জুনে আসছে না অস্ট্রেলিয়া, সফর স্থগিত – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

জুনে আসছে না অস্ট্রেলিয়া, সফর স্থগিত

প্রকাশিত: ২:২৩ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১০, ২০২০

জুনে আসছে না অস্ট্রেলিয়া, সফর স্থগিত

অনলাইন ডেস্ক

দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে জুনে বাংলাদেশ সফরে আসার কথা ছিল অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের। কিন্তু করোনার কারণে স্থগিত করা হলো অস্ট্রেলিয়ার বাংলাদেশ সফর।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) জানিয়েছে, বিসিবি এবং ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) সম্মিলিত সিদ্ধান্তে সিরিজটি স্থগিত করা হয়েছে। আইসিসি ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অন্তর্ভূক্ত এ দুটি টেস্ট ভবিষ্যতে সুবিধাজনক সময়ে আয়োজনের জন্য বিসিবি এবং সিএ একসাথে কাজ করবে।

বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দীন চৌধুরী বলেন, ‘এটা নিঃসন্দেহে দুই দলের ক্রিকেটার এবং দর্শকদের জন্য হতাশার। তবে, বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ এর ফলে সৃষ্ট বিপর্যয় এবং স্বাস্থ্য ঝুঁকির কথা মাথায় রেখে, বিসিবি ও ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া একটি সময়োপযোগী, বাস্তব সিদ্ধান্তে একমত হয়েছে। আমরা আশা করি শিগগিরই এই অবস্থার উন্নতি ঘটবে। আর আমরা নিকট ভবিষ্যতে একটি সুবিধাজনক সময়ে সিরিজটি আয়োজন করতে পারবো। এ লক্ষ্যে বিসিবি ও ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া এখন থেকে এক হয়ে কাজ করবে, যেমনটি অতীতে একে অপরের পাশে থেকে করেছে।’

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাহী কেভিন রবার্টস বলেন, ‘বাংলাদেশে আসন্ন সফর পেছানো দুঃখজনক। তবে আমি বিসিবিকে ধন্যবাদ জানাবো, কারণ তারা এগিয়ে এসে দায়িত্ব নিয়ে এমন একটা বিষয়ে খোলাখুলি আলোচনা করেছে বলে। যার ফলে আমরা এমন সিদ্ধান্তে এক হতে পেরেছি। আমরা আমাদের ক্রিকেটার এবং জনগোষ্ঠীর কথা বিবেচনায় এনেছি। যা আমাদের দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ পিছিয়ে দিতে বাধ্য করেছে। আমরা জানি, বিশ্ব ক্রিকেট সূচি খুব ব্যস্ত। কিন্তু আমরা আমাদের সর্বোচ্চটা চেষ্টা করবো নিজেদের কথা রক্ষার জন্য। আর বিসিবির সঙ্গে এক হয়ে কাজ করবো, ভবিষ্যতের তারিখ নির্ধারণ করার জন্য।’

এ নিয়ে তৃতীয়বারের মতো বাংলাদেশ সফরে আসত অস্ট্রেলিয়া। ২০০৬ সালে প্রথমবার বাংলাদেশ সফর করে অজিরা। সেবার ফতুল্লা ও চট্টগ্রামে দুটি টেস্ট খেলেছিল রিকি পন্টিং, ড্যামিয়েন মার্টিন ও শেন ওয়ার্নরা। ১১ বছর পর ২০১৭ সালে স্টিভেন স্মিথের নেতৃত্বে আবার টেস্ট সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে পা রাখে অস্ট্রেলিয়া। সেবার ঢাকা ও চট্টগ্রামে দুটি টেস্ট খেলেছিল তাঁরা। ঢাকা টেস্টে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে সিরিজ জয়ের আশা জাগিয়ে তুলেছিল বাংলাদেশ। তবে দ্বিতীয় টেস্ট স্টিভেন স্মিথের দল জিতে সিরিজ ড্র করে।

এবারের সূচিতেও ঢাকা ও চট্টগ্রামে দুটি ম্যাচ ছিল। ১১ থেকে ১৫ জুন বন্দরনগরী চট্টগ্রামে এবং ১৯ থেকে ২৩ জুন ঢাকায় টেস্ট আয়োজনের কথা ছিল। এছাড়া সিরিজ শুরুর আগে সফরকারীরা একটি চারদিনের প্রস্তুতি ম্যাচও খেলত। কিন্তু মহামারি করোনায় সব আয়োজন স্থগিত হয়েছে।

এর আগে করোনার ধাক্কায় বাংলাদেশের পাকিস্তান সফর স্থগিত হয়েছে। মে মাসে আয়ারল্যান্ডে তিনটি ওয়ানডে এবং ইংল্যান্ডের মাটিতে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে চারটি টি-টোয়েন্টি খেলার কথা ছিল বাংলাদেশের। করোনায় স্থগিত হয়ে রয়েছে সেগুলোও। ঢাকায় বিশ্ব একাদশ ও এশিয়া একাদশের ম্যাচ আয়োজনের কথা ছিল। সেগুলোও স্থগিত হয়ে আছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •