নিখোঁজের ৭ দিন পর লাশ, ঘাতকসহ আটক ৫ – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

নিখোঁজের ৭ দিন পর লাশ, ঘাতকসহ আটক ৫

প্রকাশিত: ৩:৪৮ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০১৮

নিখোঁজের ৭ দিন পর লাশ, ঘাতকসহ আটক ৫

কুমিল্লার লাকসামে নিখোঁজের ৭ দিন পর এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার ভোরে নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার খিলপাড়া ইউনিয়নের পশ্চিম দেলিয়াই গ্রামের একটি পুকুর থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় ঘাতকসহ ৭ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত নিতাই দেবনাথ (৪৫) কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার সাইতলা গ্রামের নারায়ন দেবনাথের পুত্র।

আটককৃতরা হলেন- চাটখিল উপজেলার খিলপাড়া ইউনিয়নের অমরপুর গ্রামের বেলাল, একই ইউনিয়নের সংকরপুর গ্রামের লিটন, লাকসামের মিলন, সাইফুল ইসলাম ও জুয়েলসহ ৭ জন।

পুলিশ জানায়, ৭ ফেব্রুয়ারী স্বর্ণ ব্যবসায়ী লাকসাম উপজেলার হাশিরপাড় বাজার থেকে তিথি শিপ্লালয়ে যাওয়ার পথে নিখোঁজ হন। এ ব্যাপারে নিতাই দেবনাথের বড় ভাই গৌরাঙ্গ দেবনাথ লাকসাম থানায় একটি জিডি করে। বুধবার সন্ধ্যায় তিথি শিল্পালয়ের পাশের দোকান মালিক বেলালকে সন্দেহজনকভাবে পুলিশ আটক করে। আটককৃত বেলাল পুলিশের নিকট নিতাই দেবনাথকে হত্যা করার কথা স্বীকার করেন। তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক লাকসাম থানার ওসি আবদুল্লাহ আল মাহফুজ এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ চাটখিলের পশ্চিম দেলিয়াই থেকে নিতাই দেবনাথের লাশ উদ্ধার করে।

আটককৃত বিল্লাল জানান, পাশের ব্যবসায়ী হিসেবে নিতাইর সাথে তার টাকা পয়সার লেনদেন ছিল। নিতাই তার নিকট থেকে পাওনা টাকা দাবি করায় ক্ষিপ্ত হয়ে বেলাল তাকে হত্যার পরিকল্পনা করে।

তিনি জানান, বুধবার নিতাইকে কৌশলে তার বাড়ী চাটখিলে নিয়ে আসে। আর বুধবার রাতেই বেলাল, লিটনসহ অন্যরা তাকে পিটিয়ে ও পরে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে লাশ বাড়ীর পার্শ্বের পুকুরে বালুর বস্তার সাথে বেঁধে ফেলে দেয়।