল্প ফাউন্ডেশনের ফাউন্ডার চেয়ারম্যান (UK) মিজানুর রহমান মিজানের সার্বিক সহযোগিতায় বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রম পরিচালনা হয়ে থাকে। করোনা মোকাবেলায় অসহায় মানুষের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরণ সহ এ পর্যন্ত বেশ কয়েকটি কার্যক্রম আমরা পরিচালনা করেছি। অতিতের ন্যায় আগামীতেও জাস্ট হেল্প ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে এর ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে। এবং সাধারণ মানুষের সেবায় আমরা সর্বদা নিঃস্বার্থভাবে কাজ করে যাব।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •