বিদেশে থেকেও মামলার আসামী একজন ব্যবসায়ী! হয়রানীতে পরিবার – দৈনিক সিলেটের দিনকাল

বিদেশে থেকেও মামলার আসামী একজন ব্যবসায়ী! হয়রানীতে পরিবার

প্রকাশিত: ৯:৫০ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৬

বিদেশে থেকেও মামলার আসামী একজন ব্যবসায়ী! হয়রানীতে পরিবার

badis-photo১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬, বুধবার: একের পর এক হত্যামামলায় জড়িয়ে একজন ব্যবসায়ীকে হয়রানি করার অভিযোগ উঠেছে। বিদেশে থেকেও দেশের হত্যা মামলায় তাকে আসামী করা হয়েছে। প্রকৃত অপরাধীদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণে উদ্যোগী না হয়ে নিরাপরাধ ব্যক্তিকে স্পর্শকাতর এসব মামলায় জড়িয়ে বরং প্রকৃত অপরাধীদেরই আড়াল করে ফেলা হচ্ছে। এরকমই দাবি করলেন নগরীর খুলিয়াপাড়ার তরুণ ব্যবসায়ী তোফায়েল আহমদ ও তার পরিবার বর্গ। তারা এ ব্যাপারে সিলেটের জেলা প্রশাসক, পুলিশ কমিশনার ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা কামনা করেছেন। তোফায়েলের পরিবারের অভিযোগ তাজুলের ভাই নুরুল ইসলাম একটি টিভি চ্যানেলে বক্তব্য প্রদানকালে বলেছেন, তাজুল হত্যাকান্ডের সময় তোফায়েল জড়িত ছিলেন যা কোন অবস্থায় সত্য নয়। কেননা, ঐদিন তিনি ভারতের একটি স্থানে তার ব্যবসায়িক কাজে অবস্থান করছিলেন। তাছাড়া আরো কিছু গণমাধ্যমে ও মানববন্ধনের ব্যানারে তার ছবি লাগানো হচ্ছে এতে তারা হয়রানির শিকার হচ্ছেন বলে দাবি করেন।
তাদের দাবি গত ১৭ আগস্ট ব্যবসার প্রয়োজনে তোফায়েল আহমদ ভারতে যান। সেখানে কাজ শেষে ২৩ আগস্ট তিনি দেশে আসেন। ২০ আগস্ট রাত ১০টায় গরম দেওয়ান মাজারের সামনে নৃশংসভাবে খুন হন তাজুল ইসলাম। ২৩ আগস্ট এসএমপির কতোয়ালী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। (মামলা নং-৯)। উক্ত মামলায় আসামী করা হয় এবং এজাহারে উল্লেখ করা হয় হত্যাকান্ডের ঘটনায় তোফায়েলের জড়িত ছিলেন। যা সঠিক নয়। তোফায়েল আহমদের পরিবারের দাবি যে কোন খুনের ঘটনাই হৃদয় বিদারক ও দুঃখজনক। যা কোন সুস্থ জ্ঞান সম্পন্ন মানুষের কাছে কাম্য নয়। অপরাধী যেই হোক না কেন তাকে তার কৃতকর্মের শাস্তি পেতে হবে। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য তাজুল ইসলাম খুনের ঘটনায় বিদেশে অবস্থানকালীন সময়ে সংঘটিত হত্যা মামলায় আসামী করা হয়। শুধু তাই নয় হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে আয়োজিত সভা সমাবেশের ব্যানারেও তার ছবি সম্পৃক্ত করা হচ্ছে। অতীতেও একই ভাবে তোফায়েলকে ওই পরিবারের খুন হওয়া সোহান ও গুরুতর আহত হওয়া তার ভাই এর ঘটনায় দায়ের করা মামলায় তোফায়েলকে অভিযুক্ত করা হয়। যথাসময়ে সেসব বিষয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন তোফায়েল। পত্র পত্রিকায় বিবৃতি দিয়ে তার অবস্থানের কথা তুলে ধরে ছিলেন। কিন্তু তারপরও তাকে মামলায় জড়ানো হয়েছে।
তাদের দাবি খুলিয়াপাড়াবাসী সাবেক কাউন্সিলারের পরিবারের কিছু সদস্যদের বিরুদ্ধে ইতোমধ্যে সভা সমাবেশ আয়োজনসহ প্রশাসনের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি