বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে মহিলা কলেজের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে মহিলা কলেজের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

প্রকাশিত: ৬:৩৬ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৫, ২০১৬

বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে মহিলা কলেজের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

kadiza9999999৫ আক্টোবর ২০১৬, বুধবার: সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের ছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিসকে নৃসংসভাবে কুপিয়ে আহত করার ঘটনায় দায়ি বদরুল আলমের শাস্তি দাবি করে নগরীতে বিক্ষোভ মিছিল ও অবরোধ করেছে কলেজটির শিক্ষার্থীরা।

বুধবার (৫ অক্টোবর) সকাল ১০টায় কলেজ ক্যাম্পাস থেকে বিভিন্ন প্লাকার্ড নিয়ে মিছিল করে শিক্ষার্থীরা চৌহাট্টা, রিকাভীবাজার, জিন্দাবাজার ঘুরে ক্যাম্পাসের সামনে এসে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। বিভিন্ন শ্রেণীর সাধারণ মানুষকেও তাদের বিক্ষোভে একাত্ম হতে দেখা যায়।

ঘন্টাখানেক বিক্ষোভের পর এক পর্যায়ে শিক্ষকদের আশ্বাসের প্রেক্ষিতে রাস্তা ছেড়ে দিয়ে ক্যাম্পাসের ভেতরে চলে যায় তারা। এ সময় শিক্ষার্থীরা খাদিজা হত্যা চেষ্টার আসামী শাবিপ্রবির ছাত্রলীগ নেতা বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করে।
শিক্ষার্থীরা জানান, বদরুলের সাজা চেয়ে জেলা প্রসাশক বরাবর স্মারকলিপি দেয়ার কর্মসূচিও রয়েছে তাদের।

সিলেট সরকারী মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী ও এই আন্দোলনের আহবায়ক ফজিলাতুন্নেসা বলেন, আমরা নিরাপত্তাহীনতায় বোধ করছি।আমাদের মা বাবা আমাদেরকে স্কুল কলেজে পাঠান আসলেই কি সেখানে আমরা নিরাপদ। কোপানোর সংস্কৃতি আজ কলেজে ডুকে গেছে। আর কত খাদিয়া মরলে আমরা নিরাপত্তা পাব।

আগামীকাল বৃহস্পতিবার সিলেটের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক শিক্ষার্থীদের নিয়ে বিক্ষোভ সমাবেশ সফল করার জন্য তিনি আহবান জানান।

সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ ড. মোহাম্মদ নুরুল ইসলাম বলেন, প্রকাশ্যে দিবালোকে একটা ক্যাম্পাসে এই ধরনের হামলা বর্বরতম। দৃষ্টান্তমূলক বিচার চাই আমরা।
উল্লেখ্য, সোমবার (৩ অক্টোবর) বিকেলে খাদিজা আক্তার নার্গিস নামের এক কলেজছাত্রীকে এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে প্রকাশ্যে কুপিয়ে জখম করে বদরুল আলম নামের এক শাবি ছাত্র। গুরুতর আহত খাদিজাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সোমবার মধ্যরাতে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। হামলাকারী বদরুলকে আসামী করে শাহপরান থানায় খাদিজার পরিবার থেকে একটি হত্যাচেষ্টা মামলা দায়ের করা হয়েছে।
এ ঘটনার পর এমসি কলেজের শিক্ষার্থীরা হামলাকারী বদরুলকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। গণপিটুনিতে আহত বদরুলকেও ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বদরুল শাবিপ্রবি শাখা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক। তবে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগ মঙ্গলবার এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে বদরুলের সাথে সংগঠনের কোন সম্পর্ক নেই, ব্যক্তির দায় সংগঠন নেবেনা। এদিকে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে হামলাকারী বদরুলকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল