তেঁতুলিয়ায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৯.৬ – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

তেঁতুলিয়ায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৯.৬

প্রকাশিত: ৯:১৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৮, ২০২০

তেঁতুলিয়ায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৯.৬

অনলাইন ডেস্ক

শীত যেন জেঁকেই বসছে হিমালয়ের পাদদেশে অবস্থিত দেশের সর্বোত্তরের জনপদের জেলাগুলোতে। দেশের সর্বোত্তরের উপজেলা পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় শনিবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৯ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

বাংলাদেশে এটিই এই শীত মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বলে নিশ্চিত করেছে আবহাওয়া অফিস।

দিনাজপুর আঞ্চলিক আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেন জানান, পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় শনিবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৯ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এটিই এই মৌসুমে সারা দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা।

এর আগে গত ২৩ নভেম্বর দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় নওগাঁওয়ের বদলগাছিতে ১০ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সেদিন তেঁতুলিয়ায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ১০ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেন আরও জানান, উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে হিমালয় পর্বতের হিমেল বাতাস ও বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ ক্রমাগত কমে আসায় তাপমাত্রা কমে আসছে হিমালয়ের পাদদেশে অবস্থিত উত্তরের এই জনপদে। এই জনপদে ক্রমান্বয়ে শীতের তীব্রতা বাড়বে বলে আভাস দিয়েছেন তিনি।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিসের পর্যবেক্ষক মো. রাসেল শাহ জানান, তেঁতুলিয়ায় গত কয়েক দিন ধরেই সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে ১১ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যেই উঠানামা করছে। কিন্তু গত শুক্রবার হঠাৎ করেই সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৫ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসে উঠে। এরপর একদিনেই সেই তাপমাত্রা নেমে আসে ৯ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে।

তিনি জানান, সকালে হিমেল বাতাসে এ অঞ্চলে তীব্র শীত অনুভূত হয়।

এদিকে শীতের তীব্রতা ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি পাওয়ায় দুর্ভোগে পড়ছে এ জনপদের ছিন্নমূল ও অসহায় মানুষ। ক্রমান্বয়ে শীত বৃদ্ধি পাওয়ায় দিনাজপুর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন উপজেলায় শীতবস্ত্র বিতরণ করা হচ্ছে। এছাড়াও বিভিন্ন বেসরকারি বিভিন্ন সংগঠনের উদ্যোগে বিভিন্ন এলাকায় শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে।

শনিবার দুপুরে দিনাজপুরের পার্বতীপুরে অসহায়, ছিন্নমূল বয়ঃবৃদ্ধসহ শতাধিক মানুষের মাঝে উপহারসামগ্রী হিসেবে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছে সারাবাংলা ৮৮ নামের একটি সংগঠন।

দিনাজপুর শহরের ঐতিহ্যবাহী সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান ইয়ং স্টার ক্লাবের সহযোগিতায় অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন সংগঠনের দিনাজপুর প্যানেলের সদস্য সৈয়দ আজাদুল রহমান রিপু ও শামিম কবির অপু।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- ইয়ং স্টার ক্লাবের সভাপতি আমজাদ হোসেন, সারাবাংলা ৮৮-এর অন্যতম সদস্য মাহাতাব লিটন, ইয়ং স্টার ক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক মামুনুর রশিদসহ স্থানীয় সংবাদকর্মীরা।

এ সময় প্রত্যেককে শীতবস্ত্র হিসেবে একটি কম্বল, এক জোড়া জুতা, হাত ও পায়ের মোজা ও একটি মানকি টুপি প্রদান করা হয়।