ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন’র অভিষেকে অর্থমন্ত্রী:সাংবাদিকতায় আলোকচিত্র মাধ্যমটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন’র অভিষেকে অর্থমন্ত্রী:সাংবাদিকতায় আলোকচিত্র মাধ্যমটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ

প্রকাশিত: ৬:০৮ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৭

ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন’র অভিষেকে অর্থমন্ত্রী:সাংবাদিকতায় আলোকচিত্র  মাধ্যমটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এমপি বলেছেন, সাধারণ ফটোগ্রাফার থেকে ফটো জার্নালিস্টদের দৃষ্টিভঙ্গি সম্পূর্ণ আলাদা। একটি বিষয়কে মানুষের খুব কাছাকাছি নিয়ে যেতে, সরলভাবে বললে মানুষকে খাওয়াতে ফটো জার্নালিস্টরা খুবই পারদর্শী। তারা সাহসী মানুষ। এ ধরনের সাহসী মানুষ খুব কম আছে। ফটো সাংবাদিকদেও উপস্থাপনা গুণে একটি ছবি পাঠকের কাছে খুবই গ্রহণযোগ্য হয়ে উঠে।

বৃহস্পতিবার (২৩ ফেব্রুয়ারী) সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন সিলেট বিভাগীয় কমিটির ২০১৭-১৮ সনের অভিষেক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। এসোসিয়েশনের সভাপতি আব্দুল বাতিন ফয়সল’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জাতি সংঘের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত ড. এ.কে. আবদুল মোমেন, এসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি এ কে এম মহসীন, কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আজিজ আহমদ সেলিম, সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরামুল কবির।
অর্থমন্ত্রী আরো বলেন, একজন ভালো আলোকচিত্রী মূলত প্রতিবেদকের মতো একজন ছবি প্রতিবেদক। রিপোর্টার কাগজ কলম ব্যবহার করে ভাষার নিয়মকানুন মেনে প্রতিবেদন রচনা করেন। আর আলোকচিত্রীও অনুরূপ নিজস্ব কিছু কায়দা কানুন ব্যবহার করে আলোকচিত্রে সংবাদ রচনা করেন। ফটো সাংবাদিকতাকে একটি চ্যালেঞ্জিং মাধ্যম হিসেবে গ্রহণ করে কাজ করার প্রয়োজন মনে করে মন্ত্রী আরো বলেন, লেখালেখির চেয়ে সংবাদ ক্ষেত্রে একটি ছবি প্রয়োজনীয় বাড়তি তথ্যের যোগান দিয়ে থাকে। কেননা তথ্যের গুরুত্ব হিসেবে সংবাদপত্রে ছবি ছাপানোর বিষয়ে একমাত্র আলোকচিত্রী বা ফটো সাংবাদিকরাই বেশি পারদর্শী থাকেন। তাই সংবাদপত্র অফিসে একজন সংবাদ সম্পাদক যেমন অপরিহার্য তেমনি একজন চিত্র সম্পাদকেরও প্রয়োজন রয়েছে।
বিশেষ অতিথি ড. এ.কে. আবদুল মোমেন বলেন, একটি ছবি হাজারো শব্দের চেয়ে শক্তিশালী। বিশেষ করে ছবিতে সমাজ ও জীবনের বাস্তবচিত্র ফুটে উঠে। তাই ফটো সাংবাদিকদের সততা ও নিষ্টার সাথে দায়িত্ব এবং কর্তব্য পালনে সচেষ্ট থাকতে হবে। পেশাগত দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে সাংবাদিকরা সমাজ উন্নয়নেও বিশেষ ভূমিকা পালন করবেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এ এইচ আরিফ এবং প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক নুরুল ইসলামের যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠাতা সদস্যদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন এসোসিয়েশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি প্রবীণ সাংবাদিক আতাউর রহমান আতা। প্রতিষ্ঠাতা সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মোঃ দুলাল হোসেন, তকুল রানা, কুমার গণেশ পাল। অভিষেক অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন এসোসিয়েশনের কোষাধ্যক্ষ মোঃ বেলায়েত হোসেন। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিদের ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জানান এসোসিয়েশনের সদস্য বৃন্দ। শুভেচ্ছা বিনিময় শেষে এসোসিয়েশনের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য, কার্যনির্বাহী কমিটি ও সদস্যদের সাথে পরিচিত হন অতিথিবৃন্দ। পরিচয় শেষে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথিকে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন নবনির্বাচিত সভাপতি আব্দুল বাতিন ফয়সল ও সদ্য বিদায়ী সভাপতি ইকবাল মনসুর। সম্মাননা স্মারক প্রদান শেষে ভাষা শহীদ ও এসোসিয়েশনের কোষাধ্যক্ষ প্রয়াত সিএম মারুফের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে দাঁড়িয়ে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। নিরবতা পালন শেষে

02সোসিয়েশনের নিয়মিত প্রকাশনা এসোসিয়েশনের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক নুরুল ইসলাম সম্পাদিত ‘লেন্স’র মোড়ক উন্মোচন করেন অর্থমন্ত্রীসহ অতিথিবৃন্দ।
অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র ও মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, জেলা অওয়ামীলীগের সাধারণ সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব শফিকুর রহমান চৌধুরী, সিলেটের নবাগত জেলা প্রশাসক রাহাত আনোয়ার, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আশফাক আহমদ, বিসিবি’র পরিচালক শফিউল আলম নাদেল, সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মাহি উদ্দিন সেলিম, অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক, কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদ, কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সহ-সভাপতি সেলিম আউয়াল, আওয়ামী লীগ নেতা বিজিত চৌধুরী, এস এম নুনু মিয়া, সিলেট জেলা প্রেসক্লাব সাধারন সম্পাদক শাহ দিদারুল আলম নবেল, ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সাধারন সম্পাদক মঈন উদ্দিন মনজু, মহানগর যুবলীগের আহবায়ক আলম খান মুক্তি, সিলেট ফটোগ্রাফিক সোসাইটির সভাপতি ফরিদ আহমদসহ সিলেটের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন এসোসিয়েশনের ২য় সহ-সভাপতি নজমুল কবির পাবেল।
এসোসিয়েশনের সদস্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি মামুন হাসান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আশকার আমিন লস্কর রাব্বী, সহ-সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হোসেন, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি সম্পাদক ইউসুফ আলী, নির্বাহী সদস্য নুরুল ইসলাম, শংকর দাস, সদস্য কয়েছ আহমদ, বিলকিছ আক্তার সুমি, আনিস রহমান, জাবেদ আহমদ, রতœা আহমদ তামান্না, শাহীন আহমদ, এস এম রফিকুল ইসলাম সুজন, শিপন আহমদ, আব্দুল মোমিন ইমরান, সুব্রত দাশ।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল