নবীগঞ্জে ঈদের পর দিন ডাকাতি কালে  বসতঘরে মহিলাকে গলাকেটে হত্যা – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

নবীগঞ্জে ঈদের পর দিন ডাকাতি কালে  বসতঘরে মহিলাকে গলাকেটে হত্যা

প্রকাশিত: ৭:২৮ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২, ২০২০

নবীগঞ্জে ঈদের পর দিন ডাকাতি কালে  বসতঘরে মহিলাকে গলাকেটে হত্যা
নবীগঞ্জ প্রতিনিধি
নবীগঞ্জে ঈদের পরের দিন করগাঁও ইউনিয়নের করগাঁও গ্রামে ডাকাতি কালে বসতঘরে ছলেমা বেগম (৪৫) নামে এক মহিলাকে  গলাকেটে হত্যা করেছে ডাকাতদল। ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার(০২ আগস্ট) ভোর রাতে করগাঁও ইউনিয়নের করগাঁও গ্রামে। মৃত ছলেমা বেগম করগাঁও গ্রামের মিলন মিয়ার স্ত্রী। এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। পরিবার-পরিজন,পাড়া প্রতিবেশিসহ চলছে শোকের মাতম। এবং এই মর্মান্তিক ঘটনায় আতঙ্কে রয়েছেন এলাকাবাসী। স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, প্রতিদিনের মত ছালেমা বেগম মেয়ে শান্তা বেগমকে নিয়ে একসাথে ঘুমিয়ে পড়েন। ভোর বেলা হঠাৎ করে মেয়ে চিৎকার শুনে ছুটে আসেন এলাকাবাসী এসে দেখতে পান গলাকাটা অবস্থায় পরে রয়েছেন ছলেমা বেগম। পরে পুলিশকে খবর দিলে নবীগঞ্জ থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। মামলার সুরতহাল রিপোর্ট  তৈরি করেন এস আই  আবু সাঈদ। ছলেমা বেগমের স্বামী বলেন, আমার ২ টা বাড়ি থাকায় আমি আমার অন্য বাড়িতে ঘুমাতে গিয়েছিলাম। সকাল বেলা এসে দেখি আমার স্ত্রী ছালেমা বেগম কে বা কারা গলাকেটে হত্যা করেছে।  ডাকাতরা ছালেমা বেগমের কাছ থেকে নগদ  ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা গলাকেটে নিয়ে যায়। আমি প্রশাসনের কাছে এর সুষ্ঠ বিচার চাই। নবীগঞ্জ  থানার অফিসার ইনচার্জ আজিজুর রহমান বলেন ডাকাতরা  নির্মমভাবে ছলেমা বেগমকে হত্যা করছে। ছলেমা বেগমের শরীরে একাধিক  আগাতের চিহ্ন  রয়েছে। আমরা তদন্তপূর্বক ঘটনার সাথে জড়িতের আইনের আওতাধীন  নিয়ে আসবো। ঘটনার খবর পেয়ে  ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন নবীগঞ্জ বাহুবলে সার্কেল এ এসপি পারভেজ আলম চৌধুরী