ফুটপাত দখলে রাখা বিএনপির নেতাকে নিয়ে মেয়র আরিফের অভিযান – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

ফুটপাত দখলে রাখা বিএনপির নেতাকে নিয়ে মেয়র আরিফের অভিযান

প্রকাশিত: ১১:৩৮ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৩০, ২০১৯

ফুটপাত দখলে রাখা বিএনপির নেতাকে নিয়ে মেয়র আরিফের অভিযান

নিজস্ব প্রতিবেদক
ফুটপাতে অভিযানে মেয়রের সাথে বিএনপি মহানগর হকার্স দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি নুরুল ইসলাম।এই নেতা নিজেই ফুটপাত দখল করে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন বহাল তবিয়তে।এই নুরুল ইসলাম ফুটপাতে হকার্সদের মূল নেতা। প্রতিদিন চাঁদা উত্তোলন করে একটি অংশ সিসিকের ডে-লেভার শাহাব উদ্দিন শিহাব’কে দেয় বলে অভিযোগ উঠেছে। টাকা বন্ধ হয়ে গেলেই দেখা যায় হকার্স উচ্ছেদ অভিযান।
নগরীর ব্যস্ততম এলাকা বন্দরবাজার দুর্গাকুমার পাঠশালা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে রাস্তার মধ্যে অবৈধভাবে ফুটপাত দখল করে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন নুরুল। অথচ বুধবার মেয়র আরিফ বন্দরবাজার এলাকায় অবৈধভাবে ফুটপাত দখল করে রাখা ব্যবসায়ীদের উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন তিনি। কিন্তু নুরুল ইসলামের দখলে থাকা ফুটপাতে চালানো হয়নি অভিযান। কারণ নুরুল ্্্্্্ছিলেন মেয়রের সাথে, যার কারণে অন্য ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করে যান তিনি।
ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করে বলেন, দোকানের ভেতর মালামাল থাকা সত্ত্বে মেয়র আরিফ আমাদের মালামাল নিয়ে যান। এমনি কি রাস্তার মধ্যেও ফেলে দেন। অথচ নুরুল ইসলাম ফুটপাত দখল করে অবৈধভাবে ব্যবসা করে গেলেও তিনি ছিলেন নিরব। উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়নি নুরুল ইসলামের দখলে থাকা অবৈধ স্থাপনায়। এই নেতার নেতৃত্বে দুর্গাকুমার পাঠাশালা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে শুরু করে বন্দরবাজার চারপাশে ফুটপাত দখল করে ব্যবসা করছে হকার্স দলের নেতাকর্মীরা।
নুরুল ইসলাম দুর্গাকুমার পাঠাশালা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনের ফুটপাত দখল করে ১০-১৫টি দোকান বসিয়ে অবৈধভাবে অর্থ উপার্জন করে চলেছেন।
স্কুল কর্তৃপক্ষ নুরুল ইসলামের ভয়ে কিছু বলতেও পারছেন না। বিদ্যালয়ের কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীরা আসা যাওয়ায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছেন নুরুল ইসলামের অবৈধ দোকানপাট। দীর্ঘদিন ধরে মহানগর হকার্স দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি নুরুল ইসলাম এর দখলে থাকা ফুটপাতে চালানো হচ্ছে না অভিযান। একি দলের নেতা হওয়ায় মেয়রও দেখেও না দেখার ভান করে চলেছেন।