টিকেট যেন সোনার হরিণ,বাড়ছে কালোবাজারীর দৌরাত্ম – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

টিকেট যেন সোনার হরিণ,বাড়ছে কালোবাজারীর দৌরাত্ম

প্রকাশিত: ৪:২১ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৩১, ২০১৭

টিকেট যেন সোনার হরিণ,বাড়ছে কালোবাজারীর দৌরাত্ম

সিলেটে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বিপিএল ক্রিকেট। তুমুল উন্মাদনা আর উচ্ছ্বাসে প্রস্তুত সিলেটবাসীর আশায় বাঁধ সাধছে টিকেট জটিলতা বিপিএলের টিকেট যেন সোনার হরিণ। দীর্ঘ লাইন দিয়েও কাংখিত টিকেট নামক সোনার হরিণের দেখা মিলছে না। আবার কেউবা টিকেট পেয়ে হৈ হুলোড় আর উল্লাসে মেতে উঠছেন।
সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার সকাল থেকে শুরু হয়েছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল) সিলেট পর্বের টিকেট বিক্রি। টিকেট পেতে রিকাবীবাজার স্টেডিয়ামের ফটকে সোমবার রাত থেকেই লাইনে দাঁড়িয়েছেন সিলেটের ক্রিকেটপ্রেমী দর্শকরা। তীব্র রোদ ও যেন তাদের আটকে রাখতে পারছে না।
তীব্র রোদের মধ্যেই টিকেটের জন্য লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন কয়েক হাজার টিকেটপ্রত্যাশী। এদের মধ্যে কেউ কেউ সোমবার রাত থেকে আবার কেউ কেউ মঙ্গলবার ভোর থেকে এসে লাইনে দাড়িয়েছেন। দুপুরে দিকে জেলা স্টেডিয়ামের ক্রীড়া ভবনে টিকেট কাউন্টার থেকে টিকেটপ্রত্যাশীদের দীর্ঘ লাইন একদিকে মদন মোহন কলেজ আরেক দিকে স্টেডিয়াম মার্কেট ছাড়িয়েছে।
এদিকে টিকেট বিক্রি শুরুর মাত্র ২ ঘন্টার মাথায় ২০০, ৩০০ ও ৫০০ টাকা মূল্যের টিকেট শেষ হয়ে যাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন লাইনে থাকা টিকেটপ্রত্যাশীরা। বিক্রেতারা বলছেন এখন শুধুমাত্র ২০০০টাকার গ্রান্ড স্ট্যান্ডের টিকেট বাকি আছে। আর কেউ কেউ পরিবার নিয়ে খেলা দেখার জন্য একাধিক টিকেট চাইলেও কাউন্টার থেকে দেওয়া হচ্ছে না বলে জানা যায়।
টিকেট সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠছে স্বজনপ্রীতির। এমনকি কর্মকর্তারা দালালদের হাতে তুলে দিচ্ছেন টিকেট, যা চড়া দামে বিক্রি করা হচ্ছে।
এমসি কলেজের দর্শন বিভাগের মাষ্টার্স শেষ বর্ষের ছাত্র জিয়া উদ্দিন মান্না জানান, টিকেট কাউন্টারে টিকেট মিলছে না। তবে যা মিলছে তা ২০০০ টাকার টিকেট। যা ছাত্রদের ক্রয় ক্ষমতার বাহিরে।আরো জানান তিনি, কালোবাজারীর ২০০ টাকার টিকেট ১০০০ টাকা করে বিক্রয় করছে।
তবে এমন অভিযোগ সরাসরি নাকচ করে দিয়েছেন টিকেট সংশ্লিষ্টরা। দর্শক বেশী হওয়ায় এবং জাতীয় পরিচয়পত্র যাছাই বাছাই প্রক্রিয়ায় কিছুটা দেরী হচ্ছে, কিন্তু সবাইকে টিকেট দেয়া হচ্ছে। শান্তিপূর্ণ পরিবেশে টিকেট বিতরণ করছেন বলে জানান তারা।