পবিত্র হজ পালনে ১৫ দিনের সৌদি সফর শেষে দেশে ফিরতেই দলের পক্ষ থেকে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে গণসংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

পবিত্র হজ পালনে ১৫ দিনের সৌদি সফর শেষে দেশে ফিরতেই দলের পক্ষ থেকে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে গণসংবর্ধনা দেয়া হয়েছে।

প্রকাশিত: ৩:৫৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৬

পবিত্র হজ পালনে ১৫ দিনের সৌদি সফর শেষে দেশে ফিরতেই দলের পক্ষ থেকে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে গণসংবর্ধনা দেয়া হয়েছে।

00-41বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৫.০২ মিনিটে বেগম জিয়াকে বহনকারী অ্যামিরেটসের একটি বিমান হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

এর পরে আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে বিকেল ৫টা ২০ মিনিটে ভিআইপি গেট দিয়ে বাসার উদ্যেশে রওনা দেন। এ সময় দলীয় নেতাকর্মীদের গণসংবর্ধনায় সিক্ত হন বিএনপি প্রধান।

খালেদা জিয়াকে বহনকারী নিশান পেট্রোল গাড়িটি বিমানবন্দরের ভিআইপি লাউঞ্জ সড়ক দিয়ে বেরিয়ে আসার পথে উপস্থিত নেতাকর্মীরা পুলিশ ব্যারিকেডের ভেতরে অবস্থান নিয়েই খালেদা জিয়াকে শুভেচ্ছা জানান।

এ সময় “রাজপথ ছাড়ি নাই, খালেদা জিয়ার ভয় নাই” শ্লোগানে শ্লোগানে মুখরিত করে তুলে বিমানবন্দরের ভিআইপি চত্বর।14370095_859900904147523_6946099408559070121_n

এছাড়া বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্দেশনা মোতাবেক বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে দলটির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা খালেদা জিয়া এবং তারেক রহমানের ছবি, ব্যানার, ফেস্টুন, প­্যাকার্ড হাতে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের আশপাশে খন্ড খন্ড মিছিলে জড়ো হয়। উদ্দেশ্য তাদের প্রিয় নেত্রীকে কাছ থেকে দেখা এবং শুভেচ্ছা জানানো।
সৌদি বাদশা সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদের আমন্ত্রণে গত ৭ সেপ্টেম্বর হজ পালনের উদ্দেশ্য সৌদি আরব যান বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।

14449736_859905167480430_209006644148154464_nখালেদা জিয়ার সফরসঙ্গী হিসেবে ছিলেন চেয়ারপারসনের মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ক বিশেষ দূত এনামুল হক চৌধুরী, বিএনপির তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক শরীফ শাহ কামাল তাজ, খালেদা জিয়ার একান্ত সচিব এ বি এম আব্দুস সাত্তার, ব্যক্তিগত আলোকচিত্র শিল্পী নুর“দ্দীন আহমেদ এবং গৃহপরিচারিকা ফাতেমা প্রমুখ।

এছাড়াও সৌদি আরব পশ্চিমাঞ্চল বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আহমদ আলী মকিব সফরকালে খালেদার সঙ্গে ছিলেন।

আজ খালেদা জিয়াকে শুভেচ্ছা জানাতে বিমানবন্দরে উপস্থিত হন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখর“ল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, নজর“ল ইসলাম খান, আমীর খসর“ মাহমুদ চৌধুরী,ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল­াহ আল নোমান, মোহাম্মদ শাহজাহান, নিতাই রায় চৌধুরী,আব্দুল আউয়াল মিন্টু, ডা.এ জেড এম জাহিদ হোসেন, যুগ্ম মহাসচিব খায়র“ল কবির খোকন, শ্যামা ওবায়েদসহ বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা মিজানুর রহমান মিনু, আব্দুস সালাম আজাদ,আবু সাঈদ খোকন, নূরে আরা সাফা, শিরিন সুলতানা, শহীদুল ইসলাম বাবুল, ক্রীড়া সম্পাদক আমিনুল হক, কাজী আবুল বাশার, আমিনুল ইসলাম, আমিনুল হক, নুর“ল ইসলাম নয়ন, সুলতানা আহমেদ,সাহানা আক্তার সানু ও রাজীব আহসান প্রমুখ।
এ ব্যাপারে বিএনপির স্থায়ী কমিটির একজন প্রভাবশালী নেতা বলেন, ‘বর্তমান সরকার জনভীত। তাই একসঙ্গে কিছু মানুষ দেখলেই ক্ষমতা হারানোর ভয়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়ে। বিএনপি দেশের অন্যতম প্রধান রাজনৈতিক দল। রাজপথে বিএনপির শোডাউনের প্রয়োজন পড়ে না। দলের কর্মসূচিতে নেতাকর্মীরা অংশ নেয়ার সুযোগ পেলে প্রতিটি কর্মসূচি পালন শোডাউনের আকার ধারণ করবে।

এদিকে হজ পালনকালে বড় ছেলে তারেক রহমান, তার স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমান, নাতি জাইমা রহমান, ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলা রহমান বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে যোগ দেন। তিনি ও তার পরিবারের সদস্যরা মদিনায় মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর রওজা মোবারকও জিয়ারত করেন।
আরএম

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল