বর্ষবরণ উৎসবে হাজারো মানুষের ঢল

প্রকাশিত: ৫:৪২ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৪, ২০১৬

বর্ষবরণ উৎসবে হাজারো মানুষের ঢল

123আবহমান বাংলা ও বাঙালির চিরায়ত উৎসব পহেলা বৈশাখকে উৎসবমুখর পরিবেশের মধ্য দিয়ে বরণ করল সিলেট জেলা শিল্পকলা একাডেমী।

বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্বলন ও ঢাকের বাদ্যের মধ্য দিয়ে বর্ষবরণ উৎসবের শুভ সূচনা ঘটে। হাজারো মানুষের ঢল, মুহুর্মুহুর করতালি, বর্ণিল আয়োজন এবং গান, কবিতা ও নৃত্যের মূর্ছনায় মুখরিত ছিল শিল্পকলা প্রাঙ্গণ।

বাহারি রকমের আলপনা, ম্যুরাল, নিয়ন আলো ও বর্ণিল সাজে শিল্পকলাকে দৃষ্টিনন্দিত করেছে একাডেমীর চারুকলা বিভাগের শিক্ষার্থীরা যা ছিল চোখে পড়ার মতো।

জেলা কালচারাল অফিসার অসিত বরণ দাশ গুপ্তের সভাপতিত্বে উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেটের জেলা প্রশাসক মো. জয়নাল আবেদীন। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. শহিদুল ইসলাম চৌধুরী, সিলেট জেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি আজিজ আহমদ সেলিম, সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেটের সহসভাপতি খোয়াজ রহিম সবুজ ও সাধারণ সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত প্রমুখ।

বাংলাদেশ বেতার সিলেট কেন্দ্রের অনুষ্ঠান উপস্থাপিকা অনিমা দে তন্বীর উপস্থাপনায় সাংস্কৃতিক পরিবেশনার মধ্যে ছিল বৈশাখের গান, লোকসংগীত, কাঠিনৃত্য, ঝুমুর নৃত্য, লোকনৃত্য, সম্মেলক সংগীত, বৃন্দ আবৃত্তি, ধামাইল, মণিপুরি নৃত্য, একক ও দলীয় সংগীত এবং বাউলগান।

উৎসবটিতে সাংস্কৃতিক পরিবেশনা ও পরিচালনায় ছিলেন শিল্পকলা একাডেমীর সংগীত, নৃত্য ও আবৃত্তি বিভাগ, একাডেমী ফর মণিপুরি কালচার এন্ড আর্ট, শিল্পাঙ্গন, ছন্দনৃত্যালয়, মোহনা এমসি কলেজ, রাধারমণ সাংস্কৃতিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র বিশ্বনাথ, সংগীতশিল্পী সুষমা দাস, হিমাংশু বিশ্বাস, জামালউদ্দিন হাসান বান্না, বাউল সূর্য্যলাল দাস, লাভলী দেব, শামীম আহমেদ, শান্তা রাণী বর্ধণ, অনিমেষবিজয় চৌধুরী, তন্বী দেব, নৃত্যশিল্পী শ্যামল ঘোষ, বিপুল শর্মা, আবৃত্তিশিল্পী জ্যোতি ভট্টাচার্য্য এবং চারুশিল্পী অরবিন্দ দাস গুপ্ত ও ইসমাইল গনি হিমন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল