পাকিস্তানে তেহরিক-ই-লাব্বাইকের হাতে ৬ পুলিশ জিম্মি – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

পাকিস্তানে তেহরিক-ই-লাব্বাইকের হাতে ৬ পুলিশ জিম্মি

প্রকাশিত: ৪:০৭ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৯, ২০২১

পাকিস্তানে তেহরিক-ই-লাব্বাইকের হাতে ৬ পুলিশ জিম্মি

অনলাইন ডেস্ক :
পাকিস্তানের কট্টরপন্থী ইসলামি দল তেহরিক-ই-লাব্বাইক পাকিস্তান (টিএলপি)-এর সমর্থকরা ছয় পুলিশ সদস্যকে জিম্মি করেছে।

রোববার লাহোরের চক ইয়াতিমখানা এলাকা থেকে ওই পুলিশ সদস্যদের জিম্মি করা হয় বলে ডন জানিয়েছে।

জিম্মি ছয়জনের মধ্যে এক সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তা ও আধা সামরিক বাহিনীর দুই সদস্য রয়েছেন বলে লাহোর পুলিশের মুখপাত্র আরিফ রানা জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, টিএলপি সমর্থকরা দুইটি জ্বালানিবাহী ট্যাঙ্কার নিয়ে আসে, যেগুলোতে কয়েক হাজার লিটার পেট্রোল ছিল। তারা নিরাপাত্তা ‍বাহিনীর দিকে পেট্রোল বোমা এবং পাথর ছোড়ে। পরে তারা গুলিও ছোড়ে, যাতে ১১ পুলিশ কর্মকর্তা আহত হয়েছেন।

এদিকে টিএলপি মুখপাত্র শফিক আমিনি দাবি করেছেন, রোববার পুলিশ তাদের চার সমর্থককে হত্যা করেছে এবং বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।

টিএলপি’র পক্ষ থেকে পাকিস্তান সরকারকে ২০ এপ্রিলের মধ্যে ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কারের আলটিমেটাম দেওয়া হয়েছে।

নবীর কার্টুন দেখানোর অধিকারের পক্ষে ফ্রান্স যুক্তি দেওয়ার পর পাকিস্তানে কয়েক মাস আগে এই বিক্ষোভ প্রথম শুরু হয়েছিল।

ফ্রান্সে একটি স্কুলের ক্লাসে মত প্রকাশের স্বাধীনতা নিয়ে আলোচনার সময় এ ধরনের কার্টুন দেখানোর পর একজন শিক্ষকের শিরশ্চ্ছেদের ঘটনার পর গত বছর অক্টোবর মাসে, ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ বাকস্বাধীনতার পক্ষে জোরালো যুক্তি দেন।

এর জেরে পাকিস্তানসহ গোটা মুসলিম বিশ্বে ব্যাপক ক্ষোভ সৃষ্টি হয়। পাকিস্তান ফরাসি পণ্য বর্জনের ডাক দেয়।

পাকিস্তানের কট্টরপন্থী রাজনৈতিক দল তেহরিক-ই লাব্বাইক পাকিস্তান (টিএলপি)-এর নেতা সাদ হুসেইন রিজভীকে পাকিস্তান সরকার গ্রেপ্তার করার পর এ সপ্তাহে প্রতিবাদ আবার মাথাচাড়া দিয়ে ওঠে। এই দলটি পাকিস্তান থেকে ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কারের আহ্বান জানিয়েছিল।

যার জেরে গত সপ্তাহে পাকিস্তান সরকার টিএলপিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে এবং দলের প্রধানকে গ্রেপ্তার করা হয়। দেশটির সংবাদমাধ্যমে টিএলপির খবর প্রকাশেও বাধা দেওয়া হচ্ছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল