নেই প্রশাসনের তদারকি, গোলাপগঞ্জে রাত পর্যন্ত খোলা দোকানপাট

প্রকাশিত: ৩:৩৮ অপরাহ্ণ, জুন ৭, ২০২০

নেই প্রশাসনের তদারকি, গোলাপগঞ্জে রাত পর্যন্ত খোলা দোকানপাট
ফাহিম আহমদ, গোলাপগঞ্জ
সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে রাত পর্যন্ত গোলাপগঞ্জে খোলা রয়েছে বিভিন্ন ধরণের দোকানপাট। দোকানপাট খোলা থাকলেও এব্যাপারে প্রশাসনের কোন তদারকি নেই।
প্রশাসনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় চলছে ব্যবসা। সরকারি নিয়ম মোতাবেক বিকাল ৪ টা পর্যন্ত শপিংমল ও ৫টা পর্যন্ত নিত্যপ্রয়োজনীয় দোকানপাট খোলা থাকার কথা থাকলে রাত পর্যন্ত খোলা রয়েছে দোকানপাট।
উপজেলায় বাড়ছে করোনা রোগীর সংখ্যা। একেতো দোকানপাট খোলা, তারমধ্যে নেই কারো মধ্যে সচেতনতা৷ সামাজিক দূরত্ব তো মানা দূরের কথা সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে তারা ব্যবসা করে যাচ্ছেন।
শনিবার (৬জুন) সন্ধ্যায় উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, জুতার দোকান, কাপড়ের দোকান, সেলুন, মাছ বাজার-সবজি বাজার, নিত্য প্রয়োজনীয় দোকানপাট খোলা রয়েছে।
প্রত্যেকটি দোকানের সামনে, ভিতরে ক্রেতাদের ভীড়। উপজেলায় করোনা রোগীর সংখ্যা অর্ধশতাধিক পেরিয়ে গেলেও কারো মধ্যে বাড়ছে না সচেতনতা।
এখন পর্যন্ত উপজেলায় ৫৭ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১৮ জন এবং মৃত্যু বরণ করেছেন ১ জন।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন ব্যবসায়ীর সাথে কথা হয়। তারা বলেন, আমরা তো ঈদের পর থেকে রাত অবধি দোকানপাট খোলা রেখে ব্যবসা করতেছি। দোকানপাট খোলা রাখলেও আমাদেরকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দোকান বন্ধ রাখার জন্য বলেনি।
তারা বলেন, যদি প্রশাসন থেকে কোন ধরণের চাপ আসতো তাহলে আমরা দোকানপাট বন্ধ রাখতাম। আমরা ভাবতেছি সবকিছু আগের মত স্বাভাবিক হয়ে গেছে।
এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মামুনুর রহমান বলেন, দোকানপাট খোলা থাকার ব্যাপারে আমরা কিছু জানি না। তবে আমরা যখন খবর পেয়েছি আগামীকাল রোববার থেকে এদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্হা নিব।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল