নৌকা মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তির প্রতিক : বিশ্বনাথে শফিক চৌধুরী – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

নৌকা মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তির প্রতিক : বিশ্বনাথে শফিক চৌধুরী

প্রকাশিত: ৩:২৯ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৯, ২০১৬

নৌকা মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তির প্রতিক : বিশ্বনাথে শফিক চৌধুরী

20784সিলেটের বিশ্বনাথ সদর ও অলংকারী ইউনিয়নে আ’লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থীর নৌকা প্রতিকের সমর্থনে পৃথক নির্বাচনী উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। অলংকারী ইউনিয়নের প্রবাসী চেয়ারম্যান প্রার্থী রফিক মিয়া এবং রাত ১০টায় সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল জলিল জালালের পক্ষে নৌকার সমর্থনে এ পৃথক উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। পৃথক বৈঠকে প্রধান অতিথি ছিলেন স্থানীয় সাবেক এমপি ও সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব শফিকুর রহমান চৌধুরী।

বক্তব্যে তিনি বলেন, নৌকা মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তির প্রতিক। নৌকার প্রতি আস্থা আছে বলেই দেশের মানুষ বার বার নৌকা প্রতিকে ভোট দিয়ে আ’লীগকে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত করেছেন। ৭মের নির্বাচনে ‘নৌকা প্রতিকে’ ভোট দিয়ে আ’লীগ মনোনীত প্রার্থীদের বিজয়ী করেলে বিশ্বনাথের জনগন সরকারের সমবন্টনের উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত হবেন না।

অলংকারী ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি আরশ আলী ও সদর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড আ’লীগ সভাপতি তাজ উল্লাহর সভাপতিত্বে পৃথক বৈঠকে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক জগলু চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব পংকি খান, সাধারণ সম্পাদক বাবুল আখতার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ সভাপতি শাহ আসাদুজ্জামান আসাদ, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আসাদুজ্জামান, সাবেক আইন বিষয়ক সম্পাদক শফিক উদ্দিন স্বপন, সাবেক ত্রান ও পুনর্বাসন সম্পাদক ফজলু মিয়া, সদস্য মিহির চন্দ্র দে, বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শামছুল ইসলাম সুফী, সাধারণ সম্পাদক মহব্বত আলী, রাগীব-রাবেয়া ডিগ্রি কলেজের প্রফেসর এম এ ওয়াহাব, আওয়ামী লীগ নেতা হানিফ আলী, উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি ছোরাব আলী, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক আশিক আলী, আলতাব হোসেন, উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, যুবলীগ নেতা তাহিদ মিয়া, আমির আলী, শামছুল আলম মিছবাহ, ছাত্রলীগ নেতা  সামিউল ইসলাম ফাহিম।

বৈঠকগুলোতে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল মতিন, মুক্তার আলী, আরন মিয়া, আবদুল হান্নান, আকবর আলী, সিতাব আলী, আবদুশ সহিদ, হাজী আবদুল মন্নান, রিয়াজ আলী, আবদুল ওয়াহাব, আজিজুর রহমান বাবুল, আমির আলী সওদাগর, আবদুস ছোবহান, আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল মতিন, হাজী হিরা মিয়া, হাজী ছিদ্দেক আলী, রুকন মিয়াজী, আফরোজ আলী, আবদুল খালিক, আবদুল মজিদ, ঠাকুর ধন, হাজী মন্তাই মিয়া, হাজী আবদুল মছব্বির, বদরুল ইসলাম, আনোয়ার মিয়া, আলতাব হোসেন, ইসলাম উদ্দিন, আশিক উদ্দিন, শহীদুুল ইসলাম, হেলাল উদ্দিন, ফারুক মিয়া, তবারক আলী, ব্যবসায়ী অধির পাল, দিলিপ দে, দিপক দে, উপজেলা শ্রমিক লীগের কার্যকরী সভাপতি ফজর আলী, সহ সভাপতি তাজির আলী, সুন্দর আলী, মহরম জিন্নাহ, সাংগঠনিক সম্পাদক আরান দে, শ্রমিক নেতা সাজন আহমদ, ইরান মিয়া, আশিক আলী, জমির আলী, আবুল মিয়া, পারুল মিয়া, আসলাম উদ্দিন, সাজন মিয়া, প্রবাসী আবদুন নূর, সেবুল আহমদ, আবদুস শহিদ, নতুন বাজার বনিক সমিতির সভাপতি শামীম আহমদ, কমিশনার জয়নাল আবেদীন, সুন্দর আলী রুহুল, যুবলীগ নেতা আনোয়ার মিয়া, শাহ শহিদুল ইসলাম, আবদুল আজিজ সুমন, জয়নাল আবেদীন, আবুল হোসেন, ইকবাল হোসেন শাহিন, মকসুদ চৌধুরী লিপন, সেচ্ছাসেবক লীগ নেতা বদরুল ইসলাম মহসিন, রফিক আলী, আতিকুর রহমান মিয়াজী, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক দিলদার হোসেন সাজু, উপ-সম্পাদক জুবের আহমদ, উপজেলা প্রজন্ম লীগের আহবায়ক তোফায়েল আহমদ কামাল, ছাত্রলীগ নেতা জাকির হোসেন, কামরুল ইসলাম, মাছুম আহমদসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।