নবীগঞ্জে অভিনব কায়দায় গৃহবধূকে ডেকে নিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

নবীগঞ্জে অভিনব কায়দায় গৃহবধূকে ডেকে নিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ

প্রকাশিত: ১০:২০ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৩১, ২০২০

নবীগঞ্জে অভিনব কায়দায় গৃহবধূকে ডেকে নিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ

সুমন আলী খাঁন

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে ফিল্মি কায়দায় মোবাইল ফোনে ধোকা দিয়ে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে নবীগঞ্জ উপজেলার করগাঁও ইউনিয়নের পাঞ্জারাই গ্রামের কলংকা বিলের পাশে। এ ঘটনায় ৩ জনের বিরুদ্ধে গণধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করেছেন ওই গৃহবধূ। মামলা দায়েরের প্রেক্ষিতে গত শুক্রবার রাতে ২ আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত (২৬ অক্টোবর) সোমবার সন্ধ্যায় একটি নাম্বার থেকে ফোন আসে ওই গৃহবধুর কাছে।
ফোনের অপর প্রান্ত থেকে এক যুবক গৃহবধূকে বলে, ‘আপনার স্বামী হঠাৎ অসুস্থ হয়ে অজ্ঞান অবস্থায় রাস্তায় পড়ে আছে।’
মোবাইল ফোনে স্বামীর অসুস্থ এ খবরে হতাশ হয়ে যান গৃহবধূ। জানতে চান, ‘কোথায় অজ্ঞান হয়ে পড়ে আছে?’
অপর প্রান্ত থেকে যুবক জানায় তাদের বাড়ির পাশের ‘কলংকা বিলের পাড়ে’।

পরে দ্রুত গৃহবধূ একাই চলে যান কলংকা বিলের পাড়ে। সেখানে যাওয়ার পর ৩ জন মিলে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ তুলেন গৃহবধূ।

গৃহবধু উল্লেখ করেন, তার স্বামী সত্যিই অসুস্থ তাই প্রতারকদের কলে বিশ্বাস করেছেন। তিনি সরল মনে বিশ্বাস করে প্রতারকদের কলে ধোকায় পড়ে বোকা বনে যান। সেখানে যাওয়ার পর থাকে ৩ জন মিলে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ ৩ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করলে ধর্ষণকারী ২ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলো, উপজেলার করগাঁও ইউনিয়নের পাঞ্জারাই গ্রামের সাদিক মিয়া (৩৫) ও তুয়েল মিয়া (৩০)। অপর আসামী মনর মিয়া (৪০) পলাতক রয়েছে।

এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আজিজুর রহমান বলেন, ‘অভিনব ধর্ষণের ঘটনায় মামলা হয়েছে। তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত ২ জনকেই গ্রেফতার করা হয়।’