বঙ্গমাতা মানে প্রেরনা, বঙ্গবন্ধু মানে বাংলাদেশ,শেখ হাসিনা মানে উন্নয়ন : জননেতা পলাশ (ভিডিও)

প্রকাশিত: ৬:৩০ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২৭, ২০২১

বঙ্গমাতা মানে প্রেরনা, বঙ্গবন্ধু মানে বাংলাদেশ,শেখ হাসিনা মানে উন্নয়ন : জননেতা পলাশ (ভিডিও)

নিজস্ব প্রতিবেদক-

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিশ্বের মানচিত্রে ক্রীড়া অঙ্গনে সোনালি অধ্যায়ের সূচনা হয়েছে-
জকিগঞ্জ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্টিত বঙ্গবন্ধু মিনিবার ফুটবল টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগ এর বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক ও সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার সদস্য আলহাজ্ব মস্তাক আহমদ পলাশ। প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে আরো বলেন ফুটবল গ্রামীণ জনপদের একটি জনপ্রিয় খেলা। বর্তমান মৌসুমে গ্রামীণ অঞ্চলে মিনিবার ফুটবল টুর্নামেন্ট ব্যাপক আকারে প্রচলন হয়েছে।
বঙ্গবন্ধু মিনিবার ফুটবল টুর্নামেন্ট পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক এম এ জি বাবর এর সভাপতিত্বে ও কমিটির সদস্য সচিব প্রবাসী নেতা ফজলুর রহমান এর পরিচালনায় অনুষ্টানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জকিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাজেদা রওশন শ্যামলী, কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মুমিন চৌধুরী, কাউন্সিলর আলমগীর হোসেন পুতুল,সিলেট জেলা যুবলীগ নেতা আহমদ হোসেন খান।

আরো উপস্থিত ছিলেন জাকির হোসেন মুকুল, দেলোয়ার হোসেন নজরুল, জালাল খান, জবরুল হোসেন ইমন, মোহাম্মদ ফরহাদ আহমদ প্রমুখ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগ এর বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক ও সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার সদস্য আলহাজ্ব মস্তাক আহমদ পলাশ আরো বলেন,বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রের জন্ম জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাত ধরে হয়েছিল। তবে সেই রাষ্ট্র গড়ার সময় তিনি পাননি। স্বাধীনতার সাড়ে তিন বছরের মাথায় ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু ঘাতকদের হাতে সপরিবারে নিহত হন। দীর্ঘ ২১ বছর পর ক্ষমতায় এসে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন বাস্তবায়নে একে একে কর্মসূচি হাতে নেন তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ২০১৪ সালে তৃতীয় মেয়াদে দায়িত্ব গ্রহণের পর যার সুফল বাংলাদেশের জনগণ পেতে শুরু করেছে। আজ এমন এক মহান সময়ে আমরা এসে দাঁড়িয়েছি, যখন বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশের স্বীকৃতি পেয়েছে। এমনকি দেশরত্ন শেখ হাসিনা পৃথিবীর সেরা প্রধানমন্ত্রীর তালিকায় ২য় স্থানে রয়েছেন। পার্বত্য চট্টগ্রামের ঐতিহাসিক শান্তি চুক্তি সম্পাদন, একুশে ফেব্র“য়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের স্বীকৃতি লাভ, বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনিদের বিচার, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার, জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ, ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণ, নারীর ক্ষমতায়ন, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি উৎপাদনে অভাবনীয় সাফল্য, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, কর্মসংস্থানসহ সব ক্ষেত্রেই সেই উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে। এসব উন্নয়ন কর্মসূচি তাকে বাংলাদেশের উন্নয়নের রূপকারে পরিণত করেছে। বঙ্গবন্ধু হত্যার পর ২০১৪ সালে তৃতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেশ পরিচালনার দায়িত্ব পড়েছে শেখ হাসিনার কাঁধে। তার সময়েই বাংলাদেশ নিম্ন থেকে নিম্ন মধ্য আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশের অর্থনীতিকে মজবুত ভিতের ওপর দাঁড় করিয়েছেন। জিডিপির প্রবৃদ্ধির হার সব সময় ৬ এর ওপর রয়েছে। বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভের হার রেকর্ড বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে গেছে।

উল্লেখ্য গত ১০ নভেম্বর উক্ত টুর্নামেন্টের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা হয়। প্রায় ৮৮ টি দল এই টুর্নামেন্টে অংশ গ্রহন করে।
হাজারো দর্শকদের উপস্থিতিতে ফাইনাল খেলায় লামাবাজার একাদশ কালিগঞ্জ বনাম ইম্পেরিয়াল একাদশ জকিগঞ্জ পৌরসভা তুমুল উত্তেজনামুলক খেলায় শেষ পর্যায়ে ট্রাইবেকারে জকিগঞ্জ পৌরসভার ইম্পেরিয়াল একাদশ খেলায় চ্যাম্পিয়ন হয়।

 

 

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল