নগরীর আখালিয়ায় নারায়ণ বিট রমরমা জুয়া ও তীরখেলার বোর্ড – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

নগরীর আখালিয়ায় নারায়ণ বিট রমরমা জুয়া ও তীরখেলার বোর্ড

প্রকাশিত: ৪:০৯ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৫, ২০১৭

নগরীর আখালিয়ায় নারায়ণ বিট রমরমা জুয়া ও তীরখেলার বোর্ড

সিলেট নগরীর আখালিয়ায় নারায়ণ বিট। এ বিটে অবিরাম বসে থাকে জুয়ার আসর ও তীর খেলার বোর্ড । প্রতি সপ্তাহে পুলিশ গ্রহণ করে থাকে মোটা অংকের বখরা। সূত্র মতে এসএমপির জালালাবাদ থানার সব ক’টি এলাকা পুলিশের বিট হিসেবে বিভক্ত। থানার এসআই নারায়ণ দেবনাথের অধীন আখালিয়া নয়াবাজার বিট। নারায়ন এ এলাকার মাসোহারা ও বখরা আদায়ের লিজ নিয়ে গেছেন বলে এই এলাকা থানা পুলিশের ‘নারায়ণ বিট’ বলে পরিচিত।
স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ,নগরীর আখালিয়া নয়াবাজার এলাকার বড়বাড়ি,খারিপাড়া ও জালালিয়া আবাসিক এলাকায় প্রতিদিন জুয়ার আসর ও শিলংতীর খেলার বেশ ক’টি বোর্ড বসানো হয়। প্রত্যহ বিকেলে ২টা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত আসর ও বোর্ডগুলো চলতে থাকে। এক একটি আসরে ও বোর্ডে চলে লাখ লাখ টাকার খেলা। এলাকার মাসুক মিয়া,মন্নান মিয়া, গিয়াস উদ্দিন ও রাজন সহ কয়েকজন জুয়ার আসর ও তীরখেলার বোর্ডগুলো পরিচালনা করে থাকেন। ওই এলাকার আইন শৃংখলার দায়িত্বে থাকেন জালালাবাদ থানার এসআই নারায়ণ দেবনাথ। নারায়ন জুয়াড়ী ও তীরবাজদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা না নিয়ে উল্টো তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে থাকেন। ফলে এলাকার লোকজন তীর খেলা ও জুয়ার বিরুদ্ধে কথা বলতে সাহস পান না।
অভিযোগে আরো প্রকাশ, এসআই নারায়ণ প্রতিটি জুয়ার আসর ও তীরবোর্ড থেকে সপ্তাহে ১০ হাজার টাকা করে বখরা নিয়ে থাকেন। নারায়ণ প্রতি বৃহস্পতিবার আখালিয়া নয়াবাজারস্থ পুতুল মিয়ার সানন্ধা ডেকোরেটার্স থেকে এ টাকা গ্রহণ করে থাকেন।
এব্যাপারে এসআই নারায়ণ দেবনাথের সাথে মুটোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ বিষয়ে কোন বক্তব্য দিতে অপারগতা প্রকাশ করে সরেজমিন অনুসন্ধানপূর্বক সংবাদ প্রকাশের জন্য সাংবাদিকদের প্রতি আহ্বান জানান।

সূত্র: Sylhe Newsclub Sylhet Newsclub

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল