বাবা তোমাকে আমার খুব মনে পড়ে : ইসমত ইবনে ইসহাক সানজিদ – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

বাবা তোমাকে আমার খুব মনে পড়ে : ইসমত ইবনে ইসহাক সানজিদ

প্রকাশিত: ৬:৩৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৯, ২০২০

বাবা তোমাকে আমার খুব মনে পড়ে : ইসমত ইবনে ইসহাক সানজিদ
আমার বাবা সাবেক কাস্টমস অফিসার, ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি ন্যাপের সিলেট মহানগরের সাবেক সভাপতি, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মরহুম ইসহাক আলী বিগত ২০১৭ ইংরেজি সালে ২৬শে মে ভোর রাতে ইন্তেকাল করেন। আমি কোন দিন ভাবিনি আমাকে এ রকম লিখতে হবে। আমার বাবা আমার শ্রেষ্ঠ সম্পদ ছিলেন। জীবনে প্রতিটি সেকেন্ড, প্রতিটি মুহূর্তে আমি আমার বাবাকে আগলে রেখেছি আমার মত করে। বাবা ছিলেন আমার চোখের মনি, চোখের জ্যোতি। আমি আমার বাবাকে হারিয়ে ফেলেছি, সেটি মানতে খুবই কষ্ট হচ্ছে। চোখের পানি হয়তো শুকিয়ে যেতে পারে, ভেতরের পানি শুকিয়ে যায়নি। আমি আমার বাবার বড় আদরের একমাত্র সন্তান। আমি বাবাকে হারিয়ে আজ বাকরুদ্ধ হয়ে গেছি। এ কেমন চলে যাওয়া আমি ভাবতে পারিনা, ভাবতে আমার বড় কষ্ট হয়। মৃতে্যুর পূর্ব মুহূর্ত পর্যন্ত আমি আমার বাবার সাথে ছিলাম। বাবা-ছেলে আলিঙ্গন করেছি আমাদের মত করে। বাবা ছেলে অনেক কথা হয়েছে কেউ জানেনা, শুধু আমি আর আমার বাবা জানি। সারাটা জীবন আমার চোখের পানি ফেলেছি খোদার কাছে আমার বাবাকে বাঁচিয়ে রাখার আকুতি জানিয়েছি। তারপরও এ কেমন হয়ে গেল ভাবতে আমার বড় কষ্ট লাগে। মহান আল্লাহর ডাকে সাড়া দিয়ে পরপারে চলে গেছেন আমার বাবা। পৃথিবীর সকল বাবাদের মত আমার বাবা ছিলেন একজন শ্রেষ্ঠ বাবা। তিনি ছিলেন অত্যন্ত ভদ্র-মার্জিত, ভালো পড়াশোনা জানা লোক। সমাজের প্রতিটি স্তরের মানুষের সাথে মিশেছেন বড় আপন করে। সমাজে উনার গ্রহনযোগ্যতা ছিল অনেক বেশি। প্রতিটি মানুষ উনাকে কেমন করে সম্মান করত ভালোবাসতো তা আমি নিজে দেখেছি। মহান স্বাধীনতা মুক্তিযুদ্ধে তার এক বিরাট অবদান ছিল। তিনি ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের এক অন্যতম সংগঠক। তিনি ৬৯, ৭০ এর ছাত্র ইউনিয়নের এক অন্যতম তুখুড় নেতা ছিলেন। পরবর্তীতে তিনি বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি ন্যাপে যোগদান করেন। মৃত্যুর পূর্ব মুহূর্ত পর্যন্ত ন্যাপ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ছিলেন বাবা। তিনি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী প্রগতিশীল রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন এবং রাজনৈতিক অঙ্গনে তার পদচারনা ছিল অনেক বেশি। তিনি ছিলেন এক আদর্শবান রাজনীতিবিদ। আমার স্মৃতিপটে মনে পড়ে আমাদের সিলেট-১ আসনের মাননীয় মন্ত্রী জনাব আবুল মাল আব্দুল মুহিত ও সিলেটের জননন্দিত সাবেক মেয়র প্রয়াত বদর উদ্দিন আহমদ কামরান এর ছড়াপাড়াস্থ বাসভবনে নির্বাচনকালীন প্রতিটি মিটিংয়ে বাবার সরব উপস্থিত থাকতো। উনার সাথে আমিও থাকতাম। আমার বাবা ছিলেন বহুগুণে গুণান্বিত একজন আদর্শবান মানুষ এবং একজন আদর্শবান পিতা। আমি আমার বাবাকে হারিয়ে ফেলেছি আমার ভাবতে খুব কষ্ট হচ্ছে। বাবা তোমাকে আমার মনে পড়ে সব সময়। বাবার জন্য আমি দেশবাসীর কাছে দোয়া প্রার্থী। লেখক- মরহুমের ছেলে সিলেট জজ কোর্টের শিক্ষানবীশ আইনজীবী ,বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (ন্যাপ) সিলেট জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ইসমত ইবনে ইসহাক সানজিদ।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল