বঙ্গবন্ধু কাপের পর্দা উঠছে সন্ধ্যায় – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

বঙ্গবন্ধু কাপের পর্দা উঠছে সন্ধ্যায়

প্রকাশিত: ৩:০০ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১, ২০১৮

বঙ্গবন্ধু কাপের পর্দা উঠছে সন্ধ্যায়

আজ সন্ধ্যায় সিলেটে পর্দা উঠছে বঙ্গবন্ধু গোল্ড কাপ আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্টের পঞ্চম আসরের। সিলেট জেলা স্টেডিয়াম ভেন্যুতে শুরু হতে যাওয়া ৬ জাতির এই শিরোপার লড়াই টুর্নামেন্টে উদ্বোধনী দিনেই মাঠে নামছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। আর এ লাল-সবুজের দলের প্রতিপক্ষ লাওস।

সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে আজ সোমবার (১ অক্টোবর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় শুরু হতে যাওয়া এ টুর্নামেন্টকে কেন্দ্র করে প্রস্তুতি নিয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। এছাড়াও প্রশাসনের পক্ষ থেকেও নেয়া হয়েছে ব্যাপক প্রস্তুতি।

এ ফুটবল টুর্নামেন্টকে ঘিরে সিলেট নগরীর বিভিন্ন মোড়ে তৈরি করা হয়েছে বেশ কয়েকটি তোরণ। বিভিন্ন স্থানে রয়েছে বিশাল বিশাল বিলবোর্ড, ব্যানার। এছাড়াও বেশ কয়েকদিন ধরে নগরীতে মাইকিং করে নগরবাসীকে জানান দেয়া হচ্ছে ১ অক্টোবর এখানে শুরু হচ্ছে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্ট।

এদিকে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপকে সামনে রেখে নগরীতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছে সিলেট মহানগর পুলিশ। এছাড়াও নির্দ্দিষ্ট সময়ের জন্য কিছু কিছু রাস্তায় যান চলাচলে নিয়ন্ত্রণ আরোপ করা হয়েছে।

প্রতিদিন ম্যাচ চলাকালীন সময়ে রোজভিউ হোটেল থেকে সোবহানীঘাট-নাইওরপুল-কুমারপাড়া-শাহী ঈদগাহ-আম্বরখানা-মাজার গেইট-চৌহাট্টা হয়ে সিলেট জেলা স্টেডিয়াম পর্যন্ত, নির্ভানা-ইন হোটেল থেকে মির্জাজাঙ্গাল হয়ে তালতলা-জিতু মিয়া পয়েন্ট-লামাবাজার হয়ে সিলেট জেলা স্টেডিয়াম পর্যন্ত এবং স্টার প্যাসিফিক হোটেল মাজারগেইট থেকে চৌহাট্টা হয়ে সিলেট জেলা স্টেডিয়াম পর্যন্ত যান চলাচল নিয়ন্ত্রিত থাকবে বলে শনিবার এক বিজ্ঞপ্তিতে জানায় সিলেট মহানগর পুলিশ।

এদিকে, স্টেডিয়ামের পাশেই তিনটি বুথ করে টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে। টিকিটের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৫০ টাকা। ২৫ হাজার দর্শক ধারণ ক্ষমতার স্টেডিয়াম হলেও টিকিট ছাড়া হচ্ছে ২২ হাজার। বাকী ৩ হাজার টিকিট বাফুফে, জেলা ক্রীড়া সংস্থা, জেলা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনসহ ক্লাবগুলোকে সৌজন্য হিসেবে প্রদান করা হবে বলে জানিয়েছে ফেডারেশন।

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্ট অবশ্য সিলেটের জন্য নতুন নয় । ২০১৫ সালে সর্বশেষ আসরেও কয়েকটি ম্যাচ হয়েছিল সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে। তবে এবারের বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ একটু আলাদাই সিলেটবাসীর কাছে। টুর্নামেন্টের সিংহভাগ ম্যাচই হবে এখানে- গ্রুপ পর্বের ৬ ম্যাচ। বাকি ৩ ম্যাচের দুটি সেমিফাইনাল কক্সবাজারে, ফাইনাল ঢাকা বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে।

সিলেটে ফুটবলের দর্শক আছে- সেই বিবেচনাতেই বাফুফে এখানে বেশিরভাগ খেলা রেখেছে। শহরের মানুষের মধ্যেও বেশ আগ্রহ আছে ফুটবল টুর্নামেন্ট নিয়ে। সাংবাদিক দেখে অনেকেরই জানার আগ্রহ- বিদেশি দলগুলো কেমন? বাংলাদেশ ও গতবারের চ্যাম্পিয়ন নেপালের সঙ্গে এবার বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে খেলছে ফিলিস্তিন, ফিলিপাইন, তাজিকিস্তান ও লাওস।

রোববার বাকি ৪ দলকে এক ছাদের নিচে এনে সংবাদ সম্মেলন করেছে বাফুফে। টুর্নামেন্ট নিয়ে নিজেদের প্রস্তুতি ও লক্ষ্যের কথা জানালেন বাংলাদেশ, লাওস, ফিলিপাইন ও ফিলিস্তিনের কোচ, খেলোয়াড় ও কর্মকর্তারা।

ফিলিস্তিন, লাওস ও ফিলিপাইন- তিন দেশের কোচ, কর্মকর্তারাই এই টুর্নামেন্টে বাংলাদেশকে এগিয়ে রাখছে। যদিও ফিফা র‍্যাংকিং বিবেচনায় ৬ জাতির এ টুর্নামেন্টে সবার নিচে বাংলাদেশ। কারণ হিসেবে তারা বাংলাদেশের ঘরের মাঠকেই সামনে এনেছেন। পরিচিত মাঠ, দর্শকের সামনে সব দলই উজ্জীবিত থাকে বলেই বিদেশিরা ফেভারিটের তকমা লাগিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশের গায়ে।

সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বাংলাদেশ ও লাওসের ম্যাচ দিয়ে মাঠে গড়াবে পঞ্চম বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ আন্তর্জাতিক ফুটবল। সিলেটে গ্রুপের পর্বের ম্যাচ প্রতিদিন একটা করে। প্রধান অতিথি হিসেবে টুর্নামেন্টের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন ও স্পন্সর প্রতিষ্ঠান কে-স্পোর্টসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহাদ করীম।

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল