ফিলিস্তিনিদের অধিকার প্রতিষ্ঠিত না হওয়া পর্যন্ত ইসরাইলকে স্বীকৃতি দেব না: ইমরান খান – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

ফিলিস্তিনিদের অধিকার প্রতিষ্ঠিত না হওয়া পর্যন্ত ইসরাইলকে স্বীকৃতি দেব না: ইমরান খান

প্রকাশিত: ১:২৬ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২০, ২০২০

ফিলিস্তিনিদের অধিকার প্রতিষ্ঠিত না হওয়া পর্যন্ত ইসরাইলকে স্বীকৃতি দেব না: ইমরান খান

অনলাইন ডেস্ক

ফিলিস্তিনিদের ভূখণ্ডের অধিকার প্রতিষ্ঠিত না হওয়া পর্যন্ত ইসরাইলকে স্বীকৃতি দেবে না পাকিস্তান। এমনটি জানিয়ে দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, পাকিস্তান একটি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র। আমাদের গোটা জাতি ফিলিস্তিনিদের পক্ষে। যতক্ষণ না ফিলিস্তিনিদের অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়, ততক্ষণ আমরা কিছুতেই ইসরাইলকে স্বীকৃতি দেব না।

শুক্রবার পাকিস্তানের সামা টিভিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে দেশটির প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। খবর আরব নিউজের।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর একজন গুরুত্বপূর্ণ উপদেষ্টা সম্প্রতি ইসরাইল সফর করেছেন বলে ইসরাইলের গণমাধ্যমে যে খবর বেরিয়েছে তা প্রত্যাখ্যান করেন ইমরান খান।

তিনি এ প্রতিবেদনকে ভিত্তিহীন আখ্যা দিয়ে উল্টো প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে বলেন, ইসরাইলকে যেহেতু ইসলামাবাদ স্বীকৃতিই দেয় না, তা হলে কেন পাকিস্তানের মন্ত্রী কিংবা গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি তেলআবিব সফর করবেন? এটি সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন প্রতিবেদন।

একই দিন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেহমুদ কোরেশি ওই প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করে বলেন, তেলআবিবে ইসরাইল ও পাকিস্তানের গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তাদের কোনো বৈঠক হয়নি। আবুধাবিতে রাষ্ট্রীয় সফরে গিয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বুধবার ইসরাইলের কয়েকটি পত্রপত্রিকা খবর দিয়েছে যে, ইমরান খানের একজন শীর্ষ পর্যায়ের উপদেষ্টা গত মাসে গোপনে ইসরাইল সফর করেছেন।

প্রচারণামূলক ওই খবরে ইসরাইলি গণমাধ্যমগুলো দাবি করেছিল যে, ইমরান খানের পক্ষ থেকে বিশেষ বার্তা বহন করে নিয়ে গেছেন ওই উপদেষ্টা। ইসরাইলি গণমাধ্যম আরও দাবি করেছে যে, রাজনৈতিক ও কূটনৈতিক সম্পর্ক প্রতিষ্ঠার আগ্রহ নিয়ে ইমরান খান তার উপদেষ্টাকে বার্তা পাঠিয়েছেন। ইসরাইলের প্রভাবশালী পত্রিকা জেরুজালেম পোস্টও এ খবর প্রকাশ করেছিল; কিন্তু পরে তা প্রত্যাহার করে নেয়।

প্রতিক্রিয়ায় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার সরকারের বিরুদ্ধে এই অপপ্রচারে ভারতের হাত থাকতে পারে। তিনি বলেন, স্বাধীন ফিলিস্তিনিদের ভূখণ্ডের দাবি ইসরাইল সম্মান জানাবে এমন আশা করে পাকিস্তান।

জেরুজালেমকে নিজেদের রাজধানী দাবি করে আসছে ফিলিস্তিন। পাকিস্তান তাদের এ দাবিকে ন্যায্য বলে সমর্থন দিয়ে আসছে।