নাটকটিতে যেমন চা শ্রমিকদের জীবন ও ইতিহাসের কথা ফুটে ওঠে এসেছে মুক্তিযুদ্ধের পূর্বে ও স্বাধীনতার সময়কার জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কথা.. ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

নাটকটিতে যেমন চা শ্রমিকদের জীবন ও ইতিহাসের কথা ফুটে ওঠে এসেছে মুক্তিযুদ্ধের পূর্বে ও স্বাধীনতার সময়কার জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কথা.. ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক

প্রকাশিত: ৪:১৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৬

নাটকটিতে যেমন চা শ্রমিকদের জীবন ও ইতিহাসের কথা ফুটে ওঠে এসেছে মুক্তিযুদ্ধের পূর্বে ও স্বাধীনতার সময়কার জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কথা.. ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক

unnamed-1দেশের অবহেলিত জনগোষ্ঠী, দেশের উন্নয়নে অবদানের অংশীদার চা-শ্রমিকদের জীবন-জীবিকা তাদের সংগ্রাম, ইতিহাস ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদানের কথা মঞ্চনাটকেরই মাধ্যমে তুলে ধরার মধ্য দিয়ে শেষ হলো সিলেটের সাংস্কৃতিক আন্দোলনের অন্যতম চালিকাশক্তি সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেটের তিনদিন ব্যাপী প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী নাট্যোৎসব-২০১৬। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে সিলেটের নাট্যমোদী দর্শক, বিভিন্ন শ্রেণীপেশার সুধীজনদের উপস্থিতি জানান দেয় নাট্য পরিষদের এই নাট্যোৎসবের। গতকাল ছিল তিনদিনব্যাপী উৎসবের শেষ ও সমাপনী দিন। সন্ধ্যা ৭টায় মঞ্চায়িত হয় চা শ্রমিক জনগোষ্ঠীর ভাষা ও সংস্কৃতির উপর নাটক ‘সুখের খুজে সুখলাল’। নাটকটি রচনা করেছেন সিলেটের স্বনামধন্য নাট্যকার বিদ্যুৎ কর ও নির্দেশনা দিয়েছেন রজত কান্তি গুপ্ত। পিনপতন নীরবতায় উপস্থিত দর্শক নাটকের গল্প ও অভিনয় শিল্পীদের নাটক উপস্থাপন মুগ্ধ হয়ে দেখেন।
নাটক শেষে সমাপনী দিনের আনুষ্ঠানিকতায় সম্মানিত অতিথি হিসেবে মঞ্চে আসেন সিলেটের ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক শহিদুল ইসলাম চৌধুরী। ইন্দ্রানী সেন শম্পার সঞ্চালনায় শুভেচ্ছা জানান, নাট্য পরিষদের পরিচালক চম্পক সরকার। সমাপনীতে সভাপতিত্ব করেন পরিষদের সভাপতি মিশফাক আহমেদ মিশু। ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক অংশগ্রহণকারী নাট্যদল নাট্যমঞ্চ সিলেটের হাতে উৎসব স্মারক তুলে দেন। unnamed-2
শহিদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, সিলেটের নাট্যান্দোলন, নাট্যচর্চা ও বাঙালীর হাজার বছরের সংস্কৃতির মূল্যবোধকে তুলে ধরতে সম্মিলিত নাট্যপরিষদ এই অঞ্চলে বিশেষ অগ্রণী ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। তিনি পরিবেশিত নাটকের সূত্র ধরে বলেন, নাটকটিতে যেমন চা শ্রমিকদের জীবন ও ইতিহাসের কথা ফুটে ওঠে এসেছে মুক্তিযুদ্ধের পূর্বে ও স্বাধীনতার সময়কার জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কথা। তিনি নাট্যপরিষদকে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আয়োজন সফলভাবে সম্পন্ন করায় ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতার কথা উল্লেখ করেন।
গত ২০ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার তিনদিন ব্যাপী এই নাট্যোৎসবের উদ্বোধন হয় রিকাবীবাজার কবি নজরুল অডিটোরিয়াম মুক্তমঞ্চে। উৎসবে বিশেষ সহযোগিতা করেন জেলা প্রশাসন সিলেট ও সিলেট সিটি কর্পোরেশন। সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেটের সভাপতি মিশফাক আহমেদ মিশু ও সাধারণ সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত এক বিবৃতিতে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী নাট্যোৎসবে যারা বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করেছেন এবং যারা নাটকের দর্শক হিসেবে উপস্থিত হয়েছেন, উৎসবকে প্রাণবন্ত করেছেন তাদের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল