ফিলিপাইন নাগরিককে সনদ দেওয়ায় জগন্নাথপুরের বিতর্কিত চেয়ারম্যান মখলুছ সাময়িক বরখাস্ত – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

ফিলিপাইন নাগরিককে সনদ দেওয়ায় জগন্নাথপুরের বিতর্কিত চেয়ারম্যান মখলুছ সাময়িক বরখাস্ত

প্রকাশিত: ৮:০২ অপরাহ্ণ, জুন ৫, ২০২১

ফিলিপাইন নাগরিককে সনদ দেওয়ায় জগন্নাথপুরের বিতর্কিত চেয়ারম্যান মখলুছ সাময়িক বরখাস্ত

জগন্নাথপুর সংবাদদাতা :: ফিলিপাইন নাগরিককে জন্মনিবন্ধন ও নাগরিকত্ব সনদ প্রদানের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় নানা কারণে বিতর্কিত চেয়ারম্যান হাজী মো. মখলুছ মিয়া ও স্থানীয় ইউপি সদস্য আলেক উদ্দিনকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়। বরখাস্ত হওয়ায় ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্য সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার পাইলগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রতিনিধি।

 

সম্প্রতি স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের উপসচিব মো. আবুজাফর রিপন স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে তাদের সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

 

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, সরকারি আদেশ অমান্য করে যাচাই-বাচাই ছাড়া ফিলিপাইন নাগরিক বিজলিন পালর আছিয়াকে জন্মনিবন্ধন ও নাগরিকত্ব সনদ প্রদানের অভিযোগ স্থানীয় জেলা প্রশাসনের তদন্তে প্রমাণিত হওয়ায় তাদের দ্বারা ইউনিয়ন পরিষদে ক্ষমতা প্রয়োগ প্রশাসনিক দৃষ্টিকোণে সমীচীন নয় মর্মে সরকার মনে করে। সেহেতু সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার পাইলগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মখলুছ মিয়া ও একই পরিষদের ৮নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্যমো. আলেক উদ্দিন কর্তৃক সংঘটিত অপরাধমূলক কার্যক্রম পরিষদসহ জনস্বার্থের পরিপন্থি বিবেচনায় স্থানীয় সরকার ইউনিয়ন পরিষদ আইন, ২০০৯ এর ধারা ৩৪ (১) অনুযায়ী তাদের সাময়িক বরখাস্ত করা হল।

 

এ আদেশ যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদনক্রমে জনস্বার্থে জারি করা হলো এবং অবিলম্বে কার্যকর করা হবে।

 

গত ২৪ মে জেলা প্রশাসকের নির্দেশে জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাদের সাময়িক বরখাস্তের আদেশ কার্যকর করতে চিঠি দেন।

বহিস্কৃত চেয়ারম্যান মখলুছ মিয়া সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ভুলক্রমে নাগরিকত্ব সনদ দেওয়া হয়েছিল।

 

পাইলগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান শাহান আহমদ বলেন, বর্তমানে আমি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছি।

 

জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পদ্মাসেন সিংহ বলেন, আমি নতুন এ উপজেলায় যোগদান করেছি। বিষয়টি আমি শুনেছি।