বিএনপি ভুল বুঝতে পেরে সার্চ কমিটিকে মেনে নাম প্রস্তাব করেছে: মোহাম্মদ নাসিম – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

বিএনপি ভুল বুঝতে পেরে সার্চ কমিটিকে মেনে নাম প্রস্তাব করেছে: মোহাম্মদ নাসিম

প্রকাশিত: ৫:৪৯ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১, ২০১৭

বিএনপি ভুল বুঝতে পেরে সার্চ কমিটিকে মেনে নাম প্রস্তাব করেছে: মোহাম্মদ নাসিম

খুলনা প্রতিনিধি: বিএনপি শুরুতে না মানলেও পরে তাদের ভুল বুঝতে পেরে সার্চ কমিটিকে মেনে নাম প্রস্তাব করেছে বলে মন্তব্য করে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘রাষ্ট্রপতি তার সাংবিধানিক ক্ষমতা ব্যবহার করে শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন গঠন করবেন, যার মাধ্যমে আগামী ২০১৯ সালে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।’

বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় খুলনা জেনারেল হাসপাতাল পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘রাষ্ট্রপতি সাংবিধানিক ক্ষমতাবলে সার্চ কমিটি গঠন করেছেন। তাৎক্ষণিকভাবে বিএনপি এর বিরোধিতা করলেও তারা বিষয়টি বুঝতে পেরে নাম জমা দিয়েছে। আওয়ামী লীগও নাম দিয়েছে। অন্যান্য দলের পক্ষ থেকেও নাম দেওয়া হয়েছে। এখন সার্চ কমিটি সম্ভাব্য ব্যক্তিদের একটি তালিকা করে রাষ্ট্রপতির কাছে জমা দেবেন। এরপরই রাষ্ট্রপতি সাংবিধানিক ক্ষমতাবলে একটি নির্বাচন কমিশন গঠন করবেন।’

খুলনা জেনারে হাসপাতাল সম্পর্কে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘খুলনা জেনারেল হাসপাতালটি ১৯৩৫ সালে প্রতিষ্ঠিত একটি পুরাতন হাসপাতাল। এখানে সমস্যাও অনেক। ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে এর দুটি ভবন নির্মাণ করে। এরপরও ১২টি ভবন ঝুঁকিপূর্ণ রয়েছে। যে কারণে জনগণের প্রতি দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে এসব ভবন অপসারণ করে একটি বহুতল ভবন নির্মাণের জন্য দ্রুত ৪০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হবে। এছাড়াও হাসপাতালের সিটি স্ক্যানিং মেশিনসহ অন্যান্য চিকিৎসা সরঞ্জাম এবং অ্যাম্বুলেন্সের জন্য প্রয়োজনে আরও অর্থ বরাদ্দ করা হবে।’

জেনারেল হাসপাতাল পরিদর্শনের সময় খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ, কেন্দ্রীয় নেতা এসএম কামাল হোসেন, জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান, সিভিল সার্জন ডা. এ এসএম আব্দুর রাজ্জাক উপস্থিত ছিলেন।

পরবর্তিতে তিনি খুলনা শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের নবনির্মিত প্লাস্টিক সার্জারি ও বার্ন ইউনিট এবং ইনসেনটিভ কেয়ার ইউনিট (আইসিইউ) উদ্বোধন করেন।

পরিদর্শন শেষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী খুলনা জেনারেল হাতপাতালের জরাজীর্ণ ভবনগুলি অপসারণ করে নতুন ভবন নির্মাণের লক্ষ্যে তাৎক্ষণিকভাবে ৪০ কোটি টাকা বরাদ্দের ঘোষণা দেন এবং পর্যায়ক্রমে হাসপাতালকে ২৫০ শয্যায় উন্নিত করার আশ্বাস দেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

ফেসবুকে সিলেটের দিনকাল